দর্শক ছাড়া মাঠে খেলার অনুভূতি অদ্ভুত মনে হলেও প্রস্তুত মেসি

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে স্থগিত স্প্যানিশ লা লিগা আবার শুরুর পথে। ৮ জুন থেকে লিগ শুরুর সবুজ সংকেত দিয়েছে দেশটির সরকার। কর্তৃপক্ষ অবশ্য ১১ জুন থেকে শুরুর কথা ভাবছে। লিগ শুরু হলেও মাঠে থাকছে না কোনো দর্শক। দরজাবন্ধ এ পরিস্থিতিতে খেলার ব্যাপারটা মেনে নিয়েছেন বার্সা অধিনায়ক লিওনেল মেসি। কিন্তু এটা যে অদ্ভুত একটা অনুভূতি হতে যাচ্ছে তাও জানিয়ে দিয়েছেন রেকর্ড ছয় বারের ব্যালন ডি'অর জয়ী এ তারকা।

করোনাভাইরাসের প্রাদুর্ভাবে স্থগিত স্প্যানিশ লা লিগা আবার শুরুর পথে। ৮ জুন থেকে লিগ শুরুর সবুজ সংকেত দিয়েছে দেশটির সরকার। কর্তৃপক্ষ  অবশ্য ১১ জুন থেকে শুরুর কথা ভাবছে। লিগ শুরু হলেও মাঠে থাকছে না কোনো দর্শক। দরজাবন্ধ এ পরিস্থিতিতে খেলার ব্যাপারটা মেনে নিয়েছেন বার্সা অধিনায়ক লিওনেল মেসি। কিন্তু এটা যে অদ্ভুত একটা অনুভূতি হতে যাচ্ছে তাও জানিয়ে দিয়েছেন রেকর্ড ছয় বারের ব্যালন ডি'অর জয়ী এ তারকা।

ফের মাঠে নামার প্রস্তুতিটা অবশ্য অনেক দিন থেকেই শুরু করেছেন মেসিরা। শুরুতে ব্যক্তিগত পর্যায়ে করলেও দিন দশেকের মতো হয় তারা দলীয় অনুশীলন করেছেন। বর্তমানে ১৪ জনের দলে অনুশীলন করছেন তারা। নিজেদের ফিটনেসও ফিরে পাচ্ছেন। তবে দর্শকহীন মাঠে খেলার ভাবনাটা অদ্ভুত ঠেকছে মেসির কাছে। যদিও বাস্তবতা মেনে তার সঙ্গে মানিয়ে নেওয়ার চেষ্টা করছেন তিনি।

স্পন্সর অ্যাডিডাসের সঙ্গে কথা বলতে গিয়ে মেসি বলেন, 'এ বছরে আমরা কি হারাচ্ছি তা ভাবতে পারছি না। তার চেয়ে ভালো ভবিষ্যতের দিকে তাকানো। দল হিসেবে প্রস্তুতি হবে আর দশটা ম্যাচের মতোই। তবে ব্যক্তিগতভাবে আমাদের প্রস্তুতি নিতে হবে সমর্থকদের ছাড়া খেলার জন্য। যেটা আসলে একটু অদ্ভুত। তবে এখন যা পরিস্থিতি, তার সঙ্গে মানিয়ে নিতেই হবে। এই সময়ে মানসিক ভাবে নিজেকে তৈরি রাখাটাই সবচেয়ে গুরুত্বপূর্ণ ব্যাপার। কিন্তু অন্যরকম একটা অভিজ্ঞতাই হতে চলেছে। মনে হচ্ছে যেন শূন্য থেকে শুরু করব।'

অবশ্য এর আগেও ফাঁকা গ্যালারিতে খেলার অভিজ্ঞতা রয়েছে মেসিদের। বার্সেলোনার অস্থিরতার সময় ন্যু ক্যাম্পে কোনো দর্শক ঢোকার অনুমতি ছিল না। সেই অভিজ্ঞতা থেকেই বিষয়টি মেনে নিতে সহজ হচ্ছে মেসির, 'হ্যাঁ, আগেও একবার এমন অদ্ভুত অভিজ্ঞতার মধ্যে দিয়ে যেতে হয়েছিল। তবে এবার স্বাভাবিকভাবেই এরকম কিছুর মধ্য দিয়ে যেতে হবে। যখন আবার খেলা শুরু করব, অনেক কিছুই নতুন করে শুরু হবে। টেকনিক্যালি আমরা আগের মৌসুমটাই খেলব, কিন্তু সবার জন্য এটা হবে পুরোপুরি নতুন একটা সূচনা।'

চলতি বছরে কোপা আমেরিকায়ও খেলার কথা ছিল মেসিদের। কিন্তু করোনাভাইরাসের কারণে পিছিয়ে গেছে এ আসর। হতাশ হলেও বিষয়টি স্বাভাবিকভাবেই মেনে নিয়েছেন এ আর্জেন্টাইন তারকা, 'কোপা স্থগিত হয়ে যাওয়া অবশ্যই বড় একটা হতাশার ব্যাপার। আমি এই টুর্নামেন্টের দিকে তাকিয়ে ছিলাম এবার। তবে যে কারণে স্থগিত হয়ে গেছে, সেটা একদমই যুক্তিসঙ্গত।'

Comments

The Daily Star  | English

US supports a prosperous, democratic Bangladesh

Says US embassy in Dhaka after its delegation holds a series of meetings with govt officials, opposition and civil groups

46m ago