দর্শকশূন্য মাঠে খেলা: হিতে বিপরীত হওয়ার শঙ্কায় ওয়াকার

দর্শকবিহীন মাঠে খেলা চালুর পক্ষে মত দিয়েছেন ইংল্যান্ড অধিনায়ক ওয়েন মর্গ্যান, অস্ট্রেলিয়া কোচ জাস্টিন ল্যাঙ্গারসহ আরও অনেক বর্তমান ও সাবেক ক্রিকেটার। বেশ কয়েকটি ক্রিকেট বোর্ডেরও সায় আছে এই পরিকল্পনায়। তবে পাকিস্তানের সাবেক তারকা ওয়াকার ইউনুস শঙ্কা জানিয়ে পোষণ করেছেন ভিন্নমত।
waqar
ছবি: এএফপি

করোনাভাইরাসের প্রভাবে ক্রিকেট অঙ্গনে সৃষ্ট হওয়া অচলাবস্থাকে দীর্ঘ হতে দেওয়া যাবে না। উদ্বেগজনক পরিস্থিতিতে স্থবিরতা কাটিয়ে মানুষকে দিতে হবে আশা। তাই দর্শকবিহীন মাঠে খেলা চালুর পক্ষে মত দিয়েছেন ইংল্যান্ড অধিনায়ক ওয়েন মর্গ্যান, অস্ট্রেলিয়া কোচ জাস্টিন ল্যাঙ্গারসহ আরও অনেক বর্তমান ও সাবেক ক্রিকেটার। বেশ কয়েকটি ক্রিকেট বোর্ডেরও সায় আছে এই পরিকল্পনায়। তবে পাকিস্তানের সাবেক তারকা ওয়াকার ইউনুস শঙ্কা জানিয়ে পোষণ করেছেন ভিন্নমত

বৈশ্বিক মহামারির কারণে সারা বিশ্বে মাঠের ক্রিকেট বন্ধ রয়েছে বেশ কিছুদিন ধরে। বেশ কয়েকটি সিরিজ ও ইভেন্ট স্থগিত হয়ে গেছে। ক্রিকেটের সর্বোচ্চ নিয়ন্ত্রক সংস্থা আইসিসি তাদের সদর দপ্তর বন্ধ করে দিয়েছে। কবে খেলা মাঠে ফিরবে তার কোনো নিশ্চয়তা নেই। আবার, সামনে খেলা শুরু হলেও পূর্বনির্ধারিত সূচি মেলাতে হিমশিম খেতে হবে দলগুলোকে। যত দিন যাচ্ছে, ততই জটিল হচ্ছে পরিস্থিতি। তাই যথাযথ সতর্কতা গ্রহণ করে দর্শকবিহীন মাঠে খেলা শুরু করতে চাইছেন ক্রিকেট সংশ্লিষ্ট অনেকে।

কিন্তু সাবেক পেসার ওয়াকারের মতে, মাঠে ক্রিকেট ফেরানো নিয়ে এই মুহূর্তে কোনো তাড়াহুড়ো করা উচিত হবে না। কারণ, এতে হিতে বিপরীত হওয়ার সম্ভাবনা আছে। সমস্যা কমার চেয়ে বরং বাড়তে পারে। তাই পরিস্থিতি স্বাভাবিক হওয়া পর্যন্ত অপেক্ষা করার পরামর্শ দিয়েছেন তিনি। সোমবার এক ভিডিও কনফারেন্সে গণমাধ্যমের কাছে তিনি বলেছেন, ‘না, আমি এই ভাবনার সঙ্গে একমত না যে, শিগগিরই দর্শকশূন্য মাঠে খেলা চালু করে দিতে হবে। আমি মনে করি, পাঁচ বা ছয় মাস পর এটা করতে হবে। যখন বিশ্বজুড়ে সবকিছু নিয়ন্ত্রণে চলে আসবে এবং জীবন স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসবে, তখন আমরা দর্শকবিহীন মাঠে খেলা শুরু করার চিন্তা করতে পারি।’

প্রতিদিনই বাড়ছে করোনাভাইরাসে ভয়াবহতা। এখন পর্যন্ত, গোটা বিশ্বে আক্রান্ত মানুষের সংখ্যা বেড়ে ১২ লাখ ৮৭ হাজার ১৬৮ জনে পৌঁছেছে। মারা গেছেন ৭০ হাজারের বেশি মানুষ। তাই বর্তমান অবস্থায় বা শিগগিরই ক্রিকেট মাঠে ফেরানোর উদ্যোগের পক্ষপাতী নন ওয়াকার, ‘এই মাসে বা আগামী মাসে না, কোনো একটা পর্যায়ে গিয়ে আমরা বিষয়গুলো নিয়ে ভাবতে পারি। কিন্তু বর্তমান পরিস্থিতি ক্রিকেটীয় কর্মকাণ্ডের জন্য মোটেও আদর্শ নয়।’

Comments

The Daily Star  | English
As things stand, Bangladesh election is all but doomed

244 aspirants to fight for 20 seats in Dhaka

A total of 21 aspirants, the highest of all seats, will contest for the Dhaka-5 constituency, which consists of areas of Demra and a part of Kadamtali

33m ago