অধিনায়ক টেন্ডুলকার কেন সফল হননি, জানালেন মদন

ক্রিকেটারদের সর্বকালের সেরাদের তালিকা করলে নিঃসন্দেহে ভারতের কিংবদন্তি ব্যাটসম্যান শচিন টেন্ডুলকারের নাম থাকবে শুরুতে। ওয়ানডে ও টেস্ট দুই সংস্করণে সর্বোচ্চ রান সংগ্রহকারী এ ব্যাটসম্যান সেঞ্চুরির সেঞ্চুরি করে অবিশ্বাস্য এক রেকর্ড গড়েছেন। কিন্তু দলের সেরা খেলোয়াড় হয়েও অধিনায়ক হিসেবে তেমন সফল ছিলেন না। আর কেন ছিলেন না তার কারণ জানিয়েছেন সাবেক ভারতীয় ক্রিকেটার ও কোচ মদন লাল।
sachin tendulkar
ছবি: এএফপি

ক্রিকেটারদের সর্বকালের সেরাদের তালিকা করলে নিঃসন্দেহে ভারতের কিংবদন্তি ব্যাটসম্যান শচিন টেন্ডুলকারের নাম থাকবে শুরুতে। ওয়ানডে ও টেস্ট দুই সংস্করণে সর্বোচ্চ রান সংগ্রহকারী এ ব্যাটসম্যান সেঞ্চুরির সেঞ্চুরি করে অবিশ্বাস্য এক রেকর্ড গড়েছেন। কিন্তু দলের সেরা খেলোয়াড় হয়েও অধিনায়ক হিসেবে তেমন সফল ছিলেন না। আর কেন ছিলেন না তার কারণ জানিয়েছেন সাবেক ভারতীয় ক্রিকেটার ও কোচ মদন লাল।

১৯৭৪ সালে অভিষেক হওয়ার পর ১৯৮৭ পর্যন্ত আন্তর্জাতিক ক্রিকেট খেলেছেন মদন। এ সময়ে ৩৯ টেস্টের পাশাপাশি ৬৭ ওয়ানডে ম্যাচও খেলেন তিনি। ১৯৮৩ বিশ্বকাপ জয়ে রেখেছেন গুরুত্বপূর্ণ ভূমিকা। খেলা ছাড়ার পর ভারতীয় দলের কোচ ছিলেন ১৯৯৬ থেকে ১৯৯৭ পর্যন্ত। আর সময়েই ভারত জাতীয় দলের অধিনায়ক হন টেন্ডুলকার। তাই মদন খুব কাছ থেকেই দেখেছেন এ কিংবদন্তিকে।

সম্প্রতি ফেসবুক লাইভে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে টেন্ডুলকারের নেতৃত্ব সম্পর্কে মদন বলেছেন, 'শচিন ভালো অধিনায়ক ছিল না এটা আমি বিশ্বাস করি না। সমস্যাটা খুব সাধারণ। সে তখন নিজের পারফরম্যান্সেই মনযোগী ছিল এবং সে নিজের পারফরম্যান্সের অনেক যত্ন নিত। এ সময়ে তার জন্য দলের অন্য খেলোয়াড়দের যত্ন নেওয়া কঠিন হয়ে যায়।'

অধিনায়ক হিসেবে শুধু নিজেরই নয়, অন্য খেলোয়াড়দের সেরাটা বের করে আনার চেষ্টা করতে হয় বলে জানান মদন, 'অধিনায়ক হিসেবে আপনার নিজের পারফরম্যান্সের যত্ন নিতে হবে, পাশাপাশি দলের সব সতীর্থদের সেরা পারফরম্যান্স বের করে আনার চেষ্টা করতে হবে। মাঝে মধ্যে অধিনায়করা দলের জন্য খুব ভালো হয়। তারা শুধু দিকনির্দেশনা দেয়।'

'খেলাটাকে খুব ভালোভাবে পড়তে পারার অসাধারণ ক্ষমতা ছিল টেন্ডুলকারের এবং বলতে পারতো কোথায় দলের সমস্যা হচ্ছে এবং কীভাবে বল করতে হবে। সে এসব বিষয়ে দারুণ দক্ষ ছিল। কিন্তু মাঝে মধ্যে এমন হয় কঠিন পরিবেশে আপনি নিজের দিকে বেশি মনোযোগ দেন। এর মানে এই না যে সে ভালো অধিনায়ক ছিল না।' - যোগ করে আরও বলেন মদন।

১৯৯৬ সাল থেকে ২০০০ সাল পর্যন্ত ২৫টি টেস্ট ম্যাচে নেতৃত্ব দিয়েছেন টেন্ডুলকার। এর মধ্যে মাত্র ৪টি ম্যাচে জিততে পারে ভারত। আর ৭৩ ওয়ানডে ম্যাচে নেতৃত্ব দিয়ে জিতেছিলেন ২৩টিতে। আইপিএলেও মুম্বাই ইন্ডিয়ান্সের অধিনায়ক ছিলেন শচিন। তবে শিরোপার স্বাদ পাননি। ৫৫ ম্যাচে নেতৃত্ব দিয়ে ৩২টি জয় পেয়েছেন তিনি। ২০১৩ সালে আন্তর্জাতিক ক্রিকেটকে বিদায় জানান এ কিংবদন্তি।

Comments

The Daily Star  | English

Lifts at public hospitals: Where Horror Abounds

Shipon Mia (not his real name) fears for his life throughout the hours he works as a liftman at a building of Sir Salimullah Medical College, commonly known as Mitford hospital, in the capital.

8h ago