শীর্ষ খবর

করোনায় দেশে আরও একজনের মৃত্যু, নতুন আক্রান্ত ৪

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে বাংলাদেশে আরও একজনের মৃত্যু হয়েছে। তার বয়স ৭৩ বছর। এ নিয়ে দেশে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দুজনে দাঁড়িয়েছে। নতুন করে আক্রান্ত আরও চার জন। মোট আক্রান্ত হয়েছেন ২৪ জন।
স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক। ফাইল ছবি। (সংগৃহীত)

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে বাংলাদেশে আরও একজনের মৃত্যু হয়েছে। তার বয়স ৭৩ বছর। এ নিয়ে দেশে মৃতের সংখ্যা বেড়ে দুজনে দাঁড়িয়েছে। নতুন করে আক্রান্ত হয়েছেন আরও চার জন। এ পর্যন্ত আক্রান্তের সংখ্যা ২৪ জন।

আজ শনিবার দুপুরে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে আয়োজিত করোনা পরিস্থিতি নিয়ে ব্রিফিংয়ে স্বাস্থ্যমন্ত্রী জাহিদ মালেক এ তথ্য জানান।

তিনি বলেন, ‘বাংলাদেশ এখনো অনেক দেশ বিশেষ করে ইউরোপ, ইতালির চেয়ে ভালো আছে। আপনাদের একটি ভালো খবর দিতে চাই, মাত্র একটি জায়গায় সাতটি মেশিন দিয়ে পরীক্ষা করা হলেও এখন আরও আটটি জায়গায় করোনা পরীক্ষা করা হবে। সেগুলোর জন্য মেশিন আনা হচ্ছে। রাতারাতি সেগুলো স্থাপন করে ফেলা সম্ভব না। এগুলো স্থাপন করার জন্য অনেক জিনিসপত্র লাগে। নতুন করে এক শ আইসিইউ স্থাপন করা হচ্ছে। পর্যায়ক্রমে চার শ আইসিইউ স্থাপন করা হবে। হাসপাতালে যারা কর্মরত তাদের আমরা প্রয়োজনীয় জিনিসপত্র দিয়েছি। এখনো যেগুলো গ্যাপ আছে, সেগুলোও দেওয়ার চেষ্টা করছি।’

‘চীন থেকে কিছু বিশেষজ্ঞ ডাক্তার-নার্স আনার চিন্তা করছি আমরা। যারা উহানে কাজ করেছেন। প্রধানমন্ত্রী অনুমোদন দিলে আনা হবে। প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে চীন সরকারের কথা হয়েছে। চীন জানিয়েছে, বাংলাদেশকে তারা করোনা পরীক্ষার কিট ও প্রায় তিন লাখ মাস্ক সরবরাহ করবে। উহান থেকে বিশেষজ্ঞদের বাংলাদেশে নিয়ে আসার বিষয়টি প্রস্তাবনাধীন আছে। এখনো আমরা ফাইনাল করিনি’, বলেন স্বাস্থ্যমন্ত্রী।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী বলেন, ‘এয়ারপোর্ট ও ল্যান্ডপোর্ট দিয়ে অনেকে আসা-যাওয়া করছেন তা অনেকাংশে বন্ধ হয়েছে। বিদেশ থেকে যারা এসেছেন তাদের লিস্ট আমরা মন্ত্রণালয় থেকে নিয়েছি এবং সারা দেশে ছড়িয়ে দিয়েছি। মার্চের আগে যারা এসেছেন তাদের দেশের আসার অনেকে দিন পার হেয়ে গেছে। প্রতিদিন প্রায় ১০ থেকে ১৫ হাজার মানুষ বাংলাদেশে প্রবেশ করছে। সবাইকে কোয়ারেন্টিন করলে স্টেডিয়ামেও জায়গা হবে না। যাদের চিহ্নিত করতে পারছি, তাদের হোম কোয়ারেন্টিনে রাখার চেষ্টা করছি।’

আপনারা জানেন, আমরা বিভিন্ন হাসপাতাল প্রস্তুত রেখেছি। মিরপুরের দিয়াবাড়ী ও উত্তরার তাবলিগ জামাতের ইজতেমা যেখানে হয় সেখানে কোয়ারেন্টিনের ব্যবস্থা করতে সেনাবাহিনীকে দায়িত্ব দিয়েছি, তারা ম্যানেজ করবে। যদি কোয়ারেন্টিনে রাখার দরকার হয়। ইতোমধ্যে সব স্বাস্থ্য সেবা কর্মকর্তা-কর্মচারীদের ছুটি বাতিল করেছি। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু হলে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থার দেওয়ার প্রটোকল মেনে দাফন করা হচ্ছে, বলেন তিনি।

Comments

The Daily Star  | English

Three out of four people still unbanked in Bangladesh

Only 28.3 percent had an account with a bank or NBFI last year, it showed, increasing from 26.2 percent the year prior.

57m ago