দেশে আরও একজন করোনায় আক্রান্ত

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত আরও একজনকে শনাক্ত করা হয়েছে। এ নিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৪৯ জনে দাঁড়িয়েছে। এ ছাড়া, গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন আরও চার জন। এখন পর্যন্ত মোট ১৯ জন সুস্থ হয়েছেন।
আইইডিসিআর পরিচালক মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা। ছবি: অনলাইন ব্রিফিং থেকে নেওয়া

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত আরও একজনকে শনাক্ত করা হয়েছে। এ নিয়ে আক্রান্তের সংখ্যা বেড়ে ৪৯ জনে দাঁড়িয়েছে। এ ছাড়া, গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন আরও চার জন। এখন পর্যন্ত মোট ১৯ জন সুস্থ হয়েছেন।

আজ সোমবার দুপুর ১২টার দিকে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরে করোনা পরিস্থিতি নিয়ে অনলাইন ব্রিফিংয়ে এ তথ্য জানিয়েছেন সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠানের (আইইডিসিআর) পরিচালক মীরজাদী সেব্রিনা ফ্লোরা।

তিনি বলেন, ‘আইইডিসিআরের হটলাইনে আমরা গত ২৪ ঘণ্টায় মোট ফোন পেয়েছি ৪ হাজার ৭২৫টি। এর মধ্যে ৩ হাজার ৯৯৭টি কোভিড-১৯ সংক্রান্ত। গত ২৪ ঘণ্টায় নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষা করেছি ১৫৩টি। এগুলোর মধ্যে আরও অন্যান্য যেসব জায়গায় পরীক্ষা সম্প্রসারণ করা হয়েছে, সেসব ল্যাবরেটরিও অন্তর্ভুক্ত রয়েছে। এখন পর্যন্ত সর্বমোট নমুনা পরীক্ষার সংখ্যা ১ হাজার ৩৩৮টি। এর মধ্যে আমরা এ পর্যন্ত করোনার সংক্রমণ নিশ্চিত করেছি ৪৯ জনের মধ্যে। তার মানে গত ২৪ ঘণ্টায় আরও একজনের মধ্যে করোনার সংক্রমণ পাওয়া গেছে।’

‘এ ছাড়া, গত ২৪ ঘণ্টায় আরও চার জন করোনার সংক্রমণ মুক্ত হয়েছেন। সর্বমোট করোনার সংক্রমণ মুক্ত হয়েছেন ১৯ জন। গত ২৪ ঘণ্টায় যে চার জন করোনার সংক্রমণ মুক্ত হয়েছেন, তাদের মধ্যে এক জনের বয়স ৮০ বছর। আরও দুজন আছেন যাদের বয়স ৬০ এর বেশি। চার জনের মধ্যে দুজন বাড়িতে থেকে চিকিৎসা নিয়েছিলেন। গত ২৪ ঘণ্টায় যে চার জন করোনা মুক্ত হয়েছেন, তাদের মধ্যে আমাদের একজন চিকিৎসাকর্মী রয়েছেন। একজন নার্সও সুস্থ হয়ে গেছেন’, যোগ করেন তিনি।

তিনি আরও বলেন, ‘নতুন যে রোগী চিহ্নিত হয়েছেন, তিনি নারী। তার বয়স ২০ এর ঘরে। একটি কেন্দ্রে ৩৬ জন প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে ছিলেন। গতকাল পরীক্ষা-নিরীক্ষা শেষে তাদের মধ্যে সংক্রমণ না থাকায় ৩৬ জনকে কোয়ারেন্টিন থেকে ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। এখন প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিনে আছেন ৩২ জন। এ ছাড়া, গত ২৪ ঘণ্টায় আইসোলেশনে গেছেন আরও ছয় জন। বর্তমানে আইসোলেশনে আছেন ৬২ জন। এ পর্যন্ত সর্বমোট ২৮৪ জন আইসোলেশনে ছিলেন।’

আইইডিসিআর পরিচালক বলেন, ‘আপনারা ঘরে থাকবেন। ঘর থেকে বের হবেন না। কোনো অত্যাবশ্যকীয় কাজে বের হতে হলে অবশ্যই মাস্ক ব্যবহার করে বের হবেন। কোনো উপসর্গ দেখা দিলে হাসপাতালে না এসে আমাদের হটলাইন নাম্বারে যোগাযোগ করুন। আমাদের পরামর্শ সঠিকভাবে মেনে চলুন।’

‘যাদের বয়স ৬০ এর বেশি, তারা আরও বেশি সতর্কতা অবলম্বন করবেন’, যোগ করেন তিনি।

Comments

The Daily Star  | English
Awami League's peace rally

Relatives in UZ Polls: AL chief’s directive for MPs largely unheeded

Ministers’ and Awami League lawmakers’ desire to tighten their grip on grassroots seems to be prevailing over the AL president’s directive to have their family members and relatives withdrawn from the upazila polls. 

19m ago