‘টি-টোয়েন্টি খেলাটা ওয়েস্ট ইন্ডিজের জন্য ডিজাইন করে বানানো’

সম্প্রতি প্রকাশিত টি-টোয়েন্টি র‍্যাঙ্কিংয়ে বাংলাদেশের নিচে নয়ে নেমে গেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। তবে এসব র‍্যাঙ্কিং গুরুত্ব দিচ্ছেন না ডোয়াইন ব্রাভো। তার মতে সর্বশেষ বিশ্বকাপ জেতা দলটির চেয়েও তাদের এবারের টি-টোয়েন্টি দল বেশি শক্তিশালী। সেটা এতটাই যে ব্রাভোকেও ব্যাট করতে হয় ৯ নম্বরে!
dj bravo
ফাইল ছবি

সম্প্রতি প্রকাশিত টি-টোয়েন্টি র‍্যাঙ্কিংয়ে বাংলাদেশের নিচে নয়ে নেমে গেছে ওয়েস্ট ইন্ডিজ। তবে এসব র‍্যাঙ্কিং গুরুত্ব দিচ্ছেন না ডোয়াইন ব্রাভো। তার মতে সর্বশেষ বিশ্বকাপ জেতা দলটির চেয়েও তাদের এবারের টি-টোয়েন্টি দল বেশি শক্তিশালী। সেটা এতটাই যে ব্রাভোকেও ব্যাট করতে হয় ৯ নম্বরে!

আন্তর্জাতিক ক্রিকেট থেকে অবসর নিয়েও গত ডিসেম্বরে আবার ফিরে আসেন অলরাউন্ডার ব্রাভো।

ক্রিকেট ওয়েবপোর্টার ইএসপিএন ক্রিকইনফোকে দেওয়া এক সাক্ষাতকারে ব্রাভো আক্ষেপ করেন, দুটো বিশ্বকাপ জেতার পরও তাদের শ্রেষ্ঠ না বলে এখনো বলা হয় ডার্গ হর্স,  ‘একটা খুব অস্বস্তিকর। (ওয়েস্ট ইন্ডিজকে আন্ডাররেট করা)। ওয়েস্ট ইন্ডিজ সব সময়ের শ্রেষ্ঠ কিছু টি-টোয়েন্টি খেলোয়াড় বানিয়েছে , এই খেলাটা ওয়েস্ট ইন্ডিজের খেলোয়াড়দের জন্য ডিজাইন করে বানানো। একমাত্র দল যারা দুটি বিশ্বকাপ জিতেছে টি-টোয়েন্টিতে।’

‘কিন্তু ওয়েস্ট ইন্ডিজকে সব সময় ডার্ক হর্স বলা হয়, এটা উদ্ভট ব্যাপার। ক্রিস গেইল এই খেলাটার শ্রেষ্ঠ যদিও কেউ কেউ এটা মানতে চায় না। আমি বলব গেইলের মতো ডমিনেট করে খেলা একজন আর কোথাও আপনি পাবেন না।’

কার্যকর মিডিয়াম পেস বোলিং, ব্যাটিংয়ে তুলতে পারেন ঝড়। টি-টোয়েন্টিতে ব্রাভো বরাবরই আকর্ষণীয় প্যাকেজ। অথচ ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলের ব্যাটিং অর্ডারে তাকে নাকি রাখা হয়েছিল ৯ নম্বরে। নিজের এই উদাহরণ দিয়েও ক্যারিবিয়ান দলের শক্তির গভীরতা বুঝিয়েছেন তিনি, ‘গত শ্রীলঙ্কা সফরে কোচ (ফিল সিমন্স) আমাদের ব্যাটিং অর্ডার দেখাচ্ছিলেন। আমার নাম দেখলাম ৯ নম্বরে। তখন আমি সবাইকে বললাম, “কোন টি-টোয়েন্টি দলেই (ফ্র্যাঞ্চাইজি) আমি নয়ে খেলিনি।”

এটা দেখেই ব্রাভোর মনে হয়েছে তারা কতটা শক্তিশালী, তখনই সবাইকে বলেছি, আমাদের এই দলটা গত বিশ্বকাপে চ্যাম্পিয়ন দলের চাইতেও ভালো। ব্যাটিং অর্ডারে ১০ নম্বরেও ব্যাটসম্যান আছে আমাদের। এটা ফাজলামো না।’

সুনিল নারাইনের উদাহরণ টেনে ব্রাভো প্রতিপক্ষ যেন দিলেন প্রচ্ছন্ন হুমকিও, ‘ভেবে দেখেন, নারাইনকে যদি পাওয়া যায় তাহলে তাকে নামতে হবে ১০ বা ১১ নম্বরে। টি-টোয়েন্টি লিগগুলোতে যে কিনা ওপেন করে।’

প্রতিপক্ষের বোলারদেরও ওয়েস্ট ইন্ডিজের বিপক্ষে কাজটা কত কঠিন তার একটা বর্ণনা দিয়েছেন ৩৬ পেরুনো এই অলরাউন্ডার,  ‘আপনি ওয়েস্ট ইন্ডিজ দলের শক্তির কথা ভাবুন। বোলার হিসেবে আপনি লুইসকে আউট করবেন, হেটমায়ার আসবে। হেটমায়ারকে আউট করলে পুরান আসবে। সিমন্সকে আউট করলে রাসেল আসবে। রাসেলকে আউট করলে পোলার্ড আসবে। পোলার্ডকে ফেরালে রোবম্যান পাওয়েল আসবে। এভাবে চলতে চলতে আপনি চ্যাম্পিয়ন ডিজে ব্রাভোকে পাবেন।’

 

 

 

 

 

Comments

The Daily Star  | English

Death came draped in smoke

Around 11:30, there were murmurs of one death. By then, the fire, which had begun at 9:50, had been burning for over an hour.

2h ago