করোনা বাধা এড়িয়ে যেভাবে হতে পারে টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ

বিশ্বকাপটি কীভাবে হতে পারে তার একটা বিশদ পরামর্শ দিয়েছেন সাবেক অস্ট্রেলিয়ান তারকা স্পিনার ব্র্যাড হগ।
Brad Hogg

করোনাভাইরাসের থাবায় খেলাধুলার জগত স্থবির। স্থগিত বা বাতিল হয়ে গেছে অনেকগুলো আসর। আরও সাড়ে পাঁচ মাস পরে সূচি থাকলেও অস্ট্রেলিয়ায় হতে যাওয়া টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ নিয়েও আছে অনিশ্চয়তা। তবে বিশ্বকাপটি কীভাবে হতে পারে তার একটা বিশদ পরামর্শ দিয়েছেন সাবেক অস্ট্রেলিয়ান তারকা স্পিনার ব্র্যাড হগ।

আগামী ১৮ অক্টোবর প্রিলিমিনারি রাউন্ড দিয়ে শুরু হওয়ার কথা টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ। ২৪ অক্টোবর সিডনিতে মূল পর্বের খেলা শুরু হওয়ার কথা। সব কিছু চূড়ান্ত হয়ে থাকলেও বিশ্বকাপ যে নিশ্চিতভাবেই সময়মতো হবে, তা বলার এখন আর উপায় নেই।

মহামারির কারণে বিশ্বজুড়ে চলা স্বাস্থ্য সংকটে চরম অনিশ্চয়তায় মানুষের জীবন। তবে বিশ্বকাপ ঠিক সময়ে করতে প্রতিজ্ঞ ক্রিকেট অস্ট্রেলিয়া (সিএ)। আইসিসিও আশাবাদী নির্ধারিত সূচিতে বিশ্বকাপ আয়োজন নিয়ে।

কিন্তু দেশে দেশে লকডাউন পরিস্থিতি ও যোগাযোগ বিচ্ছিন্নতা দেখাচ্ছে শঙ্কা। সাবেক অজি বাঁহাতি স্পিনার হগ তাই নিয়ে এসেছেন বেশ কিছু পরামর্শ।

সামাজিক মাধ্যম টুইটারে এক ভিডিও পোস্ট করে তিনি জানিয়েছেন লকডাউন আরও দীর্ঘস্থায়ী হলেও যেভাবে অস্ট্রেলিয়ায় নেওয়া যাবে ক্রিকেটারদের, ‘পরিকল্পনা অনুযায়ী সময়মতো আমাদের টি-টোয়েন্টি বিশ্বকাপ খেলতে হবে। বেশিরভাগ আন্তর্জাতিক ক্রিকেটার এখন লকডাউনে আছে, এই সময়ে তারা ভ্রমণ করতে পারবে না। আমরা তাদের সবাইকে বিশেষ ব্যবস্থায় মাস দেড়েক আগে অস্ট্রেলিয়ায় নিয়ে আসতে পারি।’

বাণিজ্যিক ফ্লাইট চালু না থাকায় উড়োজাহাজ ভাড়া করার প্রস্তাব তার। তবে আগে সব খেলোয়াড় ও সংশ্লিষ্ট সবার করোনা পরীক্ষাও করতে হবে,  ‘এই মুহূর্তে কোনো বাণিজ্যিক ফ্লাইট চালু নেই। কাজেই আমদের চার্টার্ড ফ্লাইট ব্যবহার করতে হবে। যারা এসব ফ্লাইটে উঠবে, সবার করোনাভাইরাস পরীক্ষা করে নিতে হবে। পরীক্ষায় তারা যদি নেগেটিভ হয়, তাহলে অস্ট্রেলিয়ায় আসতে পারবে।’

এতেই শেষ হচ্ছে না। অস্ট্রেলিয়ায় পৌঁছানোর পর সমস্ত খেলোয়াড় ও সংশ্লিষ্টদের প্রাতিষ্ঠানিক কোয়ারেন্টিন নিশ্চিত করতেও বলছেন তিনি, এরপর নিতে হবে আরেকটি পরীক্ষাও,  ‘অস্ট্রেলিয়ায় আনার পর তাদের ১৫ দিন কোয়ারেন্টিনে রাখতে হবে। এরপর সবাইকে আবার পরীক্ষা করা হবে। তাতেও যদি তাদের পরীক্ষার ফল ভালো আসে। তখন তারা অনুশীলন করতে পারবে এবং বিশ্বকাপে অংশ নিতে পারবে।’

এত কিছু করে বিশ্বকাপের মতো আসর করা যাবে কি-না তা সময়ই বলে দেবে। তবে এর মধ্যে ফাঁকা মাঠে বিশ্বকাপ আয়োজনের আলাপ উঠলেও কয়েকজন ক্রিকেটার বিষয়টিকে অস্বাভাবিক বলে অভিহিত করেছেন।

বুধবার পর্যন্ত নতুন করোনাভাইরাস কোভিড-১৯ এর হানায় সারা বিশ্বে ২০ লাখের বেশি মানুষ আক্রান্ত হয়েছেন। এর মধ্যে মৃতের সংখ্যা ছাড়িয়ে গেছে ১ লাখ ২৬ হাজার। প্রতি মুহূর্তে এই সংখ্যা কেবলই বেড়ে চলেছে।

Comments

The Daily Star  | English

PM visits areas devastated by Cyclone Remal

Prime Minister Sheikh Hasina today visited the most affected areas in the country's south by Cyclone Remal

2h ago