আকরাম খানকে ‘দেখে নেওয়ার’ হুমকি দিয়েছিলেন ওয়াসিম!

২৫ বছর আগের ঘটনা। ওয়াসিম আকরামের তাই মনেই পড়ছিল না। মজার সে স্মৃতি মনে করিয়ে দেওয়ার দায়িত্ব নিলেন বাংলাদেশের সাবেক অধিনায়ক আকরাম খান। সেবার সংযুক্ত আরব আমিরাতে এশিয়া কাপে যে আকরাম খানকে ‘দেখে নেওয়ার’ হুমকি দিয়েছিলেন ওয়াসিম আকরাম।
Akram Khan & Wasim Akram
ফাইল ছবি

২৫ বছর আগের ঘটনা। ওয়াসিম আকরামের তাই মনেই পড়ছিল না। মজার সে স্মৃতি মনে করিয়ে দেওয়ার দায়িত্ব নিলেন বাংলাদেশের সাবেক অধিনায়ক আকরাম খান। সেবার সংযুক্ত আরব আমিরাতে এশিয়া কাপে যে আকরাম খানকে ‘দেখে নেওয়ার’ হুমকি দিয়েছিলেন ওয়াসিম আকরাম।

দুজনের নামই আকরাম। দুজন তখন দুই দেশের অধিনায়ক। শারজাহ এশিয়া কাপের আসরে পাকিস্তানের মুখোমুখি বাংলাদেশ। সেই ম্যাচের দিন ঘটে এক মজার ঘটনা। 

মঙ্গলবার তামিম ইকবালের নিয়মিত অনলাইন আড্ডায় আসা ওয়াসিমকে ২৫ বছর আগের ঘটনায় টোকা দেন আকরাম, ‘ওয়াসিম, তোমার কি শারজায় ১৯৯৫ এশিয়া কাপের কথা মনে আছে।’

ওয়াসিম যেন স্মৃতি হাতড়ে বেড়ালেন কয়েক মুহূর্ত, ‘না, মনে করতে পারছি না।’

মজার এক ঘটনার স্মৃতি তাই মনে করানোর দায়িত্ব নিলেন আকরামই, ‘সেবার খুব গরম ছিল। তুমি আগের ম্যাচে শচীনকে বাউন্সারে কাবু করেছিলে। আমাদের বিপক্ষে ম্যাচের আগে তুমি আমাকে জিজ্ঞেস করেছিলে, “আকরাম, টস জিতলে কি করবে?” আমি বলেছিলাম ফিল্ডিং নিবো। তুমি জিজ্ঞেস করেছিলে, “নিশ্চিত করে বলছ?” আমি বলেছিলাম পরিকল্পনা এরকমই আছে। তুমি তখন বলেছিলেন, “অনেক গরম পড়েছে, ওয়ার্ম আপের জন্য যাচ্ছি না।” তো আমি চলে এলাম।’

‘তখন নান্নু ভাই আমাকে বলেন, “তুমি ফিল্ডিং নিতে যাচ্ছ কেন? ওরা তো আগে ব্যাট করলে তিনশো ছাড়িয়ে যাবে, তখন? টস জিতলে ব্যাটিং নিও।” পরে আমি  ব্যাটিং নেই। তুমি তখন আমাদের ড্রেসিং রুমে এসে আমাকে ডেকে বলছ,  “এই আকরাম, এদিকে আসো, তোমাকে দেখে নিবো”’

সেই ম্যাচে আগে ব্যাট করে কেবল দাবদাহ থেকে খানিকক্ষণ নিজেদের বাঁচাতে পেরেছিল বাংলাদেশ। বড় কোন রান করতে পারেনি। ৫০ ওভার খেলে ৮ উইকেটে বাংলাদেশ করে ১৫১ রান। দলের হয়ে ৮২ বলে সর্বোচ্চ ৪৪ করেছিলেন অধিনায়ক আকরাম। আর তেতে থাকা ওয়াসিম নিয়েছিলেন ২৫ রানে ২ উইকেট। ম্যাচটা পরে ৬ উইকেটে সহজে জিতেছিল পাকিস্তান।

 

 

 

 

Comments

The Daily Star  | English

Invest in Bangladesh, PM tells Indian businesspersons

Prime Minister Sheikh Hasina today invited Indian businesspersons to invest in Bangladesh, stating that she prioritises neighbouring countries

5h ago