লিভারপুলের শিরোপা জয়ে হৃদয়ে 'আঘাত' পেয়েছেন ম্যানইউ কোচ

দুই ক্লাবের মধ্যে সাপ-নেউলের সম্পর্ক। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী এ দুই দল। সেখানে রেকর্ড গড়ে লিগ শিরোপা ঘরে তুলেছে লিভারপুল। স্বাভাবিকভাবেই এটা সহ্য হওয়ার কথা নয় ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড সমর্থকদের। তাই অভিনন্দন জানালেও লিভারপুলের শিরোপা জয়ে যে 'আঘাত' পেয়েছেন তা গোপন করেননি ইউনাইটেড কোচ ওলে গানার সুলশার।
ছবি: এএফপি

দুই ক্লাবের মধ্যে সাপ-নেউলের সম্পর্ক। ইংলিশ প্রিমিয়ার লিগে চিরপ্রতিদ্বন্দ্বী এ দুই দল। সেখানে রেকর্ড গড়ে লিগ শিরোপা ঘরে তুলেছে লিভারপুল। স্বাভাবিকভাবেই এটা সহ্য হওয়ার কথা নয় ম্যানচেস্টার ইউনাইটেড সমর্থকদের। তাই অভিনন্দন জানালেও লিভারপুলের শিরোপা জয়ে যে 'আঘাত' পেয়েছেন তা গোপন করেননি ইউনাইটেড কোচ ওলে গানার সুলশার।

এক সময়ে ইংলিশ লিগে একক রাজত্বই ছিল লিভারপুলের। ১৯৮৯-৯০ সালেই দলটি ১৮তম লিগ শিরোপা জিতে। তখন পর্যন্ত ম্যানইউ শিরোপা জিততে পেরেছিলো মাত্র সাতটি। এরপর গত ৩০ বছর ধরে লিভারপুল শিরোপা বঞ্চিত থাকে। এ সময়ে ব্যবধান ঘুচায় ইউনাইটেড। আরও ১৩টি শিরোপা জিতে অলরেডদের ছাপিয়ে যায়। দীর্ঘদিন পর ফের ব্যবধান কমিয়েছে লিভারপুল। যদিও এখন পর্যন্ত একটি শিরোপা বেশি ইউনাইটেডের। তারপরও চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীদের উল্লাস 'ভালো লাগেনি' ইউনাইটেড কোচের।

আগের দিন চেলসির মাঠে ১-২ গোলের ব্যবধানে হারে ম্যানচেস্টার সিটি। আর ম্যাচে হারের পরই শিরোপা নিশ্চিত হয়ে যায় লিভারপুলের। আর চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীদের অভিনন্দন জানাতে এরপরই লাইভে আসেন ইউনাইটেড কোচ সুলশার, 'প্রথমত, যারা প্রিমিয়ার লিগ কিংবা চ্যাম্পিয়নশিপ জিতে তারা প্রাপ্য হিসেবেই জিতে, সব কৃতিত্ব তাদেরই। দারুণ কাজ করেছে ইয়ুর্গেন এবং তার খেলোয়াড়েরা।'

তবে এরপর নিজেদের কষ্টের কথা জানান ইউনাইটেড কোচ, 'যখনই প্রতিদ্বন্দ্বীদের শিরোপা উঁচিয়ে ধরতে দেখবেন সেটা আপনার হৃদয়ে আঘাত করবে। আমার ধারণা এমনটা এখন ম্যানচেস্টার ইউনাইটেডের সবার মধ্যেই হচ্ছে -খেলোয়াড় এবং সমর্থকদের মধ্যেও। আমাদেরও জয়ের পথে ফিরতে হবে এবং এটা আমাদের চ্যালেঞ্জ।'

তবে এবার কল্পনার মতো সব নিজেদের করে নিয়েছে লিভারপুল। লিগে এখনও বাকি সাত ম্যাচ। এরমধ্যেই শিরোপা নিশ্চিত করে ফেলেছে দলটি। ইংলিশ লিগের ইতিহাসে এমনটি করে দেখাতে পারেনি কেউ। মাঝে রেকর্ড পরিমাণ টানা ২৩টি ম্যাচেও জিতেছিল তারা। ৩১ ম্যাচেই ৮৬ পয়েন্ট তাদের। যে গতিতে আগাচ্ছে দলটি তাতে গড়তে পারে পয়েন্ট সংগ্রহের নতুন রেকর্ড। শেষ সাত ম্যাচ থেকে ১৫ পয়েন্ট পেলেই ম্যানচেস্টার সিটির সর্বোচ্চ ১০০ পয়েন্টের রেকর্ড ভাঙবে তারা। আর এমন জয় চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীদের হৃদয়ে 'আঘাত' তো হানবেই।

Comments