সাবেক উপদেষ্টা স্টোনের সাজা মওকুফ করলেন ট্রাম্প

সাবেক উপদেষ্টা ও বন্ধু রজার স্টোনের কারাদণ্ড মওকুফ করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। কংগ্রেসে মিথ্যা বলা, কাজে বাধা দেওয়া ও সাক্ষীদের প্রভাবিত করার দায়ে স্টোনকে ৪০ মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছিল।
রজার স্টোন। ফাইল ফটো রয়টার্স

সাবেক উপদেষ্টা ও বন্ধু রজার স্টোনের কারাদণ্ড মওকুফ করেছেন মার্কিন প্রেসিডেন্ট ডোনাল্ড ট্রাম্প। কংগ্রেসে মিথ্যা বলা, কাজে বাধা দেওয়া ও সাক্ষীদের প্রভাবিত করার দায়ে স্টোনকে ৪০ মাসের কারাদণ্ড দেওয়া হয়েছিল।

বিবিসি জানায়, যুক্তরাষ্ট্রের ২০১৬ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে রাশিয়ার সংশ্লিষ্টতা নিয়ে জাস্টিস ডিপার্টমেন্টের তদন্তে ট্রাম্প প্রশাসনের যে ছয়জন কর্মকর্তা দোষী সাব্যস্ত হয়েছিলেন, রজার স্টোন তাদের একজন।

জর্জিয়ার জেসাপের ফেডারেল জেলখানায় ৬৭ বছর বয়সী রজার স্টোনের আগামী মঙ্গলবার থেকে শাস্তির মেয়াদ শুরু হতে যাচ্ছিল।

শনিবার, হোয়াইট হাউস এক বিবৃতিতে জানায়, ‘ট্রাম্প প্রশাসনকে বির্তকিত করতে কয়েক বছর ধরে চলা বামপন্থী শক্তি ও মিডিয়ায় তাদের (বামপন্থীদের) মিত্রদের মাধ্যমে রাশিয়ার প্রতারণার শিকার হয়েছেন রজার স্টোন।’

বিবৃতিতে আরো বলা হয়েছে, ক্রেমলিনের সঙ্গে ট্রাম্পের প্রচারণা দলের সম্পৃক্ততা থাকার যে ‘কাল্পনিক’ অভিযোগ আনা হয়েছে, তা প্রমাণে ব্যর্থ হওয়ার পর আইন মন্ত্রণালয়ের স্পেশাল কাউন্সেলর রবার্ট মুয়েলার নিজের ‘হতাশা’ থেকে রজার স্টোনকে অভিযুক্ত করেছেন।

হোয়াইট হাউজ জানায়, রজার স্টোনের বাড়ি ঘেরাও করার আগেই সিএনএনকে জানিয়েছিল এফবিআই। এর ফলে বাড়ি ঘেরাওয়ের দিন রজার স্টোনকে গ্রেপ্তারের দৃশ্য সিএনএনের সংবাদকর্মীরা ক্যামেরাবন্দি করেন।

বিবৃতিতে বলা হয়েছে, ‘রজার স্টোন ইতোমধ্যে যথেষ্ট শাস্তি পেয়েছেন। এ ঘটনায় অন্য আরো অনেকের মতো তার সঙ্গেও খুব অন্যায় আচরণ করা হয়েছে। রজার স্টোন এখন স্বাধীন একজন মানুষ।’

গত কয়েক মাস ধরেই তার শাস্তি মওকুফের ইঙ্গিত দিয়ে আসছিলেন প্রেসিডেন্ট ট্রাম্প। বিশেষ করে, বৃহস্পতিবার রাতে ফক্স নিউজকে দেওয়া এক সাক্ষাৎকারে ঘনিষ্ঠ বন্ধুর সাজা মওকুফের ইঙ্গিত দেন তিনি।

বিবিসি জানায়, ২০১৬ সালের প্রেসিডেন্ট নির্বাচনে ডোনাল্ড ট্রাম্পের প্রতিদ্বন্দ্বী হিলারি ক্লিনটনের কিছু ‘ক্ষতিকর’ ইমেইল প্রকাশের ব্যাপারে উইকিলিকসের সঙ্গে স্টোন যোগাযোগের চেষ্টা করেছেন বলে অভিযোগ ওঠে। হাউজ ইন্টেলিজেন্সে মিথ্যা বলার অভিযোগে দোষী প্রমাণিতও হন তিনি।

মার্কিন গোয়েন্দা কর্মকর্তারা ওই ইমেইলগুলো রুশ হ্যাকারদের মাধ্যমে চুরি করা হয়েছে বলে জানান।

২০১৬ সালে নির্বাচনী প্রচারণার সময় উইকিলিকসের প্রতিষ্ঠাতা জুলিয়ান অ্যাসাঞ্জের সঙ্গে যোগাযোগ করার কথা স্বীকার করেন স্টোন ।

উইকিলিকসের ওয়েবসাইটটিতে ডেমোক্র্যাটিক ন্যাশনাল কমিটির সার্ভার থেকে হ্যাক হওয়া ১৯ হাজারেরও বেশি ইমেল প্রকাশ করা হবে বলেও আগে থেকে জানতেন তিনি।

শুক্রবার, প্রেসিডেন্টের ক্ষমতাবলে রজার স্টোনের সাজা মওকুফের ঘটনায় সন্তোষ প্রকাশ করেছেন স্টোনের পক্ষের আইনজীবীরা।

এদিকে, ট্রাম্পের এমন সিদ্ধান্তে সমালোচনার ঝড় উঠেছে যুক্তরাষ্ট্রজুড়ে। বিরোধীদল ডেমোক্র্যাটরা একে ‘যুক্তরাষ্ট্রের ইতিহাসের একটি কালো দিন’ বলে উল্লেখ করেছেন।

Comments

The Daily Star  | English

Israel fumes as Ireland recognises Palestine

Following Ireland, at least two more European countries today announced they will follow recognise a Palestine state, drawing a strong response from Israel.

36m ago