করোনাভাইরাস

মৃত্যু ৩ লাখ ৩৮ হাজার, আক্রান্ত ৫২ লাখেরও বেশি

বিশ্বব্যাপী নতুন করোনাভাইরাস কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা প্রতিনিয়তই বাড়ছে। ইতোমধ্যে ৩ লাখ ৩৮ হাজারের বেশি মানুষ মারা গেছেন। আক্রান্ত হয়েছেন ৫২ লাখের বেশি। এ ছাড়া, সুস্থও হয়েছেন সাড়ে ২০ লাখের বেশি মানুষ।
ব্রাজিলে করোনা পরীক্ষা করছেন এক নার্স। ছবি: রয়টার্স

বিশ্বব্যাপী নতুন করোনাভাইরাস কোভিড-১৯ এ আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা প্রতিনিয়তই বাড়ছে। ইতোমধ্যে ৩ লাখ ৩৮ হাজারের বেশি মানুষ মারা গেছেন। আক্রান্ত হয়েছেন ৫২ লাখের বেশি। এ ছাড়া, সুস্থও হয়েছেন সাড়ে ২০ লাখের বেশি মানুষ।

আজ শনিবার জনস হপকিনস ইউনিভার্সিটির করোনাভাইরাস রিসোর্স সেন্টার এ তথ্য জানিয়েছে।

জনস হপকিনস ইউনিভার্সিটির সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন ৫২ লাখ ১১ হাজার ১৭২ জন এবং মারা গেছেন ৩ লাখ ৩৮ হাজার ১৮৩ জন। এ ছাড়া, সুস্থ হয়েছেন ২০ লাখ ৫৬ হাজার ৬৫০ জন।

করোনাভাইরাসে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত ও মৃত্যু যুক্তরাষ্ট্রে। দেশটিতে আক্রান্ত হয়েছেন ১৬ লাখ ১ হাজার ২৫১ জন এবং মারা গেছেন ৯৬ হাজার ১ জন। এ ছাড়া, সুস্থ হয়েছেন ৩ লাখ ৫০ হাজার ১৩৫ জন।

যুক্তরাষ্ট্রের পর সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত রয়েছে রাশিয়ায়। সেখানে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ৩ লাখ ২৬ হাজার ৪৪৮ জন এবং মারা গেছেন ৩ হাজার ২৪৯ জন। এ ছাড়া, সুস্থ হয়েছেন ৯৯ হাজার ৮২৫ জন।

যুক্তরাষ্ট্রের পর এখন পর্যন্ত সবচেয়ে বেশি মানুষ মারা গেছেন যুক্তরাজ্যে। দেশটিতে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত ৩৬ হাজার ৪৭৫ জন মারা গেছেন। আক্রান্ত হয়েছেন ২ লাখ ৫৫ হাজার ৫৪৪ জন। এ ছাড়া, সুস্থ হয়েছেন ১ হাজার ১৪২ জন।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বাড়ছে দক্ষিণ আমেরিকার দেশ ব্রাজিলেও। দেশটিতে আক্রান্ত হয়েছেন ৩ লাখ ৩০ হাজার ৮৯০ জন, মারা গেছেন ২১ হাজার ৪৮ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ১ লাখ ৩৫ হাজার ৪৩০ জন।

এ ছাড়া, ইউরোপের দেশ স্পেনে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ২ লাখ ৩৪ হাজার ৮২৪ জন, মারা গেছেন ২৮ হাজার ৬২৮ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ১ লাখ ৫০ হাজার ৩৭৬ জন। ইতালিতে আক্রান্ত হয়েছেন ২ লাখ ২৮ হাজার ৬৫৮ জন, মারা গেছেন ৩২ হাজার ৬১৬ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ১ লাখ ৩৬ হাজার ৭২০ জন। ফ্রান্সে আক্রান্ত হয়েছেন ১ লাখ ৮২ হাজার ১৫ জন, মারা গেছেন ২৮ হাজার ২১৮ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ৬৩ হাজার ৯৮৬ জন। জার্মানিতে আক্রান্ত হয়েছেন ১ লাখ ৭৯ হাজার ৭১০ জন, মারা গেছেন ৮ হাজার ২২৮ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ১ লাখ ৫৯ হাজার ৬৪ জন।

মধ্যপ্রাচ্যের দেশ ইরানে আক্রান্ত হয়েছেন ১ লাখ ৩১ হাজার ৬৫২ জন, মারা গেছেন ৭ হাজার ৩০০ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ১ লাখ ২ হাজার ২৭৬ জন। তুরস্কে আক্রান্ত হয়েছেন ১ লাখ ৫৪ হাজার ৫০০ জন, মারা গেছেন ৪ হাজার ২৭৬ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ১ লাখ ১৬ হাজার ১১১ জন।

প্রতিবেশী দেশ ভারতে আক্রান্ত হয়েছেন ১ লাখ ২৪ হাজার ৭৯৪ জন, মারা গেছেন ৩ হাজার ৭২৬ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ৫১ হাজার ৮২ জন।

ভাইরাসটির সংক্রমণস্থল চীনে আক্রান্ত হয়েছেন ৮৪ হাজার ৮১ জন, মারা গেছেন ৪ হাজার ৬৩৮ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ৭৯ হাজার ৩৩২ জন।

উল্লেখ্য, গত ৮ মার্চ বাংলাদেশে প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত করে সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর)। প্রতিষ্ঠানটির সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, দেশে এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ৩০ হাজার ২০৫ জনকে শনাক্ত করা হয়েছে। মারা গেছেন ৪৩২ জন। এ ছাড়া, সুস্থ হয়েছেন ৬ হাজার ১৯০ জন।

Comments

The Daily Star  | English
fire incident in dhaka bailey road

Fire Safety in High-Rise: Owners exploit legal loopholes

Many building owners do not comply with fire safety regulations, taking advantage of conflicting legal definitions of high-rise buildings, according to urban experts.

7h ago