টাঙ্গাইলে স্বাস্থ্যকর্মীসহ আরও ৫ জনের করোনা শনাক্ত

টাঙ্গাইলে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত আরও পাঁচ জনকে শনাক্ত করা হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে ৩২ জনে দাঁড়িয়েছে।
টাঙ্গাইল
স্টার অনলাইন গ্রাফিক্স

টাঙ্গাইলে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত আরও পাঁচ জনকে শনাক্ত করা হয়েছে। এ নিয়ে জেলায় করোনা আক্রান্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে ৩২ জনে দাঁড়িয়েছে।

আজ মঙ্গলবার দুপুরে টাঙ্গাইলের সিভিল সার্জন ডা. মো. ওয়াহিদুজ্জামান বিষয়টি দ্য ডেইলি স্টারকে নিশ্চিত করেছেন। 

তিনি জানান, পাঁচ জনের মধ্যে দেলদুয়ার উপজেলায় তিন জন ও মির্জাপুরে দুই জন। দেলদুয়ার আক্রান্তরা হচ্ছেন— আটিয়া ইউনিয়নের চালা আটিয়া গ্রামের স্বামী-স্ত্রী ও পাথরাইল ইউনিয়নের চীনা খোলা গ্রামের একজন। অন্যদিকে, মির্জাপুর উপজেলার শনাক্তদের মধ্যে একজন (৩৩) মহেড়া ইউনিয়নের স্বল্প মহেড়া গ্রামের বাসিন্দা। তিনি একটি কমিউনিটি ক্লিনিকের স্বাস্থ্যকর্মী হিসেবে কর্মরত। অপরজন আজগানা ইউনিয়নের তেলিনা গ্রামের ৪২ বছর বয়সী দিনমজুর।

দেলদুয়ার উপজেলা নির্বাহী কর্মকর্তা (ইউএনও) মাহমুদা আক্তার জানান, আক্রান্তদের আশেপাশের ৫-৭টি বাড়ি লকডাউন ঘোষণা করা হয়েছে। 

উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা জানান, লকডাউনের আওতাভুক্ত সবার নমুনা সংগ্রহ করা হবে। এ ছাড়া, আক্রান্তদের কারো শরীরে করোনার উপসর্গ ছিল না। তারা ঢাকা থেকে আসায় তাদের নমুনা সংগ্রহ করা হয়।

মির্জাপুরের ইউএনও আবদুল মালেক বলেন, ‘আক্রান্তদের স্বাস্থ্যের বিষয়ে সরেজমিনে খোঁজ নিয়ে ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তাদের সঙ্গে কথা বলে চিকিৎসা ব্যবস্থাসহ আশপাশের বাড়ি লকডাউনের বিষয়ে সিদ্ধান্ত নেওয়া হবে।’

সিভিল সার্জন কার্যালয় সূত্রে জানা যায়, গতকাল জেলা খেকে মোট ৫৩ জনের নমুনা সংগ্রহ করে ঢাকায় পাঠানো হয়। আজ সকালে ঢাকা থেকে পাঁচ জনের আক্রান্তের বিষয়টি জানানো হয়। করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত জেলার দুই জন ঢাকায় মারা গেছেন। এ ছাড়া, সুস্থ হয়েছে সাত জন।

Comments

The Daily Star  | English

Yunus’ bail extended in labour law violation case

The Labour Appellate Tribunal in Dhaka extended the bail of Nobel Laureate Professor Muhammad Yunus in a case filed over violation of labour law

1h ago