জিম্বাবুয়েকে চেপে ধরেছে বাংলাদেশ

লক্ষ্যটা বিশাল। ৩২১ রানের। যদিও সিলেটের উইকেট ব্যাটিং বান্ধব। কিন্তু তার জন্য প্রয়োজন ছিল দারুণ সূচনা। কিন্তু এদিন শুরু থেকেই দুর্দান্ত টাইগার বোলাররা। ফলে শুরুতে থেকেই চেপে ধরেছে সফরকারীদেরকে। দলীয় ৮৪ রানেই জিম্বাবুয়ের টপ অর্ডারের ৬ উইকেট তুলে নিয়েছে তারা।
ছবি: ফিরোজ আহমেদ

লক্ষ্যটা বিশাল। ৩২১ রানের। যদিও সিলেটের উইকেট ব্যাটিং বান্ধব। কিন্তু তার জন্য প্রয়োজন ছিল দারুণ সূচনা। কিন্তু এদিন শুরু থেকেই দুর্দান্ত টাইগার বোলাররা। ফলে শুরুতে থেকেই চেপে ধরেছে সফরকারীদেরকে। দলীয় ৮৪ রানেই জিম্বাবুয়ের টপ অর্ডারের ৬ উইকেট তুলে নিয়েছে তারা।

সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে শনিবার স্কোরবোর্ডে ১ রান যোগ হতেই টিনাশে কামনোহুকামওয়েকে ফিরিয়ে জিম্বাবুয়ে শিবিরে আঘাতের শুরু করেন মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন। যদিও প্রথম ওভারেই তার উইকেটটা পেতে পারতেন মোস্তাফিজুর রহমান। কামনোহুকামওয়েকে এলবিডাব্লিউর ফাঁদে ফেলেছিলেন তিনি। তবে আবেদনে সাড়া দেন আম্পায়ার কুমারা ধর্মসেনা। রিভিউও নেয়নি তারা। রিপ্লেতে দেখা গিয়েছিল পরিষ্কার আউট হয়েছিল তারা।

অষ্টম ওভারে দ্বিতীয় উইকেটও তুলে নেন সেই সাইফউদ্দিনই। পরের ওভারে আঘাত হানেন অধিনায়ক মাশরাফি বিন মুর্তজা। প্রতিপক্ষ অধিনায়ককে ফেরান বাংলাদেশ অধিনায়ক। তার ভালো লেন্থে ফেলা ডেলিভারিটি ঠিকভাবে খেলতে পারেননি চামু চিভাবা। ব্যাটে-বলে সংযোগ ঠিক না হওয়ায় ক্যাচ ওঠে মিড অনে। আর দারুণভাবে তা লুফে নিয়ে মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ স্বস্তি এনে দেন মাশরাফিকে।

আগের দশ ম্যাচে মাশরাফির নামের পাশে উইকেটের সংখ্যা ছিল কেবল একটি। সেই হতাশা কাটিয়ে, দীর্ঘ প্রতীক্ষার অবসান ঘটিয়ে অবশেষে জাতীয় দলের হয়ে উইকেট পান ডানহাতি পেসার। ২০১৯ সালের ৮ জুন বিশ্বকাপের ম্যাচে স্বাগতিক ইংল্যান্ডের বিপক্ষে সবশেষ উইকেটটি নিয়েছিলেন তিনি। এরপর টানা পাঁচ ম্যাচে উইকেটশূন্য ছিলেন ‘নড়াইল এক্সপ্রেস’ খ্যাত পেসার। সময়ের হিসেবে প্রায় আট মাস পর ওয়ানডেতে উইকেট পেলেন টাইগার অধিনায়ক।

এরপর সাবেক অধিনায়ক ব্রেন্ডন টেইলরের সঙ্গে দলের ইনিংস মেরামত করার চেষ্টা করেন ওয়েসলি মাধাভেরে। কিন্তু স্কোরবোর্ডে ২১ রান যোগ হতেই টেইলরকে ফিরিয়ে এ জুটি ভাঙেন তাইজুল ইসলাম। তবে সফরকারীদের হয়ে লড়াইটা সিকান্দার রাজাকে নিয়ে করছিলেন মাধাভেরে। পঞ্চম উইকেটে ৩৫ রানের জুটি গড়ে ভালো কিছুর ইঙ্গিত দিচ্ছিলেন তারা। কিন্তু রাজাকে ফিরিয়ে এ জুটি ভাঙেন মোস্তাফিজুর। এরপর আরেক সেট ব্যাটসম্যান মাধাভেরেকে অধিনায়ক মাশরাফির ক্যাচে পরিণত করে ফেরান মেহেদী হাসান মিরাজ। ফলে ৮৪ রানেই ৬ উইকেট হারিয়ে বড় চাপে পড়ে যায় দলটি।

সপ্তম উইকেটে রিচমন্ড মুটুমবামি ও টিনোটেনডা মুটমবোডজি হাল ধরার চেষ্টা করছেন। এ প্রতিবেদন লেখা পর্যন্ত ১৭ রানে জুটি গড়েছেন। ২৭ ওভার শেষে জিম্বাবুয়ের সংগ্রহ এখন ৬ উইকেটে ১০১ রান। জিততে হলে এখনও ১২১ রান প্রয়োজন দলটির। হাতে আছে মাত্র ৪টি উইকেট।

এর আগে নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৬ উইকেটে ৩২১ রান সংগ্রহ করেছে বাংলাদেশ। যা জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে বাংলাদেশের সর্বোচ্চ স্কোরও বটে। এর আগে ২০০৯ সালে বুলাওয়েতে ৮ উইকেটে ৩২০ রান করেছিল বাংলাদেশ। তবে সবমিলিয়ে এটা বাংলাদেশের অষ্টম সর্বোচ্চ সংগ্রহ। দারুণ এক সেঞ্চুরি তুলে ক্যারিয়ারের সর্বোচ্চ ১২৬ রান করার ইনজুরিতে পড়ে মাঠ ছাড়েন লিটন। শেষ দিকে মোহাম্মদ মিঠুনের ৫০ ও মোহাম্মদ সাইফউদ্দিনের ঝড়ো ২৮ রানের ইনিংসে পুঁজিটা বড় হয় টাইগারদের।

Comments

The Daily Star  | English
Dhaka brick kiln

Dhaka's toxic air: An invisible killer on the loose

Dhaka's air did not become unbreathable overnight, nor is there any instant solution to it.

12h ago