পাপুলের কোম্পানির সঙ্গে কুয়েত বিমানবন্দরের চুক্তি বাতিল

অর্থপাচার ও ভিসা বাণিজ্যে জড়িতের দায়ে অভিযুক্ত বাংলাদেশি সংসদ সদস্য কাজী মোহাম্মদ শহিদ ইসলাম পাপুলের কোম্পানির সঙ্গে কুয়েত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর পরিচ্ছন্নতা সেবা চুক্তি বাতিল করেছে দেশটির সেন্ট্রাল এজেন্সি ফর পাবলিক টেন্ডার।
কাজী শহীদুল ইসলাম পাপুল | ছবি: সংগৃহীত

অর্থপাচার ও ভিসা বাণিজ্যে জড়িতের দায়ে অভিযুক্ত বাংলাদেশি সংসদ সদস্য কাজী মোহাম্মদ শহিদ ইসলাম পাপুলের কোম্পানির সঙ্গে কুয়েত আন্তর্জাতিক বিমানবন্দর পরিচ্ছন্নতা সেবা চুক্তি বাতিল করেছে দেশটির সেন্ট্রাল এজেন্সি ফর পাবলিক টেন্ডার।

গতকাল মঙ্গলবার আরব টাইমসের এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানানো হয়েছে।

মারাফি কুয়েতিয়া গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক ও প্রধান নির্বাহী কর্মকর্তা কাজী মোহাম্মদ শহিদ ইসলাম পাপুল গত ৬ জুন গ্রেপ্তার হয়ে অন্য সন্দেহভাজনদের সঙ্গে নিরাপত্তা কর্তৃপক্ষের হেফাজতে আছেন।

কুয়েতের পাবলিক প্রসিকিউটরদের কাছে জবানবন্দিতে বাংলাদেশি এই সংসদ সদস্য স্বীকার করেছেন যে, তিনি চাকরির চুক্তি পেতে ও বেশিরভাগ বাংলাদেশি শ্রমিক নিয়োগের জন্য কুয়েতি কর্মকর্তাদের কয়েক মিলিয়ন ডলার ঘুষ দিয়েছেন।

সূত্রের বরাত দিয়ে আরব টাইমস জানিয়েছে, এ বিষয়ে ব্যাখ্যায় কুয়েতের সেন্ট্রাল এজেন্সি ফর পাবলিক টেন্ডার বলছে, পাবলিক অথরিটি অব ম্যানপাওয়ার (পিএএম) ভিত্তিক কোম্পানিটির মালিকদের একজন অভিযুক্ত এবং তার বিরুদ্ধে তদন্ত চলমান থাকায় সিভিল এভিয়েশন অধিদপ্তরের (ডিজিসিএ) সঙ্গে চুক্তি বাতিল করা হয়েছে।

সূত্র নিশ্চিত করেছে, বিমানবন্দরের সঙ্গে চুক্তি বাতিল করলেও কুয়েত সরকারের অনেক প্রতিষ্ঠানের সঙ্গে পরিচ্ছন্নতা সেবা প্রদানের চুক্তি রয়েছে পাপুলের চার কোম্পানি একটির। এখনো সেগুলো বলবত আছে।

ইতোমধ্যে পাবলিক প্রসিকিউটরের সিদ্ধান্তে ওই কোম্পানিগুলোর অ্যাকাউন্ট জব্দ করা হয়েছে। এ কারণে চুক্তিগুলোর বিষয়ে দ্রুত সিদ্ধান্ত নেওয়া প্রয়োজন বলে জানিয়েছে সূত্র।

তারা আরও জানিয়েছে, সাধারণ পরিচ্ছন্ন কর্মীদের বেতন পরিশোধে ব্যর্থতা তাদের ধর্মঘটে যেতে প্ররোচিত করতে পারে এবং এটি সরকারি সংস্থাগুলোর কাজের ক্ষতি করতে পারে।

Comments