শীর্ষ খবর

ব্রাহ্মণবাড়িয়ায় ‘বন্দুকযুদ্ধে’ হত্যা মামলার আসামি নিহত

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুরে গুলিবিদ্ধ হয়ে মো. সুজন মিয়া (২৬) নামে এক যুবক নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।
gunfight_new_logo.jpg
স্টার অনলাইন গ্রাফিক্স

ব্রাহ্মণবাড়িয়ার বাঞ্ছারামপুরে গুলিবিদ্ধ হয়ে মো. সুজন মিয়া (২৬) নামে এক যুবক নিহত হওয়ার খবর পাওয়া গেছে।

পুলিশের দাবি, হত্যা, চুরি, ডাকাতিসহ ছয়টি মামলার আসামি সুজন ‘বন্দুকযুদ্ধে’ নিহত হয়েছেন। এ ঘটনায় পুলিশের পাঁচ সদস্য আহত হয়েছেন।

গতরাত আড়াইটার দিকে উপজেলার ছয়ফুল্লাকান্দি ইউনিয়নের ভেলানগর এলাকার একটি বাগানে এ ঘটনা ঘটে। নিহত সুজন একই উপজেলার জগন্নাথপুর গ্রামের নুরুল ইসলামের ছেলে।

আহত পুলিশ সদস্যরা হলেন, সহকারী উপপরিদর্শক (এএসআই) মনিরুল ইসলাম, কনস্টেবল মফিজুল ইসলাম, নুরুল আমীন, মনিরুল ইসলাম ও মোবারক হোসেন। তারা বাঞ্ছারামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে চিকিৎসাধীন।

বাঞ্ছারামপুর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) সালাউদ্দিন চৌধুরী বলেন, ‘চোরাই মোটরসাইকেলের টাকা নিয়ে দ্বন্দ্বে গতকাল দুপুরে বাঞ্ছারামপুর পৌর এলাকার জগন্নাথপুর গ্রামের মাহবুব হাসান বাবু নামে এক যুবককে ছুরিকাঘাতে হত্যা করে সুজন ও তার সহযোগীরা। এ ঘটনায় তার বিরুদ্ধে থানায় হত্যা মামলা দায়ের হয়। পরে গতকাল রাতে সুজনকে গ্রেপ্তার করতে ভেলানগর গ্রামের একটি বাগানে অভিযানে যায় পুলিশ। এসময় সুজনসহ তার সহযোগীরা পুলিশের উপস্থিতি টের পেয়ে বেশ কয়েক রাউন্ড গুলি ছুঁড়ে। পুলিশও আত্মরক্ষার্থে পাল্টা গুলি ছুঁড়ে। দুই পক্ষের গুলিবিনিময়ে বাঞ্ছারামপুর থানার পাঁচ পুলিশ সদস্য আহত হন।’

পরে পুলিশ ঘটনাস্থল থেকে গুলিবিদ্ধ অবস্থায় আহত সুজনকে উদ্ধার করে বাঞ্ছারামপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে নিয়ে গেলে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে মৃত ঘোষণা করেন।

ওসি আরও জানান, ঘটনাস্থল থেকে একটি পাইপগান, চারটি গুলির খোসাসহ দেশীয় অস্ত্রশস্ত্র উদ্ধার করা হয়।

সুজনের বিরুদ্ধে দুটি হত্যা মামলা এবং চুরি, ডাকাতি, ছিনতাই ও চাঁদাবাজিসহ মোট ছয়টি মামলা রয়েছে। তার সঙ্গীদের গ্রেপ্তারে অভিযান চলছে বলেও জানান ওসি।

Comments

The Daily Star  | English

Pakistan lawmakers sworn in after polls marred by rigging claims

Lawmakers were sworn in during the first sitting of Pakistan's new parliament Thursday, three weeks after an election marred by widespread allegations of rigging

8m ago