পঞ্চগড়ের কারাবন্দীর রংপুরে করোনা শনাক্ত, কারা ওয়ার্ড লকডাউন

পঞ্চগড় জেলা কারাগারে বিভিন্ন মামলায় বিচারাধীন ৫০ বছর বয়সী এক বন্দীর নমুনা পরীক্ষায় করোনা শনাক্ত হয়েছে।
পঞ্চগড় জেলা কারাগার। ছবি: সংগৃহীত

পঞ্চগড় জেলা কারাগারে বিভিন্ন মামলায় বিচারাধীন ৫০ বছর বয়সী এক বন্দীর নমুনা পরীক্ষায় করোনা শনাক্ত হয়েছে।

গতকাল মঙ্গলবার সন্ধ্যায় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ওই বন্দীর করোনা পরীক্ষার ফল পজিটিভ আসে।

এরপরই কারাগারের যে ওয়ার্ডে তিনি ছিলেন সেটি লকডাউন করে দেওয়া হয়েছে বলে জানিয়েছেন কারাগারের জেলার মো. শফিকুল আলম।

তিনি জানান, ওই ওয়ার্ডে থাকা ৫২ জন বন্দীকে বিশেষ নজরদারিতে রাখা হয়েছে এবং স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলার পরামর্শ দেওয়া হয়েছে।

বর্তমানে পঞ্চগড় জেলা কারাগারে ২২৯ জন বন্দী রয়েছেন বলেও জানান তিনি।

এদিকে, বন্দির সংস্পর্শে আসা জেলা কারাগারের চার রক্ষী, জেলা পুলিশের দুই সদস্য, পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালের এক নার্স ও এক ওয়ার্ডবয় এবং অ্যাম্বুলেন্স সংশ্লিষ্ট দুজনকে হোম কোয়ারেন্টিনে পাঠানো হয়েছে।

করোনা আক্রান্ত ওই বন্দী ঠাকুরগাঁও সদর উপজেলার গড়েয়া ইউনিয়নের বাসিন্দা।

পঞ্চগড় জেলা কারাগার সূত্রে জানা যায়, অ্যাজমা রোগে ভুগছিলেন ওই বন্দী। গত ১ মে রাতে তার শ্বাসকষ্ট বেড়ে গেলে তাকে পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালে ভর্তি করা হয়। সেখানে অবস্থার অবনতি হলে রাত সাড়ে ৩টার দিকে পুলিশ প্রহরায় রংপুর মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে পাঠানো হয়।

গত ৩ এপ্রিল করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা সংগ্রহ করে ল্যাবে পাঠায় হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। গতকাল পরীক্ষার ফলে করোনা পজিটিভ আসে তার। 

পঞ্চগড় আধুনিক সদর হাসপাতালের আবাসিক চিকিৎসা কর্মকর্তা (আরএমও) মো. সিরাজউদ্দৌলা পলিন বলেন, ওই রোগীর করোনা পজিটিভ জানতে পেরে আমরা জরুরি বিভাগ ও মেডিসিন ওয়ার্ডটি জীবাণুনাশক দিয়ে পরিস্কার করেছি। এছাড়া মেডিসিন ওয়ার্ডে কর্তব্যরত একজন নার্স ও একজন ওয়ার্ডবয়কে হোম কোয়ারেন্টিনে পাঠানো হয়েছে।

ওই বন্দীকে কারাগার থেকে হাসপাতালে আনা এবং চিকিৎসা ব্যবস্থায় সংস্পর্শে আসা প্রত্যেকের নমুনা সংগ্রহ করে করোনা পরীক্ষার জন্য পাঠানো হবে বলে জানান তিনি।

 

Comments

The Daily Star  | English

How Ekushey was commemorated during the Pakistan period

The Language Movement began in the immediate aftermath of the establishment of Pakistan, spurred by the demands of student organisations in the then East Pakistan. It was a crucial component of a broader set of demands addressing the realities of East Pakistan.

14h ago