১৫ টন সরকারি চাল জব্দ, ওসি-এলএসডি ও নৈশপ্রহরী পুলিশি হেফাজতে

বগুড়ার গাবতলী উপজেলায় কালোবাজারে বিক্রি সময় সরকারি চাল জব্দ করেছে পুলিশ। আজ শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে ১৫ টন চাল জব্দ করে থানায় নিয়ে আসা হয়।
Government_rice--seized_Bog.jpg
বগুড়ার গাবতলী উপজেলায় কালোবাজারে বিক্রি সময় শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে ১৫ টন সরকারি চাল জব্দ করে পুলিশ। ছবি: স্টার

বগুড়ার গাবতলী উপজেলায় কালোবাজারে বিক্রি সময় সরকারি চাল জব্দ করেছে পুলিশ। আজ শুক্রবার সকাল ১০টার দিকে ১৫ টন চাল জব্দ করে থানায় নিয়ে আসা হয়।

গাবতলী মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. নুরুজ্জামান এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, ‘আমাদের কাছে তথ্য ছিল, সরকারি খাদ্যগুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তাসহ (ওসি-এলএসডি) কয়েকজন ব্যক্তি স্থানীয় চালকল মালিকের কাছে সরকারি চাল বিক্রি করবেন। সকালে সাবেকপাড়ায় সরকারি গুদামের সামনে থেকে ১৫ টন চালসহ একটি ট্রাক জব্দ করা হয়।’

তিনি আরও বলেন, ‘এ সময় চালকল মালিক আমজাদ হোসেন শাহীনকেও (৪৮) আটক করা হয়েছে। তার বাড়ি বগুড়ার ধুনট উপজেলায়। খাদ্যগুদামের ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি-এলএসডি) শাফিকুল ইসলাম ও নৈশপ্রহরী সাদেকুল ইসলাম বর্তমানে আমাদের হেফাজতে আছেন। সরকারি কর্মকর্তা-কর্মচারী হওয়ায় তাদের আটক করা হয়নি।’

‘আমাদের কাছে তথ্য আছে আমজাদ হোসেন, শাফিকুল ইসলাম ও সাদেকুল ইসলাম সরকারি চাল কালোবাজারির সঙ্গে সরাসরি জড়িত। তাদের কাছে ডিও লেটার (আধা সরকারি পত্র) পাওয়া যায়নি। মূলত, জনরোষ থেকে বাঁচাতে তাদের ঘটনাস্থল থেকে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। দুর্নীতি দমন কমিশন (দুদক) বগুড়া কার্যালয়ে যোগাযোগ করা হয়েছে। তারা মামলা দায়ের করলে শাফিকুল ইসলাম ও সাদেকুল ইসলামকে গ্রেপ্তার দেখানো হবে।

গাবতলী উপজেলা খাদ্য নিয়ন্ত্রক হারুনুর রশিদ দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, ‘আমি জানি না এগুলো কীসের চাল ছিল। তদন্তের পরে এ বিষয়ে বিস্তারিত বলা যাবে।’

Comments

The Daily Star  | English

Inadequate Fire Safety Measures: 3 out of 4 city markets risky

Three in four markets and shopping arcades in Dhaka city lack proper fire safety measures, according to a Fire Service and Civil Defence inspection report.

6h ago