সর্দি জ্বরের ডাক্তার নেই, হাসপাতালে নিয়ে গেল পুলিশ

চট্টগ্রামের হালিশহরে গত সাত দিন ধরে সর্দি-জ্বরে ভুগছিলেন ১৭ বছর বয়সী আরমান। করোনা আতঙ্কে কোনো চিকিৎসক জ্বরের রোগী দেখতে না চাওয়ায় অনেক হাসপাতালে ঘুরেও চিকিৎসা পাননি।
ছবি: স্টার

চট্টগ্রামের হালিশহরে গত সাত দিন ধরে সর্দি-জ্বরে ভুগছিলেন ১৭ বছর বয়সী আরমান। করোনা আতঙ্কে কোনো চিকিৎসক জ্বরের রোগী দেখতে না চাওয়ায় অনেক হাসপাতালে ঘুরেও চিকিৎসা পাননি।

অবশেষে, সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে পুলিশের সহযোগিতার বিষয়টি জানতে পেরে কোতোয়ালি থানায় যোগাযোগ করে আরমানের পরিবার।

আজ বৃহস্পতিবার পুলিশের উদ্যোগে তাকে চিকিৎসকের কাছে নেওয়া হয়েছে।

কোতোয়ালি থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মোহাম্মদ মহসিন দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, ‘আরমানের বাবা আমাদের সঙ্গে ফোনে যোগাযোগ করেছিলেন। তাদের অসহায় অবস্থার কথা জানার পর আমরা সঙ্গে সঙ্গে এ ব্যাপারে নগর বিশেষ শাখায় যোগাযোগ করি।’

তিনি আরও জানান, সিভিল সার্জন শেখ ফজলে রাব্বির সঙ্গে কথা বলার পর কোতোয়ালি থানার এসআই আজহার তাকে বাসা থেকে করোনা আক্রান্তদের জন্য নির্ধারিত চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে নিয়ে যান।

নগর বিশেষ শাখার উপকমিশনার আব্দুল ওয়ারিশ বলেন, ‘বিষয়টি জানার পর আমরা জেনারেল হাসপাতালে তার চিকিৎসার ব্যবস্থা করি। ছেলেটির করোনার উপসর্গ নেই। ডাক্তার তাকে সর্দি-জ্বরের প্রয়োজনীয় ওষুধ দিয়েছেন। তাকে ১৪ দিন হোম কোয়ারেন্টিনে থাকতে বলা হয়েছে।’

Comments

The Daily Star  | English
Depositors’ money in merged banks will remain completely safe: Bangladesh Bank

Depositors’ money in merged banks will remain completely safe: BB

Accountholders of merged banks will be able to maintain their respective accounts as before

1h ago