স্বজনরা এগিয়ে আসেনি, দাফন করল পুলিশ

নরসিংদী সদর হাসপাতালে মাথা ব্যথা ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে এক প্রবাসীর স্ত্রী মারা যাওয়ার পর তার শ্বশুর বাড়ি কিংবা বাবার বাড়ির লোকজন এগিয়ে আসেনি। আজ শুক্রবার বিকেলে নরসিংদী পৌর কবরস্থানে তার মরদেহ দাফন করে পুলিশ।
ছবি: সংগৃহীত

নরসিংদী সদর হাসপাতালে মাথা ব্যথা ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে এক প্রবাসীর স্ত্রী মারা যাওয়ার পর তার শ্বশুর বাড়ি কিংবা বাবার বাড়ির লোকজন এগিয়ে আসেনি। আজ শুক্রবার বিকেলে নরসিংদী পৌর কবরস্থানে তার মরদেহ দাফন করে পুলিশ।

নরসিংদী জেলা পুলিশের পরিদর্শক রুপম কুমার সরকার জানান, মারা যাওয়া গৃহবধূ নরসিংদী পৌর এলাকার শালিধায় তার শিশু সন্তানকে নিয়ে ভাড়া বাড়িতে থাকতেন। তার স্বামী আল-আমিন প্রায় ১০ বছর ধরে মালদ্বীপে থাকেন। বৃহস্পতিবার দুপুরে মাথাব্যথা ও শ্বাসকষ্টজনিত সমস্যা নিয়ে সদর হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন ওই নারী।

তিনি বলেন, ‘আজ হাসপাতালে তার মৃত্যু হলে মরদেহ কেউ বুঝে নেয়নি, দাফনেও কেউ এগিয়ে আসেনি। পরে জেলা পুলিশ সুপার প্রলয় কুমার জোয়ারদারের নির্দেশে হাসপাতাল থেকে মরদেহ বুঝে নেন সদর মডেল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা মো. সৈয়দুজ্জামান।’

এরপর, পুলিশ সদস্যরা পৌর কবরস্থানে তার মরদেহ দাফন করে বলে জানান রুপম কুমার সরকার।

Comments

The Daily Star  | English

7km tailback on Tangail side of Bangabandhu Bridge

Tk 3.80cr toll collected from the bridge in 24 hours

41m ago