অজি পেসারদের তোপে কুপোকাত নিউজিল্যান্ড

ডেভিড ওয়ার্নার ও অ্যারন ফিঞ্চের পর মার্নাস লাবুশেনের হাফসেঞ্চুরিতে আড়াইশ পেরিয়ে গেল অস্ট্রেলিয়া। লক্ষ্য তাড়া করতে নামা নিউজিল্যান্ডের কেউই নিতে পারলেন না দায়িত্ব, ছুঁতে পারলেন না ফিফটি। অজি পেসারদের তোপে দিশেহারা কিউইরা হার মানল বেশ বড় ব্যবধানে।
cricket australia
ছবি: এএফপি

ডেভিড ওয়ার্নার ও অ্যারন ফিঞ্চের পর মার্নাস লাবুশেনের হাফসেঞ্চুরিতে আড়াইশ পেরিয়ে গেল অস্ট্রেলিয়া। লক্ষ্য তাড়া করতে নামা নিউজিল্যান্ডের কেউই নিতে পারলেন না দায়িত্ব, ছুঁতে পারলেন না ফিফটি। অজি পেসারদের তোপে দিশেহারা কিউইরা হার মানল বেশ বড় ব্যবধানে।

শুক্রবার (১৩ মার্চ) সিডনিতে তিন ম্যাচ সিরিজের প্রথম ওয়ানডেতে স্বাগতিক অস্ট্রেলিয়া জিতেছে ৭১ রানে। টস জিতে ব্যাটিংয়ে নেমে ফিঞ্চের দল নির্ধারিত ৫০ ওভারে ৭ উইকেটে ২৫৮ রান তোলে। জবাবে ৫৪ বল বাকি থাকতে ১৮৭ রানে গুটিয়ে যান কেন উইলিয়ামসনরা।

করোনাভাইরাস ছড়িয়ে পড়ার শঙ্কা থাকায় সতর্কতামূলক ব্যবস্থার অংশ হিসেবে এদিন সিডনি ক্রিকেট গ্রাউন্ড ছিল দর্শকশূন্য। নিরাপত্তাকর্মী ও খেলার সঙ্গে সংশ্লিষ্ট আবশ্যিক কর্মী ছাড়া পুরো গ্যালারি ফাঁকা পড়ে ছিল। সিরিজের পরের দুই ম্যাচেও স্টেডিয়ামে দর্শক প্রবেশ নিষিদ্ধ করেছে ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া (সিএ)।

ব্যাটিংয়ে নেমে ওয়ার্নার ও ফিঞ্চের জুটিতে দারুণ শুরু পায় অস্ট্রেলিয়া। তারা ২৪.১ ওভারে যোগ করেন ১২৪ রান। এরপর নিয়মিত বিরতিতে উইকেট হারায় দলটি। কেবল লাবুশেন টানতে পারেন দলকে।

ওয়ার্নার ৮৮ বলে ৬৭ রান করেন। ওপেনিংয়ে তার সঙ্গী অধিনায়ক ফিঞ্চের ব্যাট থেকে আসে ৭৫ বলে ৬০ রান। পাঁচে নামা লাবুশেন ৫২ বলে ৫৬ রান করায় লড়াইয়ের পুঁজি পায় অজিরা। কিউইদের হয়ে ৫১ রানে তিন উইকেট নেন ইশ সোধি। দুটি করে উইকেট দখল করেন লোকি ফার্গুসন ও মিচেল স্যান্টনার।

অজিরা শুরুতে একটি বড় জুটি পেয়েছিল, নিউজিল্যান্ডও তা-ও পায়নি। ষষ্ঠ উইকেটে টম ল্যাথাম ও কলিন ডি গ্র্যান্ডহোমের ৫১ রানের জুটিই সর্বোচ্চ। এর আগে ওপেনিংয়ে নেমে একপ্রান্ত আগলে মার্টিন গাপটিল চেষ্টা করেছিলেন লড়াইয়ের।

গাপটিল ৭৩ বলে করেন ৪০ রান। এ ছাড়া ল্যাথাম ৪০ বলে ৩৮ ও ডি গ্র্যান্ডহোম ২৬ বলে ২৫ রান করেন। অজি তিন পেসার মিলে নেন ৮ উইকেট। প্যাট কামিন্স ২৫ ও ম্যাচসেরা মিচেল মার্শ ২৯ রানে তিনটি করে উইকেট নেন। জশ হ্যাজেলউড ৩৭ রান খরচায় পান দুটি উইকেট। সমানসংখ্যক উইকেট গেছে স্পিনার অ্যাডাম জ্যাম্পার ঝুলিতেও।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

অস্ট্রেলিয়া: ৫০ ওভারে ২৫৮/৭ (ওয়ার্নার ৬৭, ফিঞ্চ ৬০, স্মিথ ১৪, শর্ট ৫, লাবুশেন ৫৬, মার্শ ২৭, কেয়ারি ১, কামিন্স ১৪*, স্টার্ক ৯*; বোল্ট ০/৩৭, ফার্গুসন ২/৬০, নিশাম ০/৪৪, স্যান্টনার ২/৩৪, ডি গ্র্যান্ডহোম ০/২৯, সোধি ৩/৫১)

নিউজিল্যান্ড: ৪১ ওভারে ১৮৭ (গাপটিল ৪০, নিকোলস ১০, উইলিয়ামস ১৯, টেইলর ৪, ল্যাথাম ৩৮, নিশাম ৮, ডি গ্র্যান্ডহোম ২৫, স্যান্টনার ১৪, সোধি ১৪*, ফার্গুসন ১, বোল্ট ৫; স্টার্ক ০/৩৩, হ্যাজেলউড ২/৩৭, কামিন্স ৩/২৫, মার্শ ৩/২৯, জ্যাম্পা ২/৫০, স্মিথ ০/৮)।

ফল: অস্ট্রেলিয়া ৭১ রানে জয়ী।

ম্যান অব দ্য ম্যাচ: মিচেল মার্শ।

Comments

The Daily Star  | English
Digital Health Cards are to be introduced soon in Bangladesh hospitals.

Government plans digital health cards for all citizens

The government has taken an initiative to introduce digital health cards for all citizens, in a bid to eradicate the need of preserving physical prescription and test files by creating a unified digital database.

2h ago