মানিকগঞ্জে আরও ৩ করোনা রোগী শনাক্ত, দূরত্ব না মানায় কাঁচাবাজার লকডাউন

মানিকগঞ্জে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত আরও তিন জনকে শনাক্ত করা হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় ১৩ জনকে শনাক্ত করা হয়েছে।
স্টার অনলাইন গ্রাফিক্স

মানিকগঞ্জে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত আরও তিন জনকে শনাক্ত করা হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় ১৩ জনকে শনাক্ত করা হয়েছে।

শনাক্ত হওয়া তিন জনের মধ্যে একজন নারী ও দুই জন পুরুষ। এদের মধ্যে মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার এক জন, ঘিওরে একজন ও অপরজন সাটুরিয়ায়।

আজ শুক্রবার বিষয়টি দ্য ডেইলি স্টারকে নিশ্চিত করেছেন জেলা সিভিল সার্জন আনোয়ারুল আমিন আখন্দ।

তিনি বলেন, ‘তিন জনই নিজ নিজ বাসায় আইসোলেশনে আছেন। তাদের সংস্পর্শে আসা ব্যক্তিদের কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছে।’

তিনি জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় জেলা থেকে ৩৯ জনের নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকায় পাঠানো হয়েছিল। এর মধ্যে ওই তিন জনের ফল পজিটিভ এসেছে।

সিভিল সার্জন বলেন, ‘জেলায় মোট ১ হাজার ৯১৬ জনকে কোয়ারেন্টিনে রাখা হয়েছিল। এদের মধ্যে বর্তমানে ২৯৭ জন কোয়ারেন্টিনে আছেন। বাকিদের  কোয়ারেন্টিন ১৪ দিনের সময়সীমা শেষ হয়েছে।’

উল্লেখ্য, এখন পর্যন্ত জেলা থেকে ৪১৬ জনের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য ঢাকায় পাঠানো হয়েছিল। এর মধ্যে ১৩ জনের ফল পজিটিভ এসেছে। 

দুটি কাঁচাবাজার লকডাউন

সামাজিক ও শারীরিক দূরত্ব রক্ষা না করায় মানিকগঞ্জের ঘিওর উপজেলার দুটি কাঁচাবাজার লকডাউন করেছে স্থানীয় প্রশাসন। 

আগামী ২৬ এপ্রিল থেকে এই আদেশ কার্যকর করা হবে বলে দ্য ডেইলি স্টারকে জানিয়েছেন ঘিওর উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) আইরনি আক্তার।

তিনি বলেন, ‘করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধে সামাজিক ও শারীরিক দূরত্ব নিশ্চিত করতে মাসখানেক আগে ঘিওর বাজারটি স্থানীয় ডিএন উচ্চ বিদ্যালয় ও বানিয়াজুরী বাজারটি বানিয়াজুরী উচ্চ বিদ্যালয় মাঠে স্থানান্তরিত করা হয়। কিন্তু, স্থানান্তরিত বাজার দুটিতেও সামাজিক ও শারীরিক দূরত্ব রক্ষা হচ্ছিল না। সে কারণে উন্মুক্ত স্থানের বাজার দুটিও লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে।’

‘সামাজিক ও শারীরকি দূরত্ব রক্ষা করা না গেলে সব হাট-বাজারই লকডাউন করা হবে। তবে, নিত্যপ্রয়োজনীয় পণ্যসামগ্রী ক্রয়ের সুবিধার্থে প্রতিটি ইউনিয়নে স্থানীয় কয়েকজন নির্বাচিত ব্যবসায়ীকে ভ্যানগাড়ির মাধ্যমে ভ্রাম্যমাণ বাজারের ব্যবস্থা করতে বলা হয়েছে। এ ব্যাপারে স্থানীয় ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যানদের নির্দেশনা দেওয়া হয়েছে’, যোগ করেন তিনি।

তিনি আরও বলেন, ‘ভ্যানগাড়িতে স্ব স্ব এলাকাতে ভ্রাম্যমাণ বাজারের মাধ্যমে সব ধরনের কাঁচামাল পাওয়া যাবে। তবে, কেউ অতিরিক্ত দামে পণ্যসামগ্রী বিক্রি করলে তার বিরুদ্ধে আইনগত ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

Comments

The Daily Star  | English
MP Anwarul Azim missing in India

AL MP Azim's daughter files abduction case

The daughter of Awami League MP Anwarul Azim Anar, who has been killed in India, filed an abduction case with Sher-e-Bangla Nagar Police Station this evening

27m ago