সুন্দরবনে হরিণের মাংস-ফাঁদসহ ৩ শিকারি আটক, ২২ হরিণ অবমুক্ত

সুন্দরবন থেকে ৩০ কেজি হরিণের মাংস, হরিণ শিকারের ফাঁদ ও ট্রলারসহ তিন শিকারিকে আটক করেছে বনবিভাগ। আজ মঙ্গলবার সকালে পূর্ব সুন্দরবনের শরণখোলা রেঞ্জের টিয়ারচর এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়।
ফাইল ফটো স্টার

সুন্দরবন থেকে ৩০ কেজি হরিণের মাংস, হরিণ শিকারের ফাঁদ ও ট্রলারসহ তিন শিকারিকে আটক করেছে বনবিভাগ। আজ মঙ্গলবার সকালে পূর্ব সুন্দরবনের শরণখোলা রেঞ্জের টিয়ারচর এলাকা থেকে তাদের আটক করা হয়।

পূর্ব সুন্দরবন বিভাগের বিভাগীয় বন কর্মকর্তা মোহাম্মাদ বেলায়েত হোসেন এসব তথ্য নিশ্চিক করেন। তিনি বলেন, শিকারিদের পাতা ফাঁদে আটকা পড়া ২২টি জীবিত হরিণ বনে অবমুক্ত করা হয়েছে।  

আটককৃতরা হলেন, বরগুনা জেলার পাথরঘাটার আবুল খাঁ (৪২) ও সঞ্জয় মিস্ত্রী (৩২) ও খুলনা জেলার দাকোপ উপজেলার আসাদুল শেখ (২৫)। তারা চোরা শিকারি মালেক গোমস্তার দলের সদস্য বলে জানিয়েছে বন বিভাগ।

বেলায়েত হোসেন বলেন, সুন্দরবন পূর্ব বিভাগের শরণখোলা রেঞ্জের কোকিলমনি এলাকায় একদল চোরা শিকারি ফাঁদ পেতে হরিণ শিকার করছে, এমন সংবাদের ভিত্তিতে আমরা সেখানে অভিযান চালাই। বনরক্ষীদের উপস্থিতি টের পেয়ে শিকারিরা পালানোর চেষ্টা করলে ধাওয়া করে তিন জনকে ধরে ফেলে বনরক্ষীরা। এসময় তাদের সাথে থাকা কয়েকজন পালিয়ে যায়। পরে তাদের দুটি ট্রলার ও নৌকায় তল্লাশি চালিয়ে হরিণের মাংস ও ৭০০ ফুট ফাঁদ জব্দ করা হয়। উদ্ধার করা হয় ২২টি হরিণ।  

তিনি আরও বলেন, পালিয়ে যাওয়াদের মধ্যে বনবিভাগের শীর্ষ তালিকাভুক্ত চোরা শিকারি মালেক গোমস্তাও ছিলেন। তার বিরুদ্ধে ৪-৫টি মামলা রয়েছে। তাকে ধরতে বনবিভাগ চেষ্টা করছে। এই ঘটনায় বন্যপ্রাণী সংরক্ষণ আইনে মামলার প্রস্তুতি চলছে বলেও জানান তিনি।

Comments

The Daily Star  | English

Raids on hospitals countrywide from Feb 27: health minister

There will be zero tolerance for child deaths due to hospital authorities' negligence, he says

51m ago