করোনায় হৃদরোগ ইনস্টিটিউটের সহকারী অধ্যাপক ডা. মাহমুদ মনোয়ারের মৃত্যু

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালের (এনআইসিভিডি) কার্ডিওলজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডা. মাহমুদ মনোয়ার (৪৩) মারা গেছেন। আজ শুক্রবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে এনআইসিভিডির নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।
সহকারী অধ্যাপক ডা. মাহমুদ মনোয়ার। ছবি: সংগৃহীত

করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালের (এনআইসিভিডি) কার্ডিওলজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডা. মাহমুদ মনোয়ার (৪৩) মারা গেছেন। আজ শুক্রবার সকাল সাড়ে ৯টার দিকে এনআইসিভিডির নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

বিষয়টি দ্য ডেইলি স্টারকে নিশ্চিত করেছেন চিকিৎসকদের সংগঠন ফাউন্ডেশন ফর ডক্টরস সেফটি, রাইটস অ্যান্ড রেসপনসিবিলিটিসের (এফডিএসআর) যুগ্ম সম্পাদক ডা. রাহাত আনোয়ার চৌধুরী।

তিনি বলেন, ‘এ নিয়ে করোনায় আক্রান্ত হয়ে ২৮ জন চিকৎসক মারা গেলেন। গতকাল পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ১ হাজার ১৫৩ জন চিকিৎসককে শনাক্ত করা হয়েছে।’

করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া চিকিৎসক

এফডিএসআর’র তথ্য অনুযায়ী, এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে মারা গেছেন ২৮ জন চিকিৎসক।

করোনায় আক্রান্ত হয়ে মারা যাওয়া প্রথম চিকিৎসক হলেন— সিলেট এমএজি ওসমানী মেডিকেল কলেজ হাসপাতালের মেডিসিন বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডা. মঈন উদ্দিন। গত ১৫ এপ্রিল রাজধানীর কুর্মিটোলা জেনারেল হাসপাতালের নিবিড় পরিচর্যা কেন্দ্রে (আইসিইউ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় তার মৃত্যু হয়।

এরপর গত ৩ মে সন্ধ্যা ৬টার দিকে ঢাকার সম্মিলিত সামরিক হাসপাতালে (সিএমএইচ) চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান রক্তরোগ বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ডা. কর্নেল (অব.) মো. মনিরুজ্জামান। গত ১২ মে একই হাসপাতালে চিকিৎসাধীন অবস্থায় মারা যান অধ্যাপক ডা. আবুল মোকারিম।

১৮ মে মারা যান ডা. আজিজুর রহমান রাজু, ২২ মে মারা যান মৌলভীবাজারের প্রাক্তন সিভিল সার্জন ডা. এমএ মতিন, একই দিনে মারা যান গাইনি বিশেষজ্ঞ ডা. কাজী দিলরুবা খানম, ২৬ মে মারা যান সিনিয়র কনসালটেন্ট ডা. আব্দুর রহমান, একই দিনে মারা যান গাইনি বিশেষজ্ঞ ডা. আমিনা খান, ২৭ মে মারা যান অধ্যাপক ডা. মোশাররফ হোসেন, ২৮ মে মারা যান ডা. সাইদুল ইসলাম।

১ জুন মারা যান যক্ষ্মারোগ বিশেষজ্ঞ ডা. ওয়াহিদুজ্জামান আকন্দ বাবলু, ২ জুন মারা যান প্রখ্যাত ইউরোলজিস্ট ডা. মঞ্জুর রশীদ চৌধুরী, ৩ জুন মারা যান চট্টগ্রামের মেরিন সিটি মেডিকেল কলেজের সহযোগী অধ্যাপক (মেডিসিন) ডা. এহসানুল করিম। একই দিনে মারা যান ইব্রাহিম মেডিকেল কলেজের মাইক্রোবায়োলজি বিভাগের অধ্যাপক ডা. মোহাম্মদ মহিউদ্দীন ও ডিজি হেলথের অবসরপ্রাপ্ত ইভালুয়াটার অফিসার ডা. একেএম ওয়াহিদুল হক।

৪ জুন মারা গেছেন ফরেনসিক মেডিসিন বিশেষজ্ঞ অধ্যাপক ডা. হাবিবুর রহমান, চট্টগ্রাম মেডিকেল কলেজ (চমেক) হাসপাতালের ইমারজেন্সি মেডিকেল অফিসার ডা. মুহিদুল হাসান ও ডা. ইহসানুল কবির চৌধুরী। ৫ জুন মারা গেছেন বিএসএমএমইউয়ের ইউরোলজি বিভাগের সাবেক চেয়ারম্যান অধ্যাপক ডা. এসএমএ গোলাম কিবরিয়া। ৬ জুন মারা গেছেন ঢাকা ইপিজেড সাভারের অবসবপ্রাপ্ত সিনিয়র মেডিকেল অফিসার ডা. আবুল কাসেম খান। ৭ জুন মারা গেছেন স্কয়ার হাসপাতালের চিকিৎসক অধ্যাপক ডা. মির্জা নাজিম উদ্দিন। ৮ জুন মারা গেছেন অবসাপ্রাপ্ত সরকারি কর্মকর্তা ডা. রাজিয়া সুলতানা। একই দিনে মারা গেছেন ডা. সাখাওয়াত হোসেন।

৯ জুন মারা গেছেন বরিশালের রাহাত আনোয়ার হাসপাতালের চেয়ারম্যান ডা. আনোয়ার হোসেন ও ইমপালস হাসপাতালের সিনিয়র কনসালটেন্ট ডা. জলিলুর রহমান খান। ১০ জুন মারা গেছেন মেরি স্ট্রোপস ক্লিনিকের সিনিয়র মেডিকেল অফিসার ডা. তানজিলা রহমান।

সর্বশেষ আজ মারা গেলেন বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিব মেডিকেল বিশ্ববিদ্যালয়ের (বিএসএমএমইউ) পেডিয়াট্রিক সার্জারির অধ্যাপক ডা. গাজী জহিরুল হাসান ও জাতীয় হৃদরোগ ইনস্টিটিউট ও হাসপাতালের (এনআইসিভিডি) কার্ডিওলজি বিভাগের সহকারী অধ্যাপক ডা. মাহমুদ মনোয়ার।

করোনার উপসর্গ নিয়ে মারা যাওয়া চিকিৎসক

এখন পর্যন্ত করোনার উপসর্গ নিয়ে পাঁচ জন চিকিৎসক মারা গেছেন বলে জানিয়েছে এফডিএসআর। তারা হলেন— অধ্যাপক ডা. মাহবুবুল আলম, অধ্যাপক (অব.) আনিসুর রহমান, ডা. সারওয়ার ইবনে আজিজ, ডা. জাফর রুমি ও ডা. তাজউদ্দিন।

Comments

The Daily Star  | English

Cyclone Remal: Dhaka commuters suffer in morning rain

Under the influence of Cyclone Remal, heavy rain started to pour in different parts of the country, including Dhaka, along with gusty winds since this morning, making life difficult for commuters, especially the office-goers

6m ago