লক্ষ্মীপুরে শিশুসহ আরও ৩ করোনা রোগী শনাক্ত

লক্ষ্মীপুরে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত আরও তিন জনকে শনাক্ত করা হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় আক্রান্ত ৩৭ জনকে শনাক্ত করা হয়েছে।
Corona_Detect
স্টার অনলাইন গ্রাফিক্স

লক্ষ্মীপুরে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত আরও তিন জনকে শনাক্ত করা হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় আক্রান্ত ৩৭ জনকে শনাক্ত করা হয়েছে।

আজ বুধবার জেলা সিভিল সার্জন ডা. আবদুল গাফফার বিষয়টি দ্য ডেইলি স্টারকে নিশ্চিত করেছেন। তিনি জানান, এদের মধ্যে দুই জন নারী। তাদের বয়স ৩২ ও ৫০। অপরজন ১০ মাস বয়সী শিশু।

কমলনগর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মো. আবু তাহের বলেন, ‘উপজেলার চর লরেন্স ইউনিয়ন এলাকায় ১০ মাস বয়সী এক শিশুকে জ্বর, সর্দি, কাশি নিয়ে গত ২১ এপ্রিল হাসপাতালে নিয়ে আসা হয়। প্রাথমিক চিকিৎসা দিয়ে তার নমুনা সংগ্রহ করে করোনা পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়। গতকাল রাতে তার পরীক্ষার ফলাফল পজিটিভ আসে। বর্তমানে ওই শিশুটি তার মায়ের সঙ্গে হাসপাতাল কোয়ারেন্টিনে রয়েছে। তার শারীরিক অবস্থা উন্নতির দিকে।’

লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. নিজাম উদ্দিন বলেন, ‘আক্রান্ত নারীদের মধ্যে এক জনের বয়স ৫০ ও অপরজনের বয়স ৩২। এদের মধ্যে ৫০ বছর বয়সী নারীর স্বামী গত ১৫ দিন আগে নারায়ণগঞ্জ থেকে লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলায় নিজ বাড়িতে আসেন। ওই ব্যক্তি করোনা উপসর্গ নিয়ে ১০ দিন আগে হাসপাতালে আসেন। তাকে চিকিৎসাসেবা দিয়ে তার নমুনা সংগ্রহ করা হয়। নমুনা পরীক্ষার ফলাফল পজিটিভ আসায় তাকে লক্ষ্মীপুর সদর হাসপাতালে আইসোলেশনে রাখা হয়। এ ঘটনায় তার পরিবারের আরও সাত সদস্যের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠানো হয়। গতকাল রাতে পাওয়া ফলাফলে তার স্ত্রীও করোনা আক্রান্ত বলে জানা যায়। তাকেও এখন হাসপাতালের আইসোলেশনে রাখা হয়েছে।’

তিনি বলেন, ‘অন্যদিক, ৩২ বছর বয়সী নারীর স্বামীও নারায়ণগঞ্জে কাজ করতেন। সেখানে তিনি স্ট্রোক করে গত ১৭ এপ্রিল মারা যান। করোনার তথ্য গোপন রেখে তার মরদেহ লক্ষ্মীপুর সদর উপজেলার লাহারকান্দি ইউনিয়নের বাড়িতে দাফন করা হয়। খবর পেয়ে স্বাস্থ্যকর্মীরা ওই পরিবারের আট সদস্যের নমুনা সংগ্রহ করে পরীক্ষার জন্য পাঠায়। গতকাল রাতে আসা ফলাফলে ওই নারী করোনা আক্রান্ত বলে জানা যায়। তাকে হাসপাতালে আইসোলেশনে রাখা হয়েছে। এ ঘটনায় ওই নারীর বাড়িটি লকডাউন করা হয়েছে। ওই বাড়িতে ২০ জন সদস্য রয়েছে।’

জেলা সিভিল সার্জন ডা. আবদুল গাফফার বলেন, ‘আক্রান্ত রোগীদের হাসপাতালের আইসোলেশনে রাখা হয়েছে। জেলায় শনাক্ত রোগীর সংখ্যা মোট ৩৭। এদের মধ্যে রামগঞ্জে ১৬ জন, সদর উপজেলায় ১২ জন, কমলনগরে পাঁচ জন ও রামগতিতে চার জন রয়েছেন। জেলায় একমাত্র রায়পুর উপজেলায় এখনো কোনো করোনা রোগী শনাক্ত হয়নি।’

Comments

The Daily Star  | English

Change Maker: A carpenter’s literary paradise

Right in the heart of Jhalakathi lies a library stocked with over 8,000 books of various genres -- history, culture, poetry, and more.

2h ago