গণমাধ্যমকে মিস করবেন অধিনায়ক মাশরাফি

বিদায় বেলায় দেশের সফলতম অধিনায়ক বললেন, কোন অর্থেই গণমাধ্যম প্রতিপক্ষ নয়। বরং এই সংবাদ সম্মেলন, প্রশ্নত্তোর, আড্ডা সব কিছু ভীষণ মিস করবেন তিনি।
Mashrafe Mortaza
ছবি: ফিরোজ আহমেদ

তাঁর সঙ্গে ক্রিকেট সংশ্লিষ্ট সকলের বন্ধুর মতো সম্পর্ক । মাশরাফি বিন মর্তুজার প্রাণখোলা আড্ডা বাংলাদেশের ক্রিটাঙ্গনের চেনা ছবি। ক্রীড়া সাংবাদিকরা অনেকেও তার ভীষণ কাছের, পেশাদারিত্বের সীমা ছাড়িয়ে অনেকসময় তা আবেগের জায়গাতেও পৌঁছে যায়। কিন্তু অধিনায়কত্বের শেষ সময়ে এই গণমাধ্যমের কাছ থেকে অনেক তেতো প্রশ্ন শুনতে হয়েছে মাশরাফিকে। বরাবরই সব প্রশ্ন পরিণত মেজাজে সামলে এসেছেন। যদিও অধিনায়কত্বের শেষ সিরিজের আগে আবেগ সামলে রাখতে না পারা ভিন্ন মাশরাফিও দেখা মিলেছে। তবে বিদায় বেলায় দেশের সফলতম অধিনায়ক বললেন, কোন অর্থেই গণমাধ্যম প্রতিপক্ষ নয়। বরং এই সংবাদ সম্মেলন, প্রশ্নত্তোর, আড্ডা, খুনসুটি সব কিছু ভীষণ মিস করবেন তিনি।

শুক্রবার সিলেট আন্তর্জাতিক ক্রিকেট স্টেডিয়ামে শেষ হয়েছে বাংলাদেশের ক্রিকেটের একটি অধ্যায়। অধিনায়ক মাশরাফি তার ক্যারিশম্যাটিক নেতৃত্ব থামিয়ে বলেছেন, ‘বিদায়।’ বাংলাদেশকে ৫০টি ম্যাচ জিতিয়ে আবেগের স্রোতে বিদায় নেওয়া অধিনায়কের শেষ সংবাদ সম্মেলন মাত্রা নেয় ভিন্ন মেজাজে। এই প্রথম বাংলাদেশের কোন অধিনায়কের সংবাদ সম্মেলন শেষে দাঁড়িয়ে করতালি দিয়ে সম্মান জানান সাংবাদিকরা।

এর আগে গণমাধ্যমের সঙ্গে তার সম্পর্ক নিয়ে অধিনায়ক বলেন, পেশাদারিত্বের জায়গা ঠিক রেখেও চলে এই ঘনিষ্ঠতা,  ‘আমি সব সময় বলে এসেছি ক্রিকেট সংশ্লিষ্ট যারা আছে বিশেষ করে বোর্ড, স্টাফ, মিডিয়া, গ্রাউন্ডসম্যানসহ আরও যারা যারা আছে, তাদের সঙ্গে একটু বিরতি হয়ে গেলে আমি মিস করি। এটাই নিয়ম। আমাদের সঙ্গে সবার সম্পর্ক ভালো। অন্যান্য দেশে দেখবেন ক্রিকেটারদের সঙ্গে বিরাট ব্যবধান থাকে। আমাদের কিন্তু এটা তৈরি হয়নি। এমনও হয়েছে আমরা ঘরের ভেতরেও আড্ডা দিয়েছি। আশা করি এটা থাকবে। ভালো সম্পর্ক এক জিনিস। পেশা আরেক জিনিস। পেশাদারিত্বের জায়গায় দৃঢ় থেকে সম্পর্ক বজায় রাখতে হবে।’

বাংলাদেশকে অনেক সাফল্য এনে দেওয়ার নায়কের মতে গণমাধ্যম প্রতিপক্ষ তো নয় বটেই, আজকের অনেকের উত্থানের পেছনেও ভূমিকা আছে গণমাধ্যমের, ‘আমি তো মনে করি গণমাধ্যম এক জিনিস, যে সব কিছু তুলে ধরে। মিডিয়াকে প্রতিপক্ষ ভাবলে সেটা আমার দুর্বলতা, অন্য কেউ ভাবলে সেটা তার দুর্বলতা। মিডিয়া যেটা দেখছে তুলে ধরছে। আমি মনে করি না মিডিয়া প্রতিপক্ষ। আপনি খারাপ কাজ না করলে মিডিয়া প্রতিপক্ষ না, পারফর্ম ভাল করলে মিডিয়া আপনার প্রতিপক্ষ না। আপনি ঠিকমতো শৃঙ্খলা মেনে চললে মিডিয়া আপনার প্রতিপক্ষ না। মানুষরাই আমাদের তারকা বানায়। আজকে লিটন বা তামিম, সাকিব যারাই আমাদের উঠে আসার পেছনে মিডিয়ারও অনেক বড় ভূমিকা আছে। ’

Comments