করোনা আপডেট: মানিকগঞ্জ, বরিশাল, ঝিনাইদহ

মানিকগঞ্জে জেলা সদর হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ২৬ বছর বয়সী এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। তথ্য গোপন করে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে করোনা রোগী ভর্তি হওয়ায় চিকিৎসক-নার্সসহ ১১ জন সংক্রমণের শিকার হয়েছেন বলে জানিয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। ইতোমধ্যে অর্থপেডিক বিভাগ লকডাউন করা হয়েছে। ঝিনাইদহে নতুন করে চিকিৎসকসহ দুই জনের করোনা শনাক্ত করেছে স্বাস্থ্য বিভাগ।
Coronavirus_New_Logo.jpg
ছবি: সংগৃহীত

মানিকগঞ্জে জেলা সদর হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ২৬ বছর বয়সী এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। তথ্য গোপন করে বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালে করোনা রোগী ভর্তি হওয়ায় চিকিৎসক-নার্সসহ ১১ জন সংক্রমণের শিকার হয়েছেন বলে জানিয়েছে হাসপাতাল কর্তৃপক্ষ। ইতোমধ্যে অর্থপেডিক বিভাগ লকডাউন করা হয়েছে। ঝিনাইদহে নতুন করে চিকিৎসকসহ দুই জনের করোনা শনাক্ত করেছে স্বাস্থ্য বিভাগ।

মানিকগঞ্জে জেলা সদর হাসপাতালের আইসোলেশন ওয়ার্ডে চিকিৎসাধীন অবস্থায় ২৬ বছর বয়সী এক যুবকের মৃত্যু হয়েছে। আজ রোববার সকাল পৌনে ৭টার দিকে তিনি মারা যান। হাসপাতালের তত্ত্বাবধায়ক ডা. আরশ্বাদ উল্লাহ এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, ‘জ্বর ও শ্বাসকষ্ট নিয়ে আজ সকাল সাড়ে ৬টার দিকে মানিকগঞ্জ সদর উপজেলার উকিয়ারা গ্রামের ওই যুবক হাসপাতালের জরুরি বিভাগে আসেন। শারীরিক অবস্থা পর্যবেক্ষণ করে কর্তব্যরত চিকিৎসক তাকে আইসোলেশন ওয়ার্ডে ভর্তি করেন। এর ১৫ মিনিটের মাথায় তার মৃত্যু হয়। তিনি করোনায় আক্রান্ত কি না তা নিশ্চিত হতে নমুনা সংগ্রহ করে সাভারে বাংলাদেশ প্রাণিসম্পদ গবেষণা ইনস্টিটিউটে পাঠানো হবে।’

মানিকগঞ্জে করোনায় আক্রান্ত আরও ২৬ জনকে শনাক্ত করেছে স্বাস্থ্য বিভাগ। এ নিয়ে জেলায় মোট শনাক্তের সংখ্যা ৩০৫ জনে দাঁড়িয়েছে। সিভিল সার্জন কার্যালয়ের চিকিৎসা কর্মকর্তা ডা. রফিকুন নাহার বন্যা বলেন, ‘নতুন শনাক্তদের মধ্যে সাটুরিয়া উপজেলায় বাড়ি নয় জনের, মানিকগঞ্জ সদরে ছয় জন, সিংগাইরের ছয় জন, দৌলতপুর উপজেলার তিন জন ও ঘিওর উপজেলায় বাড়ি দুই জনের।’

তথ্য গোপন করে শেবাচিমে করোনা রোগী, অর্থপেডিক বিভাগ লকডাউন

বরিশাল শের-ই-বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের চিকিৎসক-নার্সসহ ১১ জনের করোনা শনাক্ত হওয়ায় অর্থপেডিক বিভাগ লকডাউন করা হয়েছে। হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের দাবি, তথ্য গোপন করে করোনায় আক্রান্ত এক রোগী হাসপাতালে ভর্তি হয়েছিলেন।

হাসপাতালের অর্থপেডিক বিভাগের সার্জন ডা. সুদীপ হালদার দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, ‘করোনা পজেটিভ দুই রোগী তথ্য গোপন করে কয়েকদিন আগে অর্থপেডিক বিভাগে ভর্তি হন। বিষয়টি জানতে পেরে অর্থপেডিক বিভাগের প্রত্যেক চিকিৎসক, নার্স ও রোগীদের নমুনা সংগ্রহ করে মেডিকেল কলেজের পিসিআর ল্যাবে পাঠানো হয়। গতকাল নমুনা পরীক্ষার ফলাফল এলে ১১ জন আক্রান্ত বলে জানা যায়। যে কারণে পুরো অর্থপেডিক বিভাগ লকডাউন করা হয়েছে। তথ্য গোপন করে ভর্তি হওয়া দুই রোগীকে করোনা ওয়ার্ডে স্থানান্তর করা হয়েছে।’

শের-ই বাংলা মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের পরিচালক ডা. মো. বাকির হোসেন বলেন, ‘করোনায় আক্রান্ত দুই রোগী অর্থপেডিক বিভাগে ভর্তি হয়ে সাত দিন ধরে চিকিৎসা নিয়েছেন। অর্থপেডিক বিভাগ সাত দিনের জন্য বন্ধ করে মেডিসিন বিভাগের সঙ্গে যুক্ত করা হয়েছে।’

এর আগে তথ্য গোপন করে করোনায় আক্রান্ত রোগী চিকিৎসা নেওয়ায় মেডিসিন বিভাগ লকডাউন করে রাখা হয়েছিল।

ঝিনাইদহে আরও দুই জনের করোনা শনাক্ত

ঝিনাইদহে নতুন করে চিকিৎসকসহ দুই জনের করোনা শনাক্ত করেছে স্বাস্থ্য বিভাগ। তাদের বাড়ি কালীগঞ্জ উপজেলায়। আজ রোববার সকালে জেলা সিভিল সার্জন ডা. সেলিনা বেগম এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন। তিনি দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, ‘ঝিনাইদহে আজ নতুন ৭২টি নমুনা পরীক্ষার রিপোর্ট এসেছে।’

Comments

The Daily Star  | English
fire incident in dhaka bailey road

Fire Safety in High-Rise: Owners exploit legal loopholes

Many building owners do not comply with fire safety regulations, taking advantage of conflicting legal definitions of high-rise buildings, said urban experts after a deadly fire on Bailey Road claimed 46 lives.

2h ago