ওসমানী মেডিকেলের ৫ নার্সসহ সিলেটে আরও ১৪ জনের করোনা শনাক্ত

এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) কর্মরত পাঁচ জন নার্সসহ সিলেট বিভাগে নতুন আরও ১৪ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।
Corona test logo
প্রতীকী ছবি। সংগৃহীত

এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) কর্মরত পাঁচ জন নার্সসহ সিলেট বিভাগে নতুন আরও ১৪ জনের করোনা শনাক্ত হয়েছে।

গতকাল এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজের পিসিআর ল্যাবে পরীক্ষা শেষে সিলেট জেলার ১৩ জন এবং ময়মনসিংহ মেডিকেল কলেজের পিসিআর ল্যাবে পরীক্ষায় সুনামগঞ্জ জেলার একজনের করোনা শনাক্ত হয়েছে বলে আজ শনিবার সকালে নিশ্চিত করেছেন সিলেট স্বাস্থ্য বিভাগের সহকারী পরিচালক (রোগ নিয়ন্ত্রণ) ডা. আনিসুর রহমান।

ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের কর্মরত নার্সদের করোনা আক্রান্ত হওয়ার বিষয়ে হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. হিমাংশু লাল রায় বলেন, ‘আমরা রুটিন চেকআপের অংশ হিসেবে কিছুদিন পরপর ডাক্তার-নার্স-স্টাফদের নমুনা পরীক্ষার জন্য ল্যাবে পাঠাই। এর মধ্যে শুক্রবার রাতের রিপোর্টে আইসিইউ’র পাঁচ জন নার্সের পজিটিভ রিপোর্ট এসেছে।’

ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে সাধারণ রোগীর চিকিৎসা কার্যক্রম সচল রাখতে তিন জন রোগীকে সিলেট শহীদ শামসুদ্দিন আহমদ হাসপাতালের আইসোলেশনে রেখে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে। বাকি দুজন নিজ বাড়িতে আইসোলেশনে আছেন।

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের দেওয়া তথ্যমতে এখন পর্যন্ত ওসমানী মেডিকেলের আইসিইউতে কোনো করোনা পজিটিভ রোগী চিকিৎসা নিয়েছেন বলে নিশ্চিত হওয়া যায়নি।

আইসিইউতে কর্মরত একজন চিকিৎসক দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, ‘গত ১২ মে আইসিইউতে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান হাসপাতালের সার্জারি বিভাগের সাবেক প্রধান ডা. মীর মাহবুবুল আলম। চারবার পরীক্ষা করার পরও তার রিপোর্ট নেগেটিভ এসেছিল। তবে তার মধ্যে করোনার সবগুলো লক্ষণই ছিল। এতবার রিপোর্ট নেগেটিভ আসার পরও তার দাফনও করা হয় সংক্রমণ বিধি মেনে। তাই বিষয়টি এখন প্রশ্নবিদ্ধ।’

এ বিষয়ে হাসপাতালের উপ-পরিচালক ডা. হিমাংশু লাল রায় বলেন, ‘আমরা এমন একটা সময়ের ভিতর দিয়ে যাচ্ছি যে, কে আক্রান্ত আর কে না তা নিশ্চিত করে বলা কঠিন। আমরা সর্ব্বোচ্চ চেষ্টা করছি প্রতিকূল অবস্থার মধ্যে স্বাস্থ্য সেবা চালু রাখতে।’

হাসপাতালের পাঁচ জন নার্স আক্রান্ত হলেও আইসিইউ সেবা চালু থাকবে জানিয়ে তিনি বলেন, ‘আমরা নিয়মিতভাবে আইসিইউ জীবাণুমুক্ত করি, তাই এ সেবা বন্ধ করা হবে না। তবে ওই নার্সদের সংস্পর্শে যারা এসেছেন তাদের সবাইকে কোয়ারেন্টিনে রেখে নমুনা পরীক্ষা করা হবে।’

সিলেট বিভাগে এখন পর্যন্ত করোনায় আক্রান্ত শনাক্ত হয়েছেন ৩৫৯ জন। এর মধ্যে সিলেট জেলায় ১১৭ জন, হবিগঞ্জে ১১৮ জন, সুনামগঞ্জে ৬৭ জন এবং মৌলভীবাজারে ৫৭ জন রয়েছেন। আক্রান্তদের মধ্যে এখন পর্যন্ত ছয় জনের মৃত্যু হয়েছে এবং ৬৯ জন সুস্থ হয়েছেন।

Comments

The Daily Star  | English
Inflation edges up despite monetary tightening. Why?

Inflation edges up despite monetary tightening. Why?

Bangladesh's annual average inflation crept up to 9.59% last month, way above the central bank's revised target of 7.5% for the financial year ending in June

2h ago