করোনা উপসর্গ নিয়ে ৪ জেলায় ৪ জনের মৃত্যু, নমুনা সংগ্রহ

করোনা উপসর্গ নিয়ে আজ বৃহস্পতিবার পটুয়াখালী, ফরিদপুর, বাগেরহাট ও বগুড়ায় চারজনের মৃত্যু হয়েছে। এ ছাড়াও সাতক্ষীরায় নামাজ পড়তে গিয়ে এক জন মারা গেছেন। করোনাভাইরাস সন্দেহে তাদের সবার নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে।অন্যদিকে, চট্টগ্রামে মারা যাওয়া নোয়াখালীর এক প্রতিবন্ধী নারীর নমুনা পরীক্ষায় করোনা শনাক্ত হয়েছে।
dead_body.jpg
ছবি: স্টার অনলাইন গ্রাফিক্স

করোনা উপসর্গ নিয়ে আজ বৃহস্পতিবার পটুয়াখালী, ফরিদপুর, বাগেরহাট ও বগুড়ায় চার জনের মৃত্যু হয়েছে। করোনাভাইরাস সন্দেহে তাদের সবার নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে।

এ ছাড়াও, সাতক্ষীরায় নামাজ পড়তে গিয়ে এক জন মারা গেছেন এবং চট্টগ্রামে মারা যাওয়া নোয়াখালীর এক প্রতিবন্ধী নারীর নমুনা পরীক্ষায় করোনা শনাক্ত হয়েছে।

পটুয়াখালী

জ্বর, সর্দি, কাশি ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে নিয়ে পটুয়াখালী ২৫০ শয্যা হাসপাতালের আইসোলেশন ইউনিটে চিকিৎসাধীন অবস্থায় এক নারী মারা গেছেন। করোনা সন্দেহে আইইডিসিআরের নির্দেশনা অনুযায়ী তার মরদেহ দাফন সম্পন্ন হয়েছে। জেলা সিভিল সার্জন ডা. জাহাঙ্গীর আলম বিষয়টি নিশ্চিত করেছেন। এ ঘটনায়, সদর উপজেলার বদরপুর ইউনিয়নে তার বাড়িতে পরিবারের সদস্যদের হোম কোয়ারেন্টিনে থাকার নির্দেশনা দেয়া হয়েছে বলে জানান সিভিল সার্জন।

তিনি আরও জানান, গত মঙ্গলবার বিকেলে করোনা উপসর্গ নিয়ে ২৫০ শয্যা বিশিষ্ট হাসপাতালে গেলে তাকে করোনা আইসোলেশন ইউনিটে ভর্তি করা হয় এবং বুধবার তার নমুনা সংগ্রহ করে আইইডিসিআরে পাঠানো হয়।

তার নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে এবং রিপোর্ট আসার পরে পরবর্তী সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে বলে তিনি জানান।

ফরিদপুর

জেলার নগরকান্দা উপজেলায় করোনা উপসর্গ নিয়ে এক নারী মারা গেছেন। উপজেলার চরযশোরদী ইউনিয়নের বানেশ্বরদী গ্রামে সকালে তিনি নিজ বাড়িতে মারা যান তিনি। গত কয়েকদিন ধরে সর্দি, কাশি, জ্বর ও ডায়রিয়ায় ভুগছিলেন ওই নারী।

নগরকান্দা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ফরহাদ হোসেন জানান, খবর পেয়ে একটি মেডিকেল টিম পাঠিয়ে ওই নারী, তার স্বামী ও ছেলের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য ঢাকা পাঠানো হয়েছে। ওই বাড়ির অন্য সদস্যদের হোম কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে বলে জানান উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা জ্যেতি প্রু।

বাগেরহাট

বাগেরহাট সদর হাসপাতালের আইসোলেশনে ভর্তি ৬৫ বছর বয়সী এক বৃদ্ধের মৃত্যু হয়েছে। শ্বাসকষ্ট, হার্ট ও লিভারের সমস্যা নিয়ে আজ দুপুরে হাসপাতালে আসেন সদর উপজেলার বারুইপাড়া গ্রামের রায়পাড়া এলাকার ওই বৃদ্ধ। চিকিৎসকরা তখন তাকে আইসোলেশনে রাখার নির্দেশ দেন। পরে সন্ধ্যা ৬টার দিকে তিনি মারা যান।

বাগেরহাটের সিভিল সার্জন ডা. কে এম হুমায়ুন কবির জানান, দুপুর ২টার দিকে বাগেরহাট সদর হাসপাতালের জরুরি বিভাগে ওই বৃদ্ধকে নিয়ে আসেন তার স্বজনরা। পেট ফাঁপার সঙ্গে তার শ্বাসকষ্টও ছিল।

বগুড়া

বগুড়ায় শ্বাসকষ্ট নিয়ে মোহাম্মদ আলী হাসপাতালের আইসোলেশন ইউনিটে ভর্তি হওয়া ৪২ বছর বয়সী এক ব্যক্তি রাত পৌনে ৯টার দিকে মারা গেছেন। শ্বাসকষ্ট ও ডায়রিয়ার উপসর্গ নিয়ে ওই ব্যক্তি আজ সন্ধ্যায় সেখানে ভর্তি হন।

মোহাম্মদ আলী হাসপাতালের আবাসিক স্বাস্থ্য কর্মকর্তা ডা. শফিক আমিন কাজল জানান, গত চার-পাঁচ দিন ধরে সদর উপজেলার বাসিন্দা ওই ব্যক্তি শ্বাসকষ্ট ও ডায়রিয়ায় ভুগছিলেন। বিকেলে তার শারীরিক অবস্থার অবনতি হলে স্বজনরা সন্ধ্যায় তাকে হাসপাতালে আনেন। রাত ৮টা ৪৫ মিনিটের দিকে তিনি মারা যান।

করোনা পরীক্ষার জন্য এর মধ্যে তার নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে বলে জানান তিনি।

সাতক্ষীরা

আজ দুপুরে নামাজ পড়ার সময় সাতক্ষীরায় ২২ বছর বয়সী এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। সদর উপজেলার কুশখালি আড়িয়াখালি গ্রামে এ ঘটনা ঘটে। মৃতের পরীক্ষার জন্য নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে।

স্থানীয় সূত্রে জানা যায়, ওই যুবক ঢাকার একটি ইট ভাটায় কাজ করতেন। ১৬-১৮ দিন আগে বাড়ি ফিরেছেন। গত ৫-৬ দিন আগে কয়েকবার বমি হওয়ার পর থেকে তিনি একটু অসুস্থ ছিলেন।

সাতক্ষীরা সদর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. আসাদুজ্জামান জানান, দুপুরে বেলাল বাড়ির পাশে আড়িয়াখালি জামে মসজিদে জোহরের নামাজ পড়তে যায়। নামাজ পড়ার সময় সিজদা দিয়ে তিনি আর ওঠেন নি। সেখানেই মারা যান তিনি।

সাতক্ষীরা সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার কল্যাণ কর্মকর্তা ডা. মাহাবুবুর রহমান জানান, পরিবারের বাড়ির লোকজনের সঙ্গে কথা বলে তার করোনার উপসর্গ ছিল বলে মনে হয়নি। তারপর আরও নিশ্চিত হওয়ার জন্য তার নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে।

নমুনা খুলনা পিসিআর ল্যাবে পাঠানো হবে বলে জানান তিনি।

নোয়াখালী

চট্টগ্রামে গত ১৩ এপ্রিল মারা যাওয়া নোয়াখালীর কোম্পানীগঞ্জ উপজেলার প্রতিবন্ধী নারী নমুনা পরীক্ষায় করোনা শনাক্ত হয়েছে। এরপর, মৃত ওই নারীর পরিবারের আরো দুই সদস্যের নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে।

কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মোহাম্মদ সেলিম জানান, তার করোনা শনাক্তের বিষয়টি তিনি চট্টগ্রাম সিভিল সার্জন থেকে নিশ্চিত হয়েছেন। তার সংস্পর্শে আসা বাবা ও ভাইয়ের শরীর থেকে

বৃহস্পতিবার দুপুরে নমুনা সংগ্রহ করা হয়েছে। নমুনা পরীক্ষার জন্য বিআইটিআইডি পাঠানো হয়েছে।

আজ দুপুরে কোম্পানীগঞ্জ উপজেলা নির্বাহী অফিসার ফয়সাল আহমেদ বাড়ীটি মৃত নারীর বাড়ি লকডাউন ঘোষণা করেন।

Comments

The Daily Star  | English

$8b climate fund rolled out for Bangladesh

In a first in Asia, development partners have come together to announce an $8 billion fund to help Bangladesh mitigate and adapt to the effects of climate change.

2h ago