প্যালেসকে উড়িয়ে শিরোপার সুবাস পাচ্ছে লিভারপুল

ম্যানচেস্টার সিটি নিজেদের আগামী ম্যাচে পয়েন্ট খোয়ালেই ১৯৮৯-৯০ মৌসুমের পর প্রথমবারের মতো চ্যাম্পিয়ন হওয়ার উল্লাসে মাতবে লিভারপুল।
liverpool
ছবি: এএফপি

তিন দশকের অপেক্ষা শেষ হলো বলে! ক্রিস্টাল প্যালেসের বিপক্ষে দুর্দান্ত জয়ে ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগের শিরোপা জয়ের খুব কাছে পৌঁছে গেছে লিভারপুল। দ্বিতীয় স্থানে থাকা ম্যানচেস্টার সিটি নিজেদের আগামী ম্যাচে পয়েন্ট খোয়ালেই ১৯৮৯-৯০ মৌসুমের পর প্রথমবারের মতো চ্যাম্পিয়ন হওয়ার উল্লাসে মাতবে তারা।

বুধবার রাতে ঘরের মাঠে প্যালেসকে ৪-০ গোলে উড়িয়ে দিয়েছে ইয়ুর্গেন ক্লপের দল। করোনাভাইরাসের ধাক্কা সামলে লিগ ফের চালু হওয়ার পর অ্যানফিল্ডে প্রথমবারের মতো খেলতে নেমেছিল তারা। দলটির হয়ে লক্ষ্যভেদ করেন ট্রেন্ট আলেকজান্ডার-আর্নল্ড, মোহামেদ সালাহ, ফাবিনহো ও সাদিও মানে।

আগের ম্যাচে মার্সিসাইড ডার্বিতে লিভারপুলের পারফরম্যান্স ছিল সাদামাটা। দলটির মাঝমাঠ ও আক্রমণভাগের তারকারা ছিলেন নিষ্প্রভ। তবে প্যালেসের বিপক্ষে শুরুর কয়েক মিনিটের খেলাতেই ইঙ্গিত পাওয়া যায়, এভারটনের বিপক্ষের ওই হোঁচট সামলে নিজেদের মেলে ধরতে মুখিয়ে তারা।

পয়েন্ট তালিকার নবম স্থানে থাকা প্যালেসের বিপক্ষে শুরু থেকে শেষ পর্যন্ত প্রাধান্য বিস্তার করে খেলেছে লিভারপুল। প্রতিপক্ষের গোলমুখে তারা নিয়েছে ২১টি শট, যার সাতটিই ছিল লক্ষ্যে।

salah
ছবি: এএফপি

ম্যাচের অষ্টম মিনিটে এগিয়ে যেতে পারত অলরেডরা। প্যালেসের রক্ষণভাগের ভুলের পর জর্জিনিয়ো ওয়াইনালডামের নেওয়া শট লক্ষ্যভ্রষ্ট হয়। দুই মিনিট পর দলটির অধিনায়ক জর্ডান হেন্ডারসনের জোরালো ভলিও লক্ষ্যে থাকেনি। ১৬তম মিনিটে ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড রবার্তো ফিরমিনোর কোণাকুণি শট সহজেই লুফে নেন অতিথি গোলরক্ষক।

সাত মিনিট পর অবসান হয় স্বাগতিকদের অপেক্ষার। ডি-বক্সের বেশ খানিকটা বাইরে থেকে ডান পায়ের বাঁকানো ফ্রি-কিকে লক্ষ্যভেদ করে দলকে এগিয়ে দেন রাইট ব্যাক আলেকজান্ডার-আর্নল্ড।

চার মিনিট পরই ব্যবধান দ্বিগুণ হতে পারত। বাম প্রান্ত থেকে অ্যান্ড্রু রবার্টসনের ক্রস প্যালেস গোলরক্ষক ওয়েইন হেনেসি ফিরিয়ে দিলেও বিপদমুক্ত করতে ব্যর্থ হন। এরপর ইংলিশ মিডফিল্ডার হেন্ডারসনের ফিরতি শট বাধা পায় পোস্টে।

৩৭তম মিনিটে নেদারল্যান্ডসের মিডফিল্ডার ওয়াইনালডাম ফাঁকায় পেয়ে গিয়েছিলেন বল। কিন্তু এবারও তিনি শট লক্ষ্যে রাখতে পারেননি। তিন মিনিট পর মাঝমাঠের গোলবৃত্তের কিছুটা সামনে থেকে অরক্ষিত জালে বল পাঠানোর চেষ্টা করেছিলেন সালাহ। মিশরের ফরোয়ার্ডের দূরপাল্লার শট গোলরক্ষকের মাথার উপর দিয়ে মাঠের বাইরে চলে যায়।

বিরতির কিছুক্ষণ আগে ব্যবধান দ্বিগুণ করে ম্যাচের নিয়ন্ত্রণ পুরোপুরি বুঝে নেওয়া লিভারপুল। দারুণ দক্ষতায় জাল কাঁপান সালাহ। ফাবিনহোর উঁচু করে বাড়ানো বল বুক দিয়ে নামিয়ে বাঁ পায়ের শটে চলতি লিগে নিজের ১৭তম গোলটি করেন তিনি।

mane
ছবি: এএফপি

দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে আবার স্কোরশিটে নাম লেখানোর সুযোগ এসেছিল সালাহর সামনে। লেফট ব্যাক রবার্টসনের ক্রসে পা ছোঁয়াতে পারেননি তিনি।

৫৫তম মিনিটে ডি-বক্সের বেশ খানিকটা বাইরে থেকে ডান পায়ের তীব্র গতির শটে প্যালেস গোলরক্ষককে পরাস্ত করেন ফাবিনহো। তার এই অসাধারণ গোলে লিভারপুলের জয় একরকম নিশ্চিত হয়ে যায়।

স্বাগতিকরা এরপর ছুটেছে জয়ের ব্যবধান বাড়াতে। ৫৭তম মিনিটে ওয়াইনালডামের শট সহজেই লুফে নেন হেনেসি। ৬৩তম মিনিটে সালাহর শট জালের ঠিকানা খুঁজে পায়নি। তবে ছয় মিনিট পর স্কোরলাইন ৪-০ করেন মানে। মাঝমাঠে সালাহর কাছ থেকে বল পেয়ে ডি-বক্সে ঢুকে কোণাকুণি নিচু শটে লক্ষ্যভেদ করেন সেনেগালের ফরোয়ার্ড।

৩১ ম্যাচে ৮৬ পয়েন্ট নিয়ে প্রিমিয়ার লিগের শীর্ষে রয়েছে লিভারপুল। এক ম্যাচ কম খেলা সিটির অর্জন ৬৩ পয়েন্ট। বৃহস্পতিবার রাতে পেপ গার্দিওলার দল মুখোমুখি হবে চেলসির। ম্যাচ শুরু বাংলাদেশ সময় রাত ১টা ১৫ মিনিটে।

Comments