করোনায় যমুনা গ্রুপের চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম বাবুলের মৃত্যু

যমুনা গ্রুপের চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম বাবুল মারা গেছেন। তার বয়স হয়েছিল ৭৪ বছর।
নুরুল ইসলাম বাবুল। ছবি: সংগৃহীত

যমুনা গ্রুপের চেয়ারম্যান নুরুল ইসলাম বাবুল মারা গেছেন। তার বয়স হয়েছিল ৭৪ বছর।

আজ সোমবার বিকেল ৩:৪০ মিনিটে রাজধানীর এভারকেয়ার হাসপাতাল (সাবেক অ্যাপোলো) এ তিনি মারা যান।

যমুনা গ্রুপের পরিচালক ড. মোহাম্মদ আলমগীর আলম দ্য ডেইলি স্টারকে এ তথ্য নিশ্চিত করেন। তিনি জানান, গত ১৪ জুন করোনা শনাক্তের পর হাসপাতালে চিকিৎসাধীন ছিলেন নুরুল ইসলাম বাবুল। কভিড-১৯ ছাড়াও কিডনি জটিলতা ছিল তার।

দৈনিক যুগান্তর ও যমুনা টেলিভিশনের প্রতিষ্ঠাতা নুরুল ইসলাম দেশের একজন শীর্ষ ব্যবসায়ী। তার স্ত্রী সাবেক মহিলা ও শিশু বিষয়ক প্রতিমন্ত্রী ও সংসদ সদস্য সালমা ইসলাম, ছেলে শামীম ইসলাম যমুনা গ্রুপের ব্যবস্থাপনা পরিচালক এবং তিন মেয়ে রোজালিন ইসলাম, মনিকা ইসলাম ও সোনিয়া ইসলাম।

নুরুল ইসলাম বাবুলের চিকিৎসার জন্য হাসপাতালে দশ সদস্যের একটি মেডিকেল বোর্ড গঠন করা হয়। এছাড়া চীন থেকে চার জন বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক ও সিঙ্গাপুরের মাউন্ট এলিজাবেথ হাসপাতালের দুই বিশেষজ্ঞ চিকিৎসক টেলিকনফারেন্সের মাধ্যমে তার চিকিত্সার পরামর্শ দেন।

আগামীকাল যমুনা ফিউচার পার্ক মসজিদে জোহরের নামাজ শেষে জানাজার পর, তাকে বনানী কবরস্থানে দাফন করা হবে।

স্পিকার শিরীন শারমিন চৌধুরী, সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের, অর্থমন্ত্রী আ হ ম মোস্তফা কামাল, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী আসাদুজ্জামান খাঁনসহ বিভিন্ন রাজনৈতিক, সামাজিক ও ব্যবসায়ী সংগঠনের শীর্ষ নেতারা তার মৃত্যুতে শোক জানিয়েছেন।

পৃথক শোক বার্তায় তারা বলেন, বাংলাদেশের আধুনিকায়নে তার মতো উদ্যোক্তার প্রয়োজন ছিল। এই সময় তার চলে যাওয়া দেশের জন্য এক অপূরণীয় ক্ষতি।

১৯৭৪ সালে যমুনা ইলেকট্রিক ম্যানুফ্যাকচারিং কোম্পানি লিমিটেডের মাধ্যমে যমুনা গ্রুপের যাত্রা শুরু হয়। দীর্ঘ এ যাত্রায় যমুনার অধীনে ২৪টি বৃহৎ শিল্প প্রতিষ্ঠান গড়ে ওঠে।

যমুনা গ্রুপের পরিচালক মোহাম্মদ আলমগীর আলম দ্য ডেইলি স্টারকে বলেন, 'কর দিয়ে এবং বিপুল সংখ্যক লোকের কর্মসংস্থানের সুযোগ তৈরি করে যমুনা গ্রুপ দেশের অর্থনীতিতে গুরুত্বপূর্ণ অবদান রাখছে। যমুনা গ্রুপের বিভিন্ন প্রতিষ্ঠানে সব মিলিয়ে এক লাখেরও বেশি লোক কাজ করে।'

টেক্সটাইল, রিয়েল এস্টেট থেকে শুরু করে ৩৮টি ব্যবসায়িক খাতে যমুনা গ্রুপের বিনিয়োগ রয়েছে।

৩৪ বছরেরও বেশি সময় ধরে যমুনা গ্রুপ- বিদ্যুৎ, প্রকৌশল, রাসায়নিক, চামড়া, পোশাক, টেক্সটাইল, প্রসাধন সামগ্রী, পানীয়, রিয়েল এস্টেট, আবাসন, প্রিন্ট ও ইলেকট্রনিক মিডিয়াসহ বিভিন্ন খাতে দেশে-বিদেশে ব্যবসা করছে।

Comments