করোনাভাইরাস

বিশ্বে মৃত্যু ৫ লাখ, যুক্তরাষ্ট্রে ১ লাখ ২৫ হাজারের বেশি

বিশ্বব্যাপী প্রতিনিয়ত মহামারি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা বাড়ছে। ইতোমধ্যে পাঁচ লাখেরও বেশি মানুষ মারা গেছেন। আক্রান্ত হয়েছেন এক কোটির বেশি। এ ছাড়া, সুস্থও হয়েছেন ৫১ লাখের বেশি মানুষ।
বেইজিংয়ে আবারও করোনার প্রাদুর্ভাব দেখা দিয়েছে। যে কারণে পরীক্ষার জন্য নমুনা সংগ্রহ করছেন স্বাস্থ্যকর্মীরা। ২৮ জুন ২০২০। ছবি: রয়টার্স

বিশ্বব্যাপী প্রতিনিয়ত মহামারি করোনাভাইরাসে আক্রান্ত ও মৃতের সংখ্যা বাড়ছে। ইতোমধ্যে পাঁচ লাখেরও বেশি মানুষ মারা গেছেন। আক্রান্ত হয়েছেন এক কোটির বেশি। এ ছাড়া, সুস্থও হয়েছেন ৫১ লাখের বেশি মানুষ।

আজ সোমবার জনস হপকিনস ইউনিভার্সিটির করোনাভাইরাস রিসোর্স সেন্টার এ তথ্য জানিয়েছে।

জনস হপকিনস ইউনিভার্সিটির সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, বিশ্বব্যাপী করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়েছেন এক কোটি এক লাখ ১৭ হাজার ৭০০ জন এবং মারা গেছেন পাঁচ লাখ এক হাজার ২৮১ জন। এ ছাড়া, সুস্থ হয়েছেন ৫১ লাখ ২৩ হাজার ৮২৭ জন।

করোনাভাইরাসে সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত ও মৃত্যু যুক্তরাষ্ট্রে। দেশটিতে আক্রান্ত হয়েছেন ২৫ লাখ ৪৮ হাজার ৯৯১ জন এবং মারা গেছেন এক লাখ ২৫ হাজার ৮০৩ জন। এ ছাড়া, সুস্থ হয়েছেন ৬ লাখ ৮৫ হাজার ১৬৪ জন।

যুক্তরাষ্ট্রের পর সবচেয়ে বেশি আক্রান্ত ও মৃত্যু দক্ষিণ আমেরিকার দেশ ব্রাজিলে। দেশটিতে আক্রান্ত হয়েছেন ১৩ লাখ ৪৪ হাজার ১৪৩ জন, মারা গেছেন ৫৭ হাজার ৬২২ জন এবং সুস্থ হয়েছেন সাত লাখ ৪৬ হাজার ১৮ জন।

মৃত্যুর সংখ্যার দিক থেকে তৃতীয়তে রয়েছে যুক্তরাজ্য। দেশটিতে করোনাভাইরাসে আক্রান্ত হয়ে এখন পর্যন্ত ৪৩ হাজার ৬৩৪ জন মারা গেছেন। আক্রান্ত হয়েছেন তিন লাখ ১২ হাজার ৬৪০ জন। এ ছাড়া, সুস্থ হয়েছেন ১ হাজার ৩৬৪ জন।

করোনাভাইরাসের সংক্রমণ বাড়ছে রাশিয়া, পেরু ও চিলিতেও। রাশিয়ায় এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন ছয় লাখ ৩৩ হাজার ৫৬৩ জন এবং মারা গেছেন নয় হাজার ৬০ জন। এ ছাড়া, সুস্থ হয়েছেন তিন লাখ ৯৮ হাজার ৪৩৬ জন। পেরুতে আক্রান্ত হয়েছেন দুই লাখ ৭৯ হাজার ৪১৯ জন এবং মারা গেছেন নয় হাজার ৩১৭ জন। এ ছাড়া, সুস্থ হয়েছেন এক লাখ ৬৭ হাজার ৯৯৮ জন। চিলিতে আক্রান্ত হয়েছেন দুই লাখ ৭১ হাজার ৯৮২ জন এবং মারা গেছেন পাঁচ হাজার ৫০৯ জন। এ ছাড়া, সুস্থ হয়েছেন দুই লাখ ৩২ হাজার ২১০ জন।

প্রতিবেশী দেশ ভারতে আক্রান্ত হয়েছেন পাঁচ লাখ ২৮ হাজার ৮৫৯ জন, মারা গেছেন ১৬ হাজার ৯৫ জন এবং সুস্থ হয়েছেন তিন লাখ নয় হাজার ৭১৩ জন।

ইউরোপের দেশ স্পেনে এখন পর্যন্ত আক্রান্ত হয়েছেন দুই লাখ ৪৮ হাজার ৭৭০ জন, মারা গেছেন ২৮ হাজার ৩৪৩ জন এবং সুস্থ হয়েছেন এক লাখ ৫০ হাজার ৩৭৬ জন। ইতালিতে আক্রান্ত হয়েছেন দুই লাখ ৪০ হাজার ৩১০ জন, মারা গেছেন ৩৪ হাজার ৭৩৮ জন এবং সুস্থ হয়েছেন এক লাখ ৮৮ হাজার ৮৯১ জন। ফ্রান্সে আক্রান্ত হয়েছেন এক লাখ ৯৯ হাজার ৪৭৬ জন, মারা গেছেন ২৯ হাজার ৭৮১ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ৭৫ হাজার ৭৭৪ জন। জার্মানিতে আক্রান্ত হয়েছেন এক লাখ ৯৪ হাজার ৬৯৩ জন, মারা গেছেন আট হাজার ৯৬৮ জন এবং সুস্থ হয়েছেন এক লাখ ৭৭ হাজার ৬৫৭ জন।

মধ্যপ্রাচ্যের দেশ ইরানে আক্রান্ত হয়েছেন দুই লাখ ২২ হাজার ৬৬৯ জন, মারা গেছেন ১০ হাজার ৫০৮ জন এবং সুস্থ হয়েছেন এক লাখ ৮৩ হাজার ৩১০ জন। তুরস্কে আক্রান্ত হয়েছেন এক লাখ ৯৭ হাজার ২৩৯ জন, মারা গেছেন পাঁচ হাজার ৯৭ জন এবং সুস্থ হয়েছেন এক লাখ ৭০ হাজার ৫৯৫ জন।

ভাইরাসটির সংক্রমণস্থল চীনে আক্রান্ত হয়েছেন ৮৪ হাজার ৭৫৭ জন, মারা গেছেন ৪ হাজার ৬৪১ জন এবং সুস্থ হয়েছেন ৭৯ হাজার ৬০৯ জন।

উল্লেখ্য, গত ৮ মার্চ বাংলাদেশে প্রথম করোনাভাইরাসে আক্রান্ত রোগী শনাক্ত করে সরকারের রোগতত্ত্ব, রোগনিয়ন্ত্রণ ও গবেষণা প্রতিষ্ঠান (আইইডিসিআর)। প্রতিষ্ঠানটির সর্বশেষ তথ্য অনুযায়ী, দেশে এখন পর্যন্ত করোনাভাইরাসে আক্রান্ত এক লাখ ৩৭ হাজার ৭৮৭ জনকে শনাক্ত করা হয়েছে। মারা গেছেন এক হাজার ৭৩৮ জন। এ ছাড়া, সুস্থ হয়েছেন ৫৫ হাজার ৭২৭ জন।

Comments

The Daily Star  | English

Hasina mourns death of Iran President Ebrahim Raisi

Hasina conveyed her condolence in a letter to interim president of Islamic Republic of Iran Mohammad Mokhber

2h ago