ধোনির কাছ থেকে ছয়-সাত বছরে অধিনায়কত্ব রপ্ত করেন কোহলি

মহেন্দ্র সিং ধোনির ছেড়ে দেওয়া জায়গা হুট করেই পেয়ে গেছেন, আর আনছেন সাফল্য। বিষয়টাই এতটাই সরল নয় বিরাট কোহলির। ব্যাটিংয়ের তালিম হয়ত তিনি ধোনিকেও দিতে পারঙ্গম। কিন্তু অধিনায়কত্ব তাকে শিখতে হয়েছিল ধোনির কাছেই। তাও খুব অল্প সময়ে নয়। ছয়-সাত বছর লাগিয়ে নিজেকে নেতা বানানোর মুন্সিয়ানা আত্মস্থ করেছেন ভারত অধিনায়ক
MS Dhoni & Virat Kohli
ফাইল ছবি: এএফপি

মহেন্দ্র সিং ধোনির ছেড়ে দেওয়া জায়গা হুট করেই পেয়ে গেছেন, আর আনছেন সাফল্য। বিষয়টাই এতটাই সরল নয় বিরাট কোহলির। ব্যাটিংয়ের তালিম হয়ত তিনি ধোনিকেও দিতে পারঙ্গম। কিন্তু অধিনায়কত্ব তাকে শিখতে হয়েছিল ধোনির কাছেই। তাও খুব অল্প সময়ে নয়। ছয়-সাত বছর লাগিয়ে নিজেকে নেতা বানানোর মুন্সিয়ানা আত্মস্থ করেছেন ভারত অধিনায়ক

টেস্ট ক্রিকেট থেকে আগেই সরে যাওয়া ধোনি অবসর নেননি সীমিত ওভারের ক্রিকেট থেকে। কিন্তু গত বিশ্বকাপের পর তাকে দেখাও যায়নি ভারতীয় দলে। ৩৮ পেরুনো ধোনির সময়টা শেষ কিনা এই নিয়ে গুঞ্জন চলছে। কোহলিসহ বর্তমান টিম ম্যানেজমেন্ট ধোনিকে আর চায় না বলেও শোরগোল বেশ চড়া।

এসব কথার মধ্যেই ভারতের ইতিহাসের সফলতম অধিনায়কের প্রতি নিজের কৃতজ্ঞতাটা জানাতে ভুললেন না কোহলি। সতীর্থ রবীচন্দ্র অশ্বিনের সঙ্গে ইন্সটাগ্রাম লাইভে জানান তার অধিনায়ক হওয়া প্রেরণা আসলে ধোনি,  ‘ধোনির খুব কাছাকাছি থাকতে পারাটাই অধিনায়ক হিসেবে উত্তরণের বড় কারণ। আমি তার কাছ থেকে অনেক কিছু শিখেছি। ধীরে ধীরে তৈরি হয়েছে। ব্যাপারটা ত এমন না যে ধোনি অধিনায়কত্ব ছেড়ে দেওয়ার পর হুট করেই আমাকে দায়িত্ব দেওয়া হয়েছে।’

কোহলি যে পরবর্তী অধিনায়ক হতে চলেছেন, সেই বার্তা নাকি ধোনিই তাকে দিয়ে রেখেছিলেন,  ‘আগের অধিনায়ক (ধোনি) মাঠে আমার উপর অনেক দায়িত্ব দিত। আমাকে বলত তুমিই পরবর্তী নেতা। রাতারাতি নয়, এই ভিতটা তৈরি হয়েছে টানা ছয়-সাত বছরে।’

অধিনায়ক ধোনি উইকেটকিপিং পজিশন থেকে মাঠ চালাতেন। প্রথম স্লিপে তার পাশে দাঁড়ানোর সুযোগ পান কোহলি। একদম কাছ থেকেই রপ্ত করতে থাকেন কৌশল, ‘আমার উন্নতির পথটা আরও পোক্ত হয় যখন থেকে প্রথম স্লিপে দাঁড়াতে লাগলাম। আমি ধোনির কানের কাছেই থাকতাম। নানান মত বিনিময় হতো। নিজের মত দিতাম প্রায়ই। ধোনিও বুঝতে পেরেছিল আমি কাজটা পারব।’

Comments

The Daily Star  | English

44 lives lost to Bailey Road blaze

33 died at DMCH, 10 at the burn institute, and one at Central Police Hospital

5h ago