করোনা থেকে সুস্থ হয়ে উঠলেন কোরিয়ার শতবর্ষী এক নারী

করোনাভাইরাসের সঙ্গে লড়াইয়ে জয়ী হয়েছেন দক্ষিণ কোরিয়ার শতবর্ষী এক নারী। চোই নামে পরিচিত ১০৪ বছর বয়সী ওই নারী দেশটির দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় প্রদেশ দক্ষিণ গিয়ংসাংয়ের বাসিন্দা।
চোই নামে পরিচিত ১০৪ বছর বয়সী ওই নারী। ছবি: সংগৃহীত

করোনাভাইরাসের সঙ্গে লড়াইয়ে জয়ী হয়েছেন দক্ষিণ কোরিয়ার শতবর্ষী এক নারী। চোই নামে পরিচিত ১০৪ বছর বয়সী ওই নারী দেশটির দক্ষিণ-পূর্বাঞ্চলীয় প্রদেশ দক্ষিণ গিয়ংসাংয়ের বাসিন্দা।

দ্য কোরিয়া হ্যারল্ড জানায়, টানা ৬৭ দিন হাসপাতালে চিকিৎসাধীন থাকার পর সুস্থ হয়ে গতকাল শুক্রবার তিনি বাড়ি ফিরেছেন।

২০১২ সাল থেকে দক্ষিণ গিয়ংসাংয়ের একটি সিনিয়র কেয়ার সেন্টারে থাকতেন চোই। গত ৮ মার্চ তার দেহে করোনা শনাক্ত হয়। এর দুই দিন পরেই তিনি পোহাং হাসপাতালে ভর্তি হন।

পোহাং মেডিকেল সেন্টারের কর্তৃপক্ষ জানায়, প্রাথমিকভাবে তার কাশি ও গলাব্যথার মতো উপসর্গ ছিল। এপ্রিলের শুরুতে পেটের সমস্যাসহ নানা জটিলতা দেখা দিতে থাকে। তার রক্তচাপ কমে যায়, রক্তের শ্বেত রক্তকণিকা বৃদ্ধি ও সারাদেহে যন্ত্রণা হতে থাকে। সে সময় ঘন ঘন জ্ঞান হারান তিনি।

তবে, চিকিৎসার মাধ্যমে তার শারীরিক অবস্থার উন্নতি হয়। চিকিৎসক ও নার্সরা ২৪ ঘণ্টাই তার সেবায় নিয়োজিত ছিলেন। ২৬ মার্চ থেকে ১৪ মে পর্যন্ত মোট ১২ বার তার করোনা পরীক্ষা করা হয়েছে। শুরুতে আটবার ফলাফল পজিটিভ আসার পর অবশেষে নবমবারের পরীক্ষায় ফলাফল নেগেটিভ আসে। কিন্তু, দশমবারের পরীক্ষায় আবারও করোনা পজিটিভ দেখায়।

নানা জটিলতা শেষে, গত ১৩ ও ১৪ মে পরপর দুই বারের পরীক্ষায় তার করোনা নেগেটিভ আসে। শারীরিকভাবেও সুস্থ হয়ে ওঠায় হাসপাতাল ছেড়ে যান তিনি।

গতকাল হুইলচেয়ার বসে হাসপাতাল ছেড়ে যাওয়ার সময় হাত নেড়ে হাসপাতালকর্মী ও সংবাদকর্মীদের শুভেচ্ছা ও বিদায় জানান শতবর্ষী ওই নারী।

Comments

The Daily Star  | English

Medium of education should be mother language: PM

Prime Minister Sheikh Hasina today said that the medium for education in educational institutions should be everyone's mother tongue.

2h ago