পরিবহন খাতের ৪ সংগঠনের যৌথ বিবৃতিতে চাঁদাবাজি বন্ধের দাবি

দেশে সড়ক পরিবহন খাত সংশ্লিষ্ট মালিক ও শ্রমিকদের চারটি শীর্ষ সংগঠন টার্মিনাল ও মহাসড়কে চাঁদাবাজি বন্ধে সরকারের কাছে সহযোগিতা চেয়ে বিবৃতি দিয়েছে।

দেশে সড়ক পরিবহন খাত সংশ্লিষ্ট মালিক ও শ্রমিকদের চারটি শীর্ষ সংগঠন টার্মিনাল ও মহাসড়কে চাঁদাবাজি বন্ধে সরকারের কাছে সহযোগিতা চেয়ে বিবৃতি দিয়েছে।

বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন মালিক সমিতি, বাংলাদেশ সড়ক পরিবহন শ্রমিক ফেডারেশন, বাংলাদেশ বাস ট্রাক ওনার্স অ্যাসোসিয়েশন, বাংলাদেশ ট্রাক কাভার্ড ভ্যান মালিক সমিতি এই চার সংগঠনের সভাপতি ও সাধারণ সম্পাদক গণপরিবহন চালু করার ব্যাপারে সরকারের সিদ্ধান্তকে স্বাগত জানিয়ে তাদের দাবির কথা বলেন।

বিবৃতিতে তারা বলেন, সড়ক পরিবহনে চাঁদাবাজি পরিবহন খাতকে বিশৃঙ্খল করে তুলেছে। আগামী ৩১ মে গণপরিবহন চালু হওয়ার সময় থেকে টার্মিনালে, সড়কে বা অন্য কোথাও চাঁদা উত্তোলন করা যাবে না। শুধুমাত্র সরকার অনুমোদিত নিজ নিজ গঠনতন্ত্রের বিধান অনুযায়ী নিজ নিজ মালিক ও শ্রমিক সংগঠনের সদস্যদের কাছ থেকে নিজ নিজ অফিসে চাঁদা সংগ্রহ করা যাবে।

এই বিধানের ব্যত্যয় হলে কঠোর আইনি ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারি দেন সংগঠনগুলোর নেতারা।

Comments

The Daily Star  | English

Lucky’s sources of income, wealth don’t add up

Laila Kaniz Lucky is the upazila parishad chairman from Raypura upazila of Narshingdi and a retired teacher of a government college.

2h ago