করোনাভাইরাস

মৃত্যু ৩ লাখ ১৫ হাজার, আক্রান্ত ৪৭ লাখেরও বেশি

বিশ্বব্যাপী নতুন করোনাভাইরাস কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা প্রতিনিয়তই বাড়ছে। ইতোমধ্যে ৩ লাখ ১৫ হাজারের বেশি মানুষ মারা গেছেন। আক্রান্ত হয়েছেন ৪৭ লাখের বেশি। এ ছাড়া, সুস্থও হয়েছেন প্রায় সাড়ে ১৭ লাখ মানুষ।
করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবকালীন ব্রিটেনে এক রোগীকে সেবা দিচ্ছেন নার্স। ছবি: রয়টার্স

বিশ্বব্যাপী নতুন করোনাভাইরাস কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা প্রতিনিয়তই বাড়ছে। ইতোমধ্যে ৩ লাখ ১৫ হাজারের বেশি মানুষ মারা গেছেন। আক্রান্ত হয়েছেন ৪৭ লাখের বেশি। এ ছাড়া, সুস্থও হয়েছেন প্রায় সাড়ে ১৭ লাখ মানুষ।

আজ সোমবার জনস হপকিনস ইউনিভার্সিটির করোনাভাইরাস রিসোর্স সেন্টার এ তথ্য জানিয়েছে।

জনস হপকিনস ইউনিভার্সিটির সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৪৭ লাখ ১৩ হাজার ৭৬৯ জন এবং মারা গেছেন ৩ লাখ ১৫ হাজার ১৮৭ জন। এ ছাড়া, সুস্থ হয়েছেন ১৭ লাখ ৩৩ হাজার ৯৬৩ জন।

করোনাভাইরাসে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত ও মৃত্যু যুক্তরাষ্ট্রে। দেশটিতে আক্রান্ত হয়েছেন ১৪ লাখ ৮৬ হাজার ৭৫৭ জন এবং মারা গেছেন ৮৯ হাজার ৫৬২ জন। এ ছাড়া, সুস্থ হয়েছেন ২ লাখ ৭২ হাজার ২৬৫ জন।

যুক্তরাষ্ট্রের পর সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত রয়েছে রাশিয়ায়। সেখানে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ২ লাখ ৮১ হাজার ৭৫২ জন এবং মারা গেছেন ২ হাজার ৬৩১ জন। এ ছাড়া, সুস্থ হয়েছেন ৬৭ হাজার ৩৭৩ জন।

যুক্তরাষ্ট্রের পর এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি মানুষ মারা গেছেন যুক্তরাজ্যে। দেশটিতে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত ৩৪ হাজার ৭১৬ জন মারা গেছেন। আক্রান্ত হয়েছেন ২ লাখ ৪৪ হাজার ৯৯৫ জন। এ ছাড়া, সুস্থ হয়েছেন ১ হাজার ৫৮ জন।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বাড়ছে দক্ষিণ আমেরিকার দেশ ব্রাজিলেও। দেশটিতে আক্রান্ত হয়েছেন ২ লাখ ৪১ হাজার ৮০ জন, মারা গেছেন ১৬ হাজার ১১৮ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ৯৪ হাজার ১২২ জন।

এ ছাড়া, ইউরোপের দেশ স্পেনে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ২ লাখ ৩০ হাজার ৬৯৮ জন, মারা গেছেন ২৭ হাজার ৫৬৩ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ১ লাখ ৪৬ হাজার ৪৪৬ জন। ইতালিতে আক্রান্ত হয়েছেন ২ লাখ ২৫ হাজার ৪৩৫ জন, মারা গেছেন ৩১ হাজার ৯০৮ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ১ লাখ ২৫ হাজার ১৭৬ জন। ফ্রান্সে আক্রান্ত হয়েছেন ১ লাখ ৭৯ হাজার ৬৯৩ জন, মারা গেছেন ২৮ হাজার ১১১ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ৬১ হাজার ৩২৭ জন। জার্মানিতে আক্রান্ত হয়েছেন ১ লাখ ৭৬ হাজার ৩৬৯ জন, মারা গেছেন ৭ হাজার ৯৬২ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ১ লাখ ৫৪ হাজার ১১ জন।

মধ্যপ্রাচ্যের দেশ ইরানে আক্রান্ত হয়েছেন ১ লাখ ২০ হাজার ১৯৮ জন, মারা গেছেন ৬ হাজার ৯৮৮ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ৯৪ হাজার ৪৬৪ জন। তুরস্কে আক্রান্ত হয়েছেন ১ লাখ ৪৯ হাজার ৪৩৫ জন, মারা গেছেন ৪ হাজার ১৪০ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ১ লাখ ৯ হাজার ৯৬২ জন।

প্রতিবেশী দেশ ভারতে আক্রান্ত হয়েছেন ৯৫ হাজার ৬৯৮ জন, মারা গেছেন ৩ হাজার ২৫ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ৩৬ হাজার ৭৯৫ জন।

ভাইরাসটির সংক্রমণস্থল চীনে আক্রান্ত হয়েছেন ৮৪ হাজার ৫৪ জন, মারা গেছেন ৪ হাজার ৬৩৮ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ৭৯ হাজার ৩০৬ জন।

উল্লেখ্য, গত ৮ মার্চ বাংলাদেশে প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত করে সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর)। প্রতিষ্ঠানটির সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, দেশে এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ২২ হাজার ২৬৮ জনকে শনাক্ত করা হয়েছে। মারা গেছেন ৩২৮ জন। এ ছাড়া, সুস্থ হয়েছেন ৪ হাজার ৩৭৩ জন।

Comments

The Daily Star  | English

Flood situation in Sylhet, Sunamganj worsens

Heavy rains forecast for the next 3 days in region

6h ago