করোনাভাইরাস

২৪ ঘণ্টায় সর্বোচ্চ মৃত্যু ৪২, শনাক্ত আরও ২৭৪৩

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে আরও ৪২ জন মারা গেছেন। এটিই এক দিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ৮৮৮ জন। মোট ১৩ হাজার ১৩৬টি নমুনা পরীক্ষা করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত আরও দুই হাজার ৭৪৩ জনকে শনাক্ত করা হয়েছে। এ নিয়ে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে ৬৫ হাজার ৭৬৯ জনে দাঁড়াল।

গত ২৪ ঘণ্টায় দেশে আরও ৪২ জন মারা গেছেন। এটিই এখন পর্যন্ত একদিনে সর্বোচ্চ মৃত্যু। এ নিয়ে এখন পর্যন্ত মারা গেছেন ৮৮৮ জন। মোট ১৩ হাজার ১৩৬টি নমুনা পরীক্ষা করে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত আরও দুই হাজার ৭৪৩ জনকে শনাক্ত করা হয়েছে। এ নিয়ে শনাক্ত রোগীর সংখ্যা বেড়ে ৬৫ হাজার ৭৬৯ জনে দাঁড়াল। 

আজ রোববার দুপুর আড়াইটার দিকে করোনা পরিস্থিতি নিয়ে অনলাইনে স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের দৈনন্দিন স্বাস্থ্য বুলেটিনে এ তথ্য জানিয়েছেন স্বাস্থ্য অধিদপ্তরের অতিরিক্ত মহাপরিচালক (প্রশাসন) অধ্যাপক ডা. নাসিমা সুলতানা।

তিনি জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় দেশের ৫২টি ল্যাবে ১৩ হাজার ১৩৬টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে। এর মধ্যে দুই হাজার ৭৪৩ জন শনাক্ত হয়েছেন। পরীক্ষা বিবেচনায় শনাক্তের হার ২০ দশমিক ৮৮ শতাংশ। এ পর্যন্ত শনাক্ত হয়েছেন ৬৫ হাজার ৭৬৯ জন। মারা গেছেন আরও ৪২ জন। তাদের মধ্যে ৩৫ জন পুরুষ ও সাত জন নারী। বয়সভিত্তিক বিশ্লেষণে তাদের মধ্যে একজনের বয়স ২১-৩০ বছরের মধ্যে, সাত জনের বয়স ৩১-৪০ বছরের মধ্যে, নয় জনের বয়স ৪১-৫০ বছরের মধ্যে, সাত জনের বয়স ৫১-৬০ বছরের মধ্যে, ১৪ জনের বয়স ৬১-৭০ বছরের মধ্যে, তিন জনের বয়স ৭১-৮০ বছরের মধ্যে ও একজনের বয়স ৯১-১০০ বছরের মধ্যে। দেশে এখন পর্যন্ত করোনা আক্রান্ত হয়ে মৃত্যু মারা গেছেন ৮৮৮ জন।

তিনি আরও জানান, গত ২৪ ঘণ্টায় সুস্থ হয়েছেন আরও ৫৭৮ জন। এখন পর্যন্ত সুস্থ হয়েছেন ১৩ হাজার ৯০৩ জন। শনাক্ত বিবেচনায় সুস্থতার হার ২১ দশমিক ১৪ শতাংশ। 

এ পর্যন্ত মোট তিন লাখ ৯৭ হাজার ৯৮৭টি নমুনা পরীক্ষা করা হয়েছে।

উল্লেখ্য, গত ৮ মার্চ দেশে প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত হয় বলে জানায় সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর)। আর ১৮ মার্চ প্রথম একজনের মৃত্যুর সংবাদ জানানো হয়।

Comments

The Daily Star  | English
Bangladesh Reference Institute for Chemical Measurements (BRiCM) developed a dengue rapid antigen kit

Diagnose dengue with ease at home

People who suspect that they have dengue may soon breathe a little easier as they will not have to take on the hassle of a hospital visit to confirm or dispel the fear.

11h ago