টস জিতে ফিল্ডিংয়ে বাংলাদেশ, বিশ্রামে তামিম

টি-টোয়েন্টি সিরিজও জিতলে প্রথমবারের মতো কোনো দলের বিপক্ষে এক দফায় তিন সংস্করণেই জিতবে বাংলাদেশ। পাশাপাশি, এক সিরিজে তিন সংস্করণ মিলিয়ে প্রথমবারের মতো সবগুলো ম্যাচে জয়ও মিলবে প্রথমবার।
ছবি: বিসিবি

টেস্ট ও ওয়ানডে সিরিজের পর টি-টোয়েন্টি সিরিজের শুরুটাও ভালো হয়েছে বাংলাদেশের। প্রথম ম্যাচে দাপুটে জয়। এবার জিম্বাবুয়েকে হোয়াইটওয়াশ করার লক্ষ্যে সিরিজের দ্বিতীয় ও শেষ টি-টোয়েন্টিতে নামছে টাইগাররা। টস জিতে ফিল্ডিং করার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন বাংলাদেশের অধিনায়ক মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ। টি-টোয়েন্টি তো বটেই, পুরো সিরিজে প্রথমবার আগে ফিল্ডিং করছে স্বাগতিকরা। ম্যাচটি শুরু হবে বাংলাদেশ সময় সন্ধ্যা ৬টায়।

বুধবার (১১ মার্চ) সিরিজের শেষ ম্যাচে কিছুটা পরীক্ষা-নিরীক্ষায় গেছে বাংলাদেশের টিম ম্যানেজমেন্ট। বিশ্রাম দেওয়া হয়েছে নিয়মিত ওপেনার তামিম ইকবালকে। তার জায়গায় একাদশে ফিরেছেন মোহাম্মদ নাঈম শেখ। এছাড়া লেগ স্পিনার আমিনুল ইসলাম বিপ্লবকেও বাদ দেওয়া হয়েছে। তাতে প্রথমবারের মতো টি-টোয়েন্টি ম্যাচে সুযোগ মিলেছে হাসান মাহমুদের। দেশের ৬৮তম ক্রিকেটের হিসেবে এই সংস্করণে অভিষেক হচ্ছে তরুণ ডানহাতি পেসারের। পরিবর্তন আছে আরও। শফিউল ইসলামের জায়গায় নেওয়া হয়েছে আরেক পেসার আল-আমিন হোসেনকে।

পরিবর্তন আছে জিম্বাবুয়ের একাদশেও। ছন্দে থাকা ডোনাল্ড টিরিপানোর জায়গায় একাদশে জায়গা মিলেছে চার্লটন সুমার।

টেস্ট দিয়ে শুরু হওয়া সিরিজে দাপট দেখিয়ে চলেছে বাংলাদেশ। মুমিনুল হকের নেতৃত্বে ইনিংস ব্যবধানে একমাত্র টেস্ট জেতার পর ওয়ানডে সিরিজে জিম্বাবুয়েকে তারা হোয়াইটওয়াশ করে মাশরাফি বিন মর্তুজার অধিনায়কত্বে। সেই সিরিজ দিয়েই নেতৃত্বের ইতি টানেন মাশরাফি।

এবার মাহমুদউল্লাহর অধিনায়কত্বে টি-টোয়েন্টি সিরিজও জিতলে প্রথমবারের মতো কোনো দলের বিপক্ষে পূর্ণাঙ্গ সিরিজে তিন সংস্করণেই জিতবে বাংলাদেশ। পাশাপাশি, এক দফায় তিন সংস্করণ মিলিয়ে সবগুলো ম্যাচে জয়ও মিলবে প্রথমবার।

বাংলাদেশ একাদশ: মোহাম্মদ নাঈম শেখ, লিটন দাস, মেহেদী হাসান, মুশফিকুর রহিম, মাহমুদউল্লাহ রিয়াদ, আফিফ হোসেন, সৌম্য সরকার, মোহাম্মদ সাইফউদ্দিন, হাসান মাহমুদ, আল-আমিন হোসেন ও মোস্তাফিজুর রহমান।

জিম্বাবুয়ে একাদশ: টিনাশে কামুনহুকামুই, ক্রেইগ আরভিন, ব্রেন্ডন টেইলর, সিকান্দার রাজা, শন উইলিয়ামস, ওয়েসলি মাধেভেরে, রিচমন্ড মুটুমবামি, চার্লটন সুমা, টিনোটেন্ডা মুটমবোডজি, ক্রিস্টোফার এমপোফু ও চার্ল মুম্বা।

Comments