শরীয়তপুরে ২ ওষুধ বিক্রেতার করোনা শনাক্ত

শরীয়তপুরের জাজিরা উপজেলায় দুই ওষুধ বিক্রেতার করোনা শনাক্ত হয়েছে। তারা গত ১৯ মে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা দেন। আজ তাদের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে।
প্রতীকী ছবি। (সংগৃহীত)

শরীয়তপুরের জাজিরা উপজেলায় দুই ওষুধ বিক্রেতার করোনা শনাক্ত হয়েছে। তারা গত ১৯ মে উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে গিয়ে করোনা পরীক্ষার জন্য নমুনা দেন। আজ তাদের রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে।

আজ সন্ধ্যায় জাজিরা উপজেলা স্বাস্থ্য ও পরিবার পরিকল্পনা কর্মকর্তা ডা. মাহমুদুল হাসান দ্য ডেইলি স্টারকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন।

ডা. হাসান বলেন, ‘এই সময়ে পল্লী বা হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসক এবং ওষুধ বিক্রেতারা অনেক ঝুঁকিতে আছেন। কারণ অনেকই সামান্য অসুস্থ হলে স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে না এসে এলাকার এসব চিকিৎসকদের শরণাপন্ন হয়ে চিকিৎসা নিচ্ছেন। রোগীরা ওষুধ ক্রয়ের জন্য দোকানে গিয়ে ভিড় করছেন এবং বিক্রেতাদের সংস্পর্শে যাচ্ছেন। এ কথা বিবেচনা করে গত ১৮ মে আমরা উপজেলার সকল ঔষধ বিক্রেতা, পল্লী ও হোমিওপ্যাথিক চিকিৎসকদের জন্য করোনা পরীক্ষার উদ্যোগ গ্রহণ করেছি।'

তিনি আরও বলেন, ‘গত ১৯ মে স্বাস্থ্য বিভাগের ডাকে সাড়া দিয়ে প্রায় ৫০ জন উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে এসে তাদের নমুনা দিয়ে গেছে। এদের মধ্যে ৪৫ জন ওষুধ বিক্রেতা ছিল। আমরা এই নমুনাগুলো আন্তর্জাতিক উদরাময় গবেষণা কেন্দ্র, বাংলাদেশ (আইসিডিডিআর,বি) করোনা পরীক্ষার জন্য পাঠিয়েছিলাম। উক্ত নমুনাগুলোর মধ্যে দুইজনের করোনার রিপোর্ট পজিটিভ এসেছে। করোনার কোনো উপসর্গ না থাকা এবং শারীরিক অবস্থা স্থিতিশীল হওয়ায় তাদের প্রত্যেককে বাড়িতে আইসোলেশনে রেখে চিকিৎসা দেওয়া হচ্ছে।’

শরীয়তপুর সিভিল সার্জন অফিসের মেডিক্যাল অফিসার (রোগ নিয়ন্ত্রণ) ডা. মো. আবদুর রশিদ বলেন, ‘আজ সন্ধ্যা পর্যন্ত জেলায় করোনা আক্রান্ত শনাক্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে ৯০ জনে দাঁড়িয়েছে। এদের মধ্য থেকে তিন জন মারা গেছেন।’

জাজিরা উপজেলা স্বাস্থ্য বিভাগের এই উদ্যোগের ফলে করোনার সংক্রমণ কমবে বলে মনে করেন জেলা অফিসের এই কর্মকর্তা।

Comments

The Daily Star  | English
Exports grow 12% in Feb

Exports rise 12% in Feb

Bangladesh shipped $5.18 billion worth of merchandise in February

1h ago