‘করোনা প্রতিরোধে’ মালয়েশিয়ায় অবৈধ শ্রমিক ধরপাকড়

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধের প্রচেষ্টার অংশ হিসেবে মালয়েশিয়ায় অবৈধ অভিবাসী ও শরণার্থীদের আটক করা হচ্ছে।
ছবি: রয়টার্স

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ রোধের প্রচেষ্টার অংশ হিসেবে মালয়েশিয়ায় অবৈধ অভিবাসী ও শরণার্থীদের আটক করা হচ্ছে।

আন্তর্জাতিক বার্তা সংস্থা রয়টার্স জানায়, গত শুক্রবার দেশটির রাজধানী কুয়ালালামপুর থেকে ৫৮৬ জনকে আটক করেছে পুলিশ।

দেশটির পুলিশ বলছে, অবৈধ অভিবাসীরা যাতে এই করোনা সংকটের সময় এক জায়গা থেকে অন্য জায়গায় যেতে না পারে সে জন্যই এই অভিযান পরিচালনা করা হচ্ছে। এতে করোনাভাইরাসের সংক্রমণ প্রতিরোধ সম্ভব বলেও মনে করেন তারা।

মানবাধিকার সংস্থাগুলো জানিয়েছে, আটকদের মধ্যে শিশু-কিশোর ও মিয়ানমার থেকে আসা রোহিঙ্গা শরণার্থীরা রয়েছেন।

জাতিসংঘ এক বিবৃতিতে মালয়েশিয়ায় অভিবাসী আটক বন্ধ এবং সব শিশু-কিশোর ও তাদের অভিভাবকদের মুক্তির আহ্বান জানিয়েছে। কারাগারে অতিরিক্ত মানুষের কারণে করোনার সংক্রমণের ঝুঁকি অনেক বেড়ে যাবে বলেও সতর্ক করেছে সংস্থাটি।

এছাড়াও মালয়েশিয়া সরকারের এই অভিযানের ফলে এই অবৈধ অভিবাসীরা বিভিন্ন স্থানে লুকিয়ে থাকতে বাধ্য হবে ও করোনায় আক্রান্ত হলেও আটকের ভয়ে চিকিৎসা নেবে না বলে সর্তক করেছে জাতিসংঘ।

অন্যদিকে, মালয়েশিয়ার নিরাপত্তা মন্ত্রী ইসমাইল সাবরি ইয়াকুব বলেন, ‘যাদেরকে আটক করা হয়েছে তাদের সবার কোভিড-১৯ নেগেটিভ। এদেরকে পরবর্তী ব্যবস্থার জন্য ইমিগ্রেশনের আটককেন্দ্রে পাঠানো হবে। আইন অনুযায়ী এদের বিরুদ্ধে ব্যবস্থা নেওয়া হবে।’

Comments

The Daily Star  | English

Dhaka footpaths, a money-spinner for extortionists

On the footpath next to the General Post Office in the capital, Sohel Howlader sells children’s clothes from a small table.

7h ago