পাকিস্তানে ক্রিকেট ম্যাচে সন্ত্রাসীদের ব্যাপক গুলিবর্ষণ

একটি আঞ্চলিক ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ফাইনাল পণ্ড হয়ে গেছে সন্ত্রাসীদের ব্যাপক গুলিবর্ষণে।
pakistan and sri lanka
ফাইল ছবি: এএফপি

পাকিস্তান ক্রিকেট বোর্ডের (পিসিবি) চেয়ারম্যান এহসান মানি দেশটিকে ‘নিরাপদ’ হিসেবে উল্লেখ করার দিনেই ফের সন্ত্রাসী হামলা হয়েছে সেখানকার একটি ক্রিকেট ম্যাচে।

দেশটির গণমাধ্যম দ্য নিউজ তাদের একটি প্রতিবেদনে বলেছে, বৃহস্পতিবার খাইবার পাখতুনখাওয়া প্রদেশের কোহাট বিভাগের ওরাকজাই জেলার দ্রাদার মামাজাই অঞ্চলে আমন ক্রিকেট টুর্নামেন্টের ফাইনাল পণ্ড হয়ে গেছে সন্ত্রাসীদের ব্যাপক গুলিবর্ষণে। তবে হতাহতের কোনো খবর এখন পর্যন্ত পাওয়া যায়নি।

প্রত্যক্ষদর্শীদের বরাতে দ্য নিউজ জানিয়েছে, ছানায় গ্রাউন্ড নামের মাঠে আঞ্চলিক টুর্নামেন্টটির ফাইনাল দেখতে রাজনৈতিক কর্মী ও গণমাধ্যম কর্মীসহ বিপুল সংখ্যক দর্শক উপস্থিত হয়েছিলেন। জামায়েত উলামায়ে-ই-ইসলামের স্থানীয় নেতা হাজী কাসিম গুল ছিলেন প্রধান অতিথি। কিন্তু খেলা চালু হতে না হতেই মাঠের নিকটবর্তী একটি পাহাড় থেকে সন্ত্রাসীরা এলোপাতাড়ি গুলিবর্ষণ শুরু করে। তবে খেলোয়াড়, সংবাদকর্মী, দর্শকসহ সবাই ঘটনাস্থল থেকে পালিয়ে নিজেদের প্রাণ বাঁচাতে সক্ষম হন।

মাঠে উপস্থিত থাকা একজন দর্শক জানান, সন্ত্রাসীরা এত বেশি গুলি ছুঁড়ছিল যে ফাইনাল বাতিল করে দেওয়া ছাড়া আর কোনো উপায় ছিল না টুর্নামেন্টটির আয়োজকদের।

ওরাকজাই জেলার পুলিশ কর্মকর্তা নিসার আহমাদ খান জানিয়েছেন, ওই এলাকায় সন্ত্রাসীদের উপস্থিতির খবর আগে থেকেই তাদের কাছে ছিল এবং শিগগিরই সন্ত্রাসী ও অন্যান্য অপরাধীদের বিরুদ্ধে কয়েকটি নিরাপত্তা বাহিনীর সমন্বয়ে যৌথ অভিযান শুরু করবেন তারা।

২০০৯ সালে সফরকারী শ্রীলঙ্কা দলের উপর বন্দুকধারীদের হামলার পর দীর্ঘদিন আন্তর্জাতিক ক্রিকেট বন্ধ ছিল পাকিস্তানে। ছয় বছর পর জিম্বাবুয়ের বিপক্ষে সীমিত ওভারের সিরিজ দিয়ে আন্তর্জাতিক ক্রিকেট ফেরে দেশটিতে। তবে টেস্ট সিরিজ আয়োজন করতে তাদেরকে অপেক্ষা করতে হয় এক দশক। গেল বছরের শেষদিকে প্রথমবারের মতো ঘরের মাঠে ক্রিকেটের দীর্ঘতম সংস্করণে খেলার স্বাদ নেয় পাকিস্তান। প্রতিপক্ষ ছিল সেই শ্রীলঙ্কাই। এরপর চলতি বছরের ফেব্রুয়ারিতে বাংলাদেশও সেখানে গিয়ে খেলেছে টেস্ট সিরিজ। 

সাম্প্রতিক সিরিজগুলো সফলভাবে আয়োজন করলেও পাকিস্তানের পরিস্থিতি স্বাভাবিক হয়নি এখনও। আঞ্চলিক টুর্নামেন্টে এই সন্ত্রাসী হামলা সেখানকার নিরাপত্তা শঙ্কার বিষয়টি আরও একবার স্মরণ করিয়ে দিয়েছে। অথচ বৃহস্পতিবারই ব্রিটিশ গণমাধ্যম বিবিসির কাছে পাকিস্তানকে ‘নিরাপদ’ হিসেবে উল্লেখ করেন পিসিবি চেয়ারম্যান মানি।

Comments

The Daily Star  | English
MP Azim’s body recovery

Feud over gold stash behind murder

Slain lawmaker Anwarul Azim Anar and key suspect Aktaruzzaman used to run a gold smuggling racket until they fell out over money and Azim kept a stash worth over Tk 100 crore to himself, detectives said.

4h ago