ভারতের মহারাষ্ট্রে ধেয়ে যাচ্ছে ‘ঘূর্ণিঝড় নিসর্গ’, মুম্বাইয়ে রেড অ্যালার্ট

ভারতের পশ্চিম উপকূলের দিকে ধেয়ে যাচ্ছে ঘূর্ণিঝড় নিসর্গ। দেশটির বাণিজ্যিক রাজধানী মুম্বাইয়ে ইতোমধ্যে রেড অ্যালার্ট জারি করা হয়েছে।
নাসা থেকে প্রকাশিত স্যাটেলাইট ছবিতে ঘূর্ণিঝড় নিসর্গ

ভারতের পশ্চিম উপকূলের দিকে ধেয়ে যাচ্ছে ঘূর্ণিঝড় নিসর্গ। দেশটির বাণিজ্যিক রাজধানী মুম্বাইয়ে ইতোমধ্যে রেড অ্যালার্ট জারি করা হয়েছে।

দেশটির আবহাওয়া বিভাগ জানিয়েছে, আগামী ৬ ঘণ্টার মধ্যে নিসর্গ প্রবল বেগে উত্তর দিকে ধেয়ে যাবে। বুধবারের মধ্যে প্রবল গতিতে মহারাষ্ট্র প্রদেশে আঘাত হানবে।

বিবিসির প্রতিবেদন বলছে, ১২৯ বছরে এই প্রথম মুম্বাইয়ে কোনো বড় ধরনের ঘূর্ণিঝড় আঘাত হানতে যাচ্ছে। কলম্বিয়া বিশ্ববিদ্যালয়ের বায়ুমণ্ডলীয় বিজ্ঞানের অধ্যাপক অ্যাডাম সোবেল বলেন, ‘২ কোটি বাসিন্দার মুম্বাই শহর ১৮৯১ সালের পর আর কোনো ঘূর্ণিঝড়ের মুখোমুখি হয়নি।’

এনডিটিভির খবরে বলা হয়েছে, ঘূর্ণিঝড়ের ধাক্কায় অন্যান্য ক্ষয়ক্ষতির পাশাপাশি মহারাষ্ট্রের উপকূলবর্তী এলাকায় ব্যাপক ভূমিধসের আশঙ্কা রয়েছে।

ভারতীয় আবহাওয়া বিভাগ জানায়, মুম্বাই থেকে ৬৯০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে ও সুরাট থেকে ৯২০ কিলোমিটার দক্ষিণ-পশ্চিমে গভীর নিম্নচাপ হিসেবে অবস্থান করছে নিসর্গ। ধীরে ধীরে এই নিম্নচাপ শক্তি বৃদ্ধি করে সাইক্লোনে রূপ নিচ্ছে।

বুধবার সন্ধ্যায়, সমুদ্র উপকূল হানা দিতে পারে নির্সগ। সেসময় বাতাসের গতিবেগ প্রতি ঘণ্টায় সর্বোচ্চ ১১৫ থেকে ১২৫ কিলোমিটার হতে পারে।

ভারতের গোয়া, মহারাষ্ট্র, গুজরাট ও কেরালায় প্রবল বৃষ্টিপাতের সম্ভাবনা রয়েছে।

এদিকে, আসন্ন ঘূর্ণিঝড় মোকাবিলায় মহারাষ্ট্রের প্রস্তুতি নিয়ে মুখ্যমন্ত্রী উদ্ধব ঠাকুরের সঙ্গে ভিডিও কনফারেন্সে আলোচনা করেছেন ভারতের কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ। ঘূর্ণিঝড় মোকাবিলায় কেন্দ্রের পক্ষ থেকে সবরকম সহায়তার প্রতিশ্রুতি দিয়েছেন তিনি।

করোনাভাইরাস মহামারির মধ্যে এই নিয়ে দ্বিতীয়বারের মতো ঘূর্ণিঝড় মোকাবিলা করতে যাচ্ছে ভারত।

এর আগে, গত ২০ মে ভারতের পশ্চিমবঙ্গে আছড়ে পড়ে সুপার সাইক্লোন আম্পান। ব্যাপক ক্ষয়ক্ষতি থেকে এখনো ঘুরে দাঁড়াতে পারেনি পশ্চিমবঙ্গের বাসিন্দারা।

আরব সাগরে তৈরি হওয়া ‘ঘূর্ণিঝড় নিসর্গ’ এর নামকরণ করেছে বাংলাদেশ।

Comments

The Daily Star  | English

Docs, engineers grab a third of civil admin jobs

The general cadre jobs in the civil service have become so lucrative that even medical and engineering graduates are queuing up for them, giving up careers in the two highly specialised fields.

9h ago