খেলা

ম্যাচ শুরুর আগেই ম্যারাডোনাকে লাল কার্ড দেখাতে চেয়েছিলেন সেই রেফারি

৩০ বছর পার হতে চলেছে রোমের স্তাদিয়ো অলিম্পিকোতে পশ্চিম জার্মানির কাছে হেরে যায় আর্জেন্টিনা। সে ম্যাচে হারের দায় রেফারি এদগার্দো কোদেসালকে দিয়ে থাকেন অধিনায়ক দিয়াগো ম্যারাডোনাসহ অনেকেই। তবে সে ম্যাচে আর্জেন্টিনার প্রতি সদয় থেকে উল্টো জার্মানির বিপক্ষে সিদ্ধান্ত দিয়ে ছিলেন বলেই জানিয়েছেন এ রেফারি। কারণ খেলা শুরুর আগেই ম্যারাডোনাকে লাল কার্ড দেখাতে পারতেন তিনি। কিন্তু তিনি তা করেননি। এমনকি পরেও পেয়েছিলেন।
ছবি: এএফপি

৩০ বছর পার হতে চলেছে রোমের স্তাদিয়ো অলিম্পিকোতে বিশ্বকাপ ফাইনালে পশ্চিম জার্মানির কাছে হেরে যায় আর্জেন্টিনা। সে ম্যাচে হারের দায় রেফারি এদগার্দো কোদেসালকে দিয়ে থাকেন অধিনায়ক দিয়াগো ম্যারাডোনাসহ অনেকেই। তবে সে ম্যাচে আর্জেন্টিনার প্রতি সদয় থেকে উল্টো জার্মানির বিপক্ষে সিদ্ধান্ত দিয়েছিলেন বলেই জানিয়েছেন সে রেফারি। কারণ খেলা শুরুর আগেই ম্যারাডোনাকে লাল কার্ড দেখাতে পারতেন তিনি। কিন্তু তিনি তা করেননি। এমনকি পরেও সুযোগ পেয়ে করেননি।

১৯৯০ সালের বিশ্বকাপ ফাইনালের সে ম্যাচে টানা দ্বিতীয়বার বিশ্বকাপ জয়ের হাতছানি ছিল ম্যারাডোনার আর্জেন্টিনার। সেবার স্বাগতিক দেশ ছিল ইতালি। সেমি-ফাইনালে টাই-ব্রেকারে তাদেরকে হারিয়েই ফাইনালে ওঠে আর্জেন্টিনা। স্থানীয় সমর্থকদের রোষানল ছিল তাদের উপর। তাছাড়া স্বাগতিকদের কাছাকাছি দেশ হওয়ায় মাঠে জার্মানদের সমর্থন ছিল অনেক বেশি। কিন্তু ব্যাপারটি ভালো লাগেনি ম্যারাডোনার। তাই জাতীয় সঙ্গীত চলাকালীন সময়ে সমর্থক মাঝের আঙ্গুল দেখান তিনি।

আর এ বিষয়টি দেখেও এড়িয়ে গিয়েছেন রেফারি কোদেসাল। লাল কার্ড দেখাতে গিয়েও নিজেকে নিয়ন্ত্রণ করেছেন এ রেফারি। সম্প্রতি উরুগুইয়ান গণমাধ্যম তিরান্দো পারাদেসকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে তিনি বলেছেন, 'চাইলে আমি শুরুতেই তাকে বহিষ্কার করতে পারতাম কারণ সে কখনোই শৃঙ্খলা জিনিসটাই জানতো না। জাতীয় সঙ্গিত চলাকালীন সময়েই পুরো স্টেডিয়ামকে অপমান করার জন্য আমি তাকে খেলা শুরুর আগেই বহিষ্কার করতে পারতাম।’

এমনকি এর পরও ম্যারাডোনাকে বহিষ্কার করার সুযোগ পেয়েছিলেন রেফারি। কিন্তু সেবার হলুদ কার্ড দেখান এ মেক্সিকান, ‘পরে আমি (পেদ্রো) মনজনকে যখন বহিষ্কার করি তখন সে আমাকে বোঝানোর চেষ্টা করে এবং বলে, আমি নাকি ফিফার টাকা খেয়ে ডাকাতি করছি। আমি তখনও তাকে বহিষ্কার করতে পারতাম।'

খেলোয়াড় ম্যারাডোনার প্রতি শ্রদ্ধা থাকলেও ব্যক্তি ম্যারাডোনাকে তার দেখা সবচেয়ে বাজে মানুষ বলেই জানান এ মেক্সিকান রেফারি, 'আমি মাঠে তাকে অসাধারণ কিছু করতে দেখেছি। তার হাঁটু ব্যবহার করে অসাধারণ কাজ করতে দেখেছি। খেলোয়াড় হিসেবে সেই বিশ্বের সেরা। সে দারুণ একজন নেতা ছিল। মাঠে সে তার সবকিছু দিয়ে দিত। খেলোয়াড় হিসেবে তার প্রতি আমার শ্রদ্ধা রয়েছে। তবে মানুষ হিসেবে সে আমার দেখা পৃথিবীর সবচেয়ে খারাপ লোক।'

১৯৯০ সালের সে ম্যাচে আর্জেন্টিনাকে ১-০ গোলে হারিয়ে তৃতীয়বারের মতো বিশ্বকাপ জিতে নেয় জার্মানি। সে ম্যাচ নিয়ে অবশ্য বহু বিতর্ক রয়েছে। অনেকেই ধারণা করেন, সে ম্যাচে রেফারির পক্ষপাতিত্বমূলক আচরণের কারণেই বিশ্বকাপ জিতে জার্মানরা। ম্যাচের শেষ দিকে (৮৫তম মিনিটে) বিতর্কিত পেনাল্টি গোলে হেরে যায় আর্জেন্টিনা। এছাড়া ম্যাচে দুই আর্জেন্টাইন খেলোয়াড়কে লাল কার্ডও দেখানো হয়।

Comments

The Daily Star  | English

Rain drenches Dhaka amid heatwave

The city dwellers got some relief after rain drenched Dhaka amid ongoing heatwave across the country today

27m ago