চট্টগ্রামের সড়কে করোনা চিকিৎসার বর্জ্য

করোনার বর্জ্য কীভাবে আলাদা ও সংরক্ষণ করতে হবে সে বিষয়ে পরিবেশ অধিদপ্তরের সুনির্দিষ্ট নির্দেশনা থাকা সত্ত্বেও করোনা রোগীদের চিকিৎসায় নিয়োজিত হাসপাতালগুলো যত্রতত্র বর্জ্য ছড়িয়ে যাচ্ছে।
Corona Waste.jpg
হাসপাতালের আশপাশের রাস্তায় করোনা রোগীদের চিকিৎসায় ব্যবহৃত সুই, সিরিঞ্জ, গজ কাপড়, ফেসমাস্ক, পিপিই, হ্যান্ডগ্লাভস, নেজাল সোয়াব, রক্তসহ নানা ধরনের বর্জ্য ছড়িয়ে থাকতে দেখা গেছে। ছবি: স্টার

করোনার বর্জ্য কীভাবে আলাদা ও সংরক্ষণ করতে হবে সে বিষয়ে পরিবেশ অধিদপ্তরের সুনির্দিষ্ট নির্দেশনা থাকা সত্ত্বেও করোনা রোগীদের চিকিৎসায় নিয়োজিত হাসপাতালগুলো যত্রতত্র বর্জ্য ছড়িয়ে যাচ্ছে।

চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতাল, বাংলাদেশ ইনস্টিটিউট অব ট্রপিক্যাল ইনফেকশাস ডিজিজ, হলি ক্রিসেন্ট হাসপাতাল, ইম্পেরিয়াল হাসপাতাল, বাংলাদেশ রেলওয়ে হাসপাতাল ও বঙ্গবন্ধু মেমোরিয়াল হাসপাতাল- এ পাঁচটি হাসপাতাল করোনা রোগীদের চিকিৎসায় নিয়োজিত থাকলেও পুরোদমে সেবা দিচ্ছে চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতাল।

এসব হাসপাতালের আশপাশের রাস্তায় করোনা রোগীদের চিকিৎসায় ব্যবহৃত সুই, সিরিঞ্জ, গজ কাপড়, ফেসমাস্ক, পিপিই, হ্যান্ডগ্লাভস, নেজাল সোয়াব, রক্তসহ নানা ধরনের বর্জ্য ছড়িয়ে থাকতে দেখা গেছে।

চট্টগ্রাম জেনারেল হাসপাতালে বড় ভাইকে চিকিৎসার জন্য নিয়ে আসা নগরীর চান্দগাঁও আবাসিক এলাকার বাসিন্দা শহিদুল ইসলাম স্বপন দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, ‘জেনারেল হাসপাতালের প্রবেশ পথে এসব বর্জ্য ছুড়ে ফেলা হচ্ছে, যা ভয়ংকর স্বাস্থ্য ঝুঁকি তৈরি করছে।’

শুরু থেকে বিশ্ব স্বাস্থ্য সংস্থা এসব বর্জ্যকে মানবস্বাস্থ্যের জন্য ভয়ংকর ঝুঁকি হিসেবে উল্লেখ করে বর্জ্যগুলো কীভাবে ব্যবস্থাপনা করতে হবে, তার সুনির্দিষ্ট গাইডলাইন দিয়েছে।

এরই আলোকে পরিবেশ অধিদপ্তর গত ১৩ জুন পাঁচটি নির্দেশনা জারিকৃত চিঠি দিয়েছে হাসপাতাল, ক্লিনিক ও ডায়াগনস্টিক সেন্টারগুলোকে।

নির্দেশনায় বলা আছে যে, প্রতিটি হাসপাতাল এসব বর্জ্য কীভাবে আলাদা করবে তার জন্য পরিচ্ছন্নতা কর্মীদের প্রশিক্ষণ দেবে। এসব বর্জ্য দুই স্তরবিশিষ্ট প্লাস্টিক ব্যাগের দুই-তৃতীয়াংশ ভর্তি করে ব্যাগের মুখ ভালোভাবে শক্ত করে বেঁধে এমন একটি বিনে রাখতে হবে, যার গায়ে লেখা থাকবে কোভিড-১৯ বর্জ্য।

জানতে চাইলে চট্টগ্রামের সিভিল সার্জন শেখ ফজলে রাব্বি দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, ‘মার্চে আমরা এ বিষয়ে হাসপাতালের পরিচ্ছন্নতা কর্মীদের প্রশিক্ষণ দিয়েছিলাম। তারা মনে হয় এখন সব ভুলে বসে আছেন।’

‘আমি হাসপাতালগুলোর সঙ্গে কথা বলে এ বিষয়ে ব্যবস্থা নেব’, বলেন তিনি।

পরিবেশ অধিদপ্তর চট্টগ্রাম মেট্রোর পরিচালক মোহাম্মদ নুরুল্লাহ নুরী দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, ‘এটি গর্হিত কাজ। হাসপাতালগুলো এ ধরনের বর্জ্য কোনোভাবেই সড়কে ফেলতে পারে না। এগুলো গাইডলাইন অনুযায়ী ডাম্প করতে হবে।’

‘আমি অভিযুক্ত হাসপাতালগুলোকে নোটিশ দেব। তারপর এদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে’, বলেন তিনি।

Comments

The Daily Star  | English

Bank Asia plans to acquire Bank Alfalah’s Bangladesh unit

Bank Asia is going to hold a meeting of its board of directors next Sunday and is likely to disclose the mater in detail, a senior official of Bank Asia said.

48m ago