বুন্ডেসলিগার ফুটবলাররা পরীক্ষাগারের ইঁদুর নন: রয়িস

ইঁদুর এবং মানুষের শারীরিক প্রক্রিয়াগুলো প্রায় একই রকমভাবে পরিচালিত হয়ে থাকে। তাই পরীক্ষাগারে পরীক্ষা চালানোর জন্য ইঁদুরকে সবচেয়ে বেশি ব্যবহার করা হয়।
marco reus
ছবি: এএফপি

ইঁদুর এবং মানুষের শারীরিক প্রক্রিয়াগুলো প্রায় একই রকমভাবে পরিচালিত হয়ে থাকে। তাই পরীক্ষাগারে পরীক্ষা চালানোর জন্য ইঁদুরকে সবচেয়ে বেশি ব্যবহার করা হয়। তবে বুন্ডেসলিগার ফুটবলাররা এমন কোনো পরিকল্পনার অংশ নয় বলে মনে করছেন জার্মানির ফরোয়ার্ড মার্কো রয়িস।

ঘটনা খোলাসা করা যাক। ইউরোপের শীর্ষ লিগগুলোর মধ্যে সবার আগে মাঠে গড়াচ্ছে বুন্ডেসলিগা। করোনাভাইরাসের কারণে প্রায় দুই মাস স্থগিত থাকার পর ফের শুরু হচ্ছে জার্মানির পেশাদার ফুটবলের সর্বোচ্চ আসর। প্রতিযোগিতা আবার চালু হওয়ার প্রথম দিনে শনিবার মাঠে নামছে রয়িসের দল বরুসিয়া ডর্টমুন্ড। রিভারডার্বিতে তাদের প্রতিপক্ষ শালকে জিরো ফোর।

বুন্ডেসলিগা অবশ্য মাঠে ফিরছে নানা ধরনের নিয়মকানুনের কড়াকড়ি নিয়ে। মৌসুমের বাকি ম্যাচগুলো অনুষ্ঠিত হবে দর্শকবিহীন মাঠে। ভাইরাস সংক্রমণের ঝুঁকি এড়াতে জার্মান ফুটবল লিগ (ডিএফএল) সব ক্লাবকে ৫১ পৃষ্ঠার একটি নির্দেশিকাও দিয়েছে। সেখানে উল্লেখ করা হয়েছে সমস্ত বিধিনিষেধ।

তবে জার্মানিতে করোনাভাইরাসের প্রকোপ এখনও পুরোপুরি কাটেনি। তাই বুন্ডেসলিগা কর্তৃপক্ষের লিগ চালুর বিরোধিতা করছেন অনেকে। কেউ কেউ আবার আরেক কাঠি সরেস! অন্য কোনো রহস্য খুঁজে বের করার চেষ্টা করছেন তারা।

ডর্টমুন্ড অধিনায়ক রয়িস অবশ্য এসবকে পাত্তা দিচ্ছেন না। খেলোয়াড়দের স্বাস্থ্য সুরক্ষার বিষয়টিকেই সর্বাধিক গুরুত্ব দিচ্ছেন তিনি, আর দর্শকশূন্য স্টেডিয়ামে খেলার সিদ্ধান্তের প্রতিও জানিয়েছেন সমর্থন, ‘খেলোয়াড়রা পরীক্ষাগারের ইঁদুর নন।’

‘এটা (দর্শকবিহীন মাঠে ফুটবল চালু করা) ছিল একমাত্র সম্ভাবনা। এটা নিয়ে অভিযোগ করার কোনো কারণ দেখি না।’

‘এই ভাইরাস আমাদের জীবনযাপনকে ওলটপালট করে দিয়েছে। পুরো বিশ্বকে চ্যালেঞ্জের মধ্য দিয়ে যেতে হচ্ছে এবং ভবিষ্যতেও হবে। আমাদের এখন অসতর্ক হওয়ার কোনো উপায় নেই।’

Comments

The Daily Star  | English

Indian Polls: How just 0.8pc vote cost Modi 63 seats

A miscalculation and a drop of just .8 percent of the vote share cost the ruling BJP 63 seats and also the aura of invincibility it created around its leader Narendra Modi

10m ago