কাল ১২টা থেকে ১টার মধ্যে মোবাইলে এসএসসির ফল

মোবাইলে এসএমএসের মাধ্যমে আগামীকাল দুপুরে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ করা হবে। মোবাইলে ফলাফল জানার জন্য এরই মধ্যে ১৩ লাখ ২৩ হাজার পরীক্ষার্থী-অভিভাবক তাদের ফোন নম্বর নিবন্ধিত করেছেন।

মোবাইলে এসএমএসের মাধ্যমে আগামীকাল দুপুরে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশ করা হবে। মোবাইলে ফলাফল জানার জন্য এরই মধ্যে ১৩ লাখ ২৩ হাজার পরীক্ষার্থী-অভিভাবক তাদের ফোন নম্বর নিবন্ধিত করেছেন।

শিক্ষা বোর্ড সংশ্লিষ্ট কর্মকর্তারা আজ শনিবার এসব তথ্য জানিয়েছেন।

এই প্রথম দেশে মোবাইল ফোন ও ইন্টারনেটের মাধ্যমে কোনো পাবলিক পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশিত হতে যাচ্ছে।

ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের চেয়ারম্যান ও আন্তঃবোর্ড সমন্বয় কমিটির প্রধান অধ্যাপক জিয়াউল হক বলেন, ‘নিবন্ধিতরা রোববার সকাল দুপুর ১২টা থেকে দুপুর ১টার মধ্যে ফলাফল পাবেন।’ ফল প্রকাশের জন্য সব ধরণের প্রস্তুতি নেওয়া হয়েছে জানিয়ে তিনি বলেন, এ বছর শিক্ষার্থীরা শিক্ষা প্রতিষ্ঠান থেকে তাদের ফলাফল সংগ্রহ করতে পারবে না।

ঢাকা শিক্ষা বোর্ডের সিস্টেম অ্যানালিস্ট মনজুরুল কবির জানান, মোট ১৩ লাখ ২৩ হাজার ৭২৬ জন এই ফলাফলের জন্য নিবন্ধন করেছেন।

শিক্ষা মন্ত্রণালয়ের জনসংযোগ কর্মকর্তা মোহাম্মদ আবুল খায়ের জানান, প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনা কাল সকালে ভিডিও কনফারেন্সের মাধ্যমে ফলাফল ঘোষণা করবেন। পরে, শিক্ষামন্ত্রী দিপু মনি ফেসবুক লাইভে ফলাফল নিয়ে সংবাদ সম্মেলন করবেন।

করোনাভাইরাসের কারণে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ থাকায়, গত আট বছরে এই প্রথমবার পাবলিক পরীক্ষা শেষ করার ৬০ দিনের মধ্যে ফলাফল প্রকাশ হচ্ছে না। এ বছর ৩ ফেব্রুয়ারি এসএসসি পরীক্ষা শুরু হয়। তাত্ত্বিক পরীক্ষা ২৭ ফেব্রুয়ারি ও ব্যবহারিক পরীক্ষা ৬ মার্চ শেষ হয়।

এর আগে সরকার মে মাসের ৭ কিংবা ৮ তারিখ ফল প্রকাশের পরিকল্পনা করেছিল। কিন্তু, স্কুল বন্ধ থাকায় তখন ফল প্রকাশ করা যায়নি।

করোনাভাইরাসের বিস্তার রোধে গত ১৭ মার্চ থেকে দেশের সব শিক্ষা প্রতিষ্ঠান বন্ধ রয়েছে এবং ১৫ জুন পর্যন্ত বন্ধ বাড়ানো হয়েছে।

এ বছর প্রায় ২০ লাখ ৪৭ হাজার ৭৭৯ জন শিক্ষার্থী তিন হাজার ৫১২ কেন্দ্রে এসএসসি ও সমমানের পরীক্ষায় অংশ নেয়।

বিগত বছরগুলোর মতো এবারও ফলাফল বোর্ডের ওয়েবসাইটে পাওয়া যাবে।

পরীক্ষার্থীরা শিক্ষা বোর্ডের ওয়েবসাইট http://www.educationboardresults.gov.bd/ থেকে এবং সংশ্লিষ্ট শিক্ষাবোর্ডের ওয়েবসাইটগুলি থেকে ফলাফল জানতে পারবে।

Comments

The Daily Star  | English
62% young women not in employment, education

62% young women not in employment, education

Three out of five young women in Bangladesh were considered NEETs (not in employment, education, or training) in 2022, a waste of the workforce in a country looking to thrive riding on the demographic dividend, official figures showed.

10h ago