বৃষ্টিবিঘ্নিত দিনে বাবরের ব্যাটে দ্যুতি

সারাদিনে খেলা হলো মোট ৪৯ ওভার। বৃষ্টিতে লম্বা সময় ভেসে যাওয়ার পর আলোক স্বল্পতায় দিন ফুরিয়েছে আগেভাগে। প্রকৃতির মুখ গোমরা করে রাখার দিনে পাকিস্তানের হয়ে হেসেছে তাদের সেরা ব্যাটসম্যান বাবর আজমের ব্যাট
Babar Azam
বুধবার ওল্ড ট্র্যাফোর্ডে বাবর আযমের ব্যাটে দেখা গেছে দ্যুতি, ছবি: এএফপি

সারাদিনে খেলা হলো মোট ৪৯ ওভার। বৃষ্টিতে লম্বা সময় ভেসে যাওয়ার পর আলোক স্বল্পতায় দিন ফুরিয়েছে আগেভাগে। প্রকৃতির মুখ গোমরা করে রাখার দিনে পাকিস্তানের হয়ে হেসেছে তাদের সেরা ব্যাটসম্যান বাবর আজমের ব্যাট। সঙ্গী শান মাসুদকে নিয়ে বড় জুটিতে দলকে এগিয়ে নিচ্ছেন তিনি।

বুধবার ম্যানচেস্টারের ওল্ড ট্রাফোর্ডে ইংল্যান্ডের বিপক্ষে প্রথম টেস্টের প্রথম দিনটি বলা যায় পাকিস্তানেরই। ৪৯ ওভার ব্যাট করে ২ উইকেটে ১৩৯ রান নিয়ে দিন শেষ করেছে তারা।

১০০ বলে ৬৯ রান করে ব্যাট করছেন বাবর, ১৫২ বলে ৪৬ রান নিয়ে তার সঙ্গী শান।

উইকেটে রান দেখে টস জিতে ব্যাটিং বেছে নিয়েছিলেন পাকিস্তান অধিনায়ক আজহার আলি। তবে প্রথম ঘণ্টা দেড়েকে তার সিদ্ধান্ত বুমেরাং হতে চলেছিল। দুই ওপেনার শান মাসুদ আর আবিদ আলি ধীরলয়ে শুরু করেন। জেমস অ্যান্ডারসন আর স্টুয়ার্ট ব্রডের প্রথম স্পেল সামলে ফেলেন ক্রিজে পড়ে থাকার দৃঢ়তায়।

১৬তম ওভারে আবিদকে বোল্ড করে প্রথম ব্রেক থ্রো আনেন জোফরা আর্চার। তখন বোর্ডে পাকিস্তানের রান কেবল ৩৬। এর তিন ওভার পরই আরেক সাফল্য। অধিনায়ক আজহার কোন রান না করেই এলবিডব্লিউ হয়ে বিদায় নেন ক্রিস ওউকসের বলে।

৪৩ রানে ২ উইকেট হারানো দলকে ঠিক পথে রাখে বাবরের ব্যাট। দৃষ্টিনন্দন শটে দাপট দেখাতে থাকেন তিনি। শানের মন্থর গতির ব্যাটিংয়ের পাশে স্ট্রোক ঝলমলে ইনিংসের পশরা মেলে ধরেন তিনি।

তৃতীয় উইকেট জুটির ৯৬ রানের ৬৯ রানই এসেছে বাবরের ব্যাট থেকে। এরমধ্যে ১১ বাউন্ডারি মেরে ইংল্যান্ডের মাঠে সেঞ্চুরির অপেক্ষায় এই ডানহাতি।

সংক্ষিপ্ত স্কোর:

পাকিস্তান প্রথম ইনিংস : ৪৯ ওভারে ১৩৯/২ (শান ৪৬*, আবিদ ১৬, আজহার ০, বাবর ৬৯* ; অ্যান্ডারসন ০/৩২,  ব্রড ০/২৪, ওউকস ১/১৪, আর্চার ১/২৩, বেস ০/৩০   , রুট ০/৯ )

Comments

The Daily Star  | English

Fixed expenses to eat up 40pc of next budget

The government has to spend about 40 percent of the next budget on subsidies, interest payments, and salaries and allowances of government employees, which will limit its ability to spend on social safety net, health and education.

50m ago