উলফসবুর্গকে হারিয়ে বায়ার্নের সঙ্গে ব্যবধান কমালো বরুসিয়া

জার্মান শীর্ষ লিগ বুন্ডেসলিগায় দারুণ জয় পেয়েছে বরুসিয়া ডর্টমুন্ড। ভিএফএল উলফসবুর্গের বিপক্ষে ২-০ গোলের জয় পায় দলটি। দলের হয়ে গোল করেছেন দুই ফুলব্যাক। আর এ জয়ে শীর্ষে থাকা বায়ার্ন মিউনিখের ঘাড়ে নিঃশ্বাস ফেলছে দলটি। মাত্র ১ পয়েন্ট পিছিয়ে আছে তারা।
ছবি: এএফপি

জার্মান শীর্ষ লিগ বুন্ডেসলিগায় দারুণ জয় পেয়েছে বরুসিয়া ডর্টমুন্ড। ভিএফএল উলফসবুর্গের বিপক্ষে ২-০ গোলের জয় পায় দলটি। দলের হয়ে গোল করেছেন দুই ফুলব্যাক। আর এ জয়ে শীর্ষে থাকা বায়ার্ন মিউনিখের ঘাড়ে নিঃশ্বাস ফেলছে দলটি। মাত্র ১ পয়েন্ট পিছিয়ে আছে তারা।

ম্যাচের ৩২তম মিনিটে প্রথম গোল পায় বরুসিয়া। তাদের এগিয়ে দেন লেফট ব্যাক রাফায়েল গেরেরো। গোলটা পেতে পারতেন হালান্ডই। তবে ছোট ডি-বক্সের সামনে অনেকটা ফাঁকায় পা ছোঁয়াতে ব্যর্থ হন তিনি। অবশ্য তাতে ক্ষতি হয়নি তাদের। পেছনে অরক্ষিত অবস্থায় ছিলেন গেরেরো। আলতো টোকায় বল জালে জড়াতে কোনো ভুল করেননি এ পর্তুগিজ তরুণ।

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতেই গোল শোধ করার সুবর্ণ সুযোগ পেয়েছিলো উলফসবুর্গ। ওট ওয়েঘোরস্টের বাড়ানো বলে গোলরক্ষককে একা পেয়ে গিয়েছিলেন রেনাতো স্টিফেন। কিন্তু লক্ষ্যেই শট নিতে পারেননি তিনি। ৬১তম মিনিটে ওয়েঘোরস্টের ক্রস থেকে গোলমুখে ফাঁকায় বল পেয়ে গিয়েছিলেন ম্যাক্সিমিলিয়েন আর্নল্ড। কিন্তু বল নিয়ন্ত্রণেই নিতে পারেননি তিনি। পরের মিনিটে স্টিফেনের দূরপাল্লার শট সহজেই ফিরিয়ে দেন গোলরক্ষক।

৭৮তম মিনিটে উল্টো ব্যবধান আরও বাড়ায় বরুসিয়া। মাঝ মাঠ থেকে বল দারুণভাবে নিয়ন্ত্রণে নিয়ে ডান প্রান্তে আশরাফ হাকিমিকে থ্রু বাড়ান জর্দান সাঞ্চো। বল পেয়ে দারুণ এক কোণাকোণি শটে লক্ষ্যভেদ করেন রিয়াল মাদ্রিদ থেকে ধারে আনা এ খেলোয়াড়। ফলে ২-০ ব্যবধানে এগিয়ে যায় তারা। এরপর অবশ্য দুই দলই কিছু সুযোগ পেয়েছিল। তবে তা থেকে কোনো গোল হয়নি।

এ জয়ের ২৭ ম্যাচে ৫৭ পয়েন্ট বরুসিয়ার। এক ম্যাচ কম খেলে ৫৮ পয়েন্ট নিয়ে শীর্ষে আছে বায়ার্ন। অবশ্য রাতেই ফ্রঙ্কফুর্টের বিপক্ষে মাঠে নামছে তারা। ২৭ ম্যাচে ৩৯ পয়েন্ট নিয়ে ষষ্ঠ স্থানে আছে উলফবুর্গ।

Comments

The Daily Star  | English

Another victim dies, death toll now 45

The death toll from last night's deadly fire in a building on Bailey Road in the capital rose to 45 as another injured died at the Dhaka Medical College Hospital this morning

26m ago