চিকিৎসকরা নিজের সুরক্ষায় নিজ খরচে রেইনকোট কিনলেন

সরকারিভাবে ব্যক্তিগত সুরক্ষা সরঞ্জামের (পিপিই) সরবরাহ না করায় নিজেদের সুরক্ষার জন্যে নিজ খরচে রেইনকোট কিনলেন মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত চিকিৎসকেরা।
Komolganj health complex
ছবি: সংগৃহীত

সরকারিভাবে ব্যক্তিগত সুরক্ষা সরঞ্জামের (পিপিই) সরবরাহ না করায় নিজেদের সুরক্ষার জন্যে নিজ খরচে রেইনকোট কিনলেন মৌলভীবাজারের কমলগঞ্জ স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত চিকিৎসকেরা।

তারা রেইনকোট পরে দায়িত্ব পালন করছেন আর নার্সরা দায়িত্ব পালন করছেন কোনো ধরনের সুরক্ষা পোশাক ছাড়াই।

উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে দেখা যায় রেইনকোট পরে বহির্বিভাগে সেবা দিচ্ছেন চার চিকিৎসক। তাদের মুখে মাস্ক ও হাতে গ্লাভস ছিল। তবে নার্সদের পরনে কোনো সুরক্ষা পোশাক ছিল না। অন্যদিকে অন্তর্বিভাগে দায়িত্ব পালনরত চিকিৎসকেরা মুখে মাস্ক ও হাতে গ্লাভস পরে সেবা দিচ্ছেন।

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা মাহবুবুল আলম ভূঁইয়া বলেন, ‘সরকারি নির্দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ব্যক্তিদের জন্য পুরোনো ভবনের মহিলা কেবিনে আইসোলেশন কক্ষ তৈরি করে ২০টি শয্যা প্রস্তুত করা হয়েছে। কিন্তু এখন পর্যন্ত করোনা শনাক্ত করার কোনো কিট উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে আসেনি।’

তিনি আরও বলেন, ‘একই সঙ্গে এখনো হাসপাতালের চিকিৎসক, নার্স ও অন্য স্টাফদের কোনো ব্যক্তিগত সুরক্ষা সরঞ্জাম (পিপিই) সরকারিভাবে সরবরাহ করা হয়নি। ফলে জ্বর-সর্দি-কাশির রোগী এলে চিকিৎসক ও নার্সরা আতঙ্কের মধ্যে পড়ছেন। এমন অবস্থায় সরকারের সুরক্ষা পোশাকের জন্য অপেক্ষা না করে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে কর্মরত আটজন চিকিৎসক নিজ খরচে রেইনকোট কিনেছেন।’

‘সরকারিভাবে সুরক্ষা উপকরণ এখনো আসেনি। তাই নিরাপত্তার জন্য তারা আপাতত রেইনকোট পরে চিকিৎসা দিচ্ছেন,’ যোগ করেন উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা।

Comments

The Daily Star  | English

Students bleed as BCL pounces on them

Not just the students of Dhaka University, students of at least four more universities across the country bled yesterday as they came under attack by Chhatra League men during their anti-quota protests.

1h ago