আরও ১৮ জোড়া ট্রেন চালু ২৭ আগস্ট থেকে

করোনা মহামারির কারণে বন্ধ থাকা ট্রেনগুলোকে ধীরে ধীরে চালু করছে সরকার। আগামী ২৭ আগস্ট থেকে আরও ১৮ জোড়া ট্রেন চালু করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ রেলওয়ে।
ট্রেন
প্রতীকী ছবি। স্টার অনলাইন গ্রাফিক্স

করোনা মহামারির কারণে বন্ধ থাকা ট্রেনগুলোকে ধীরে ধীরে চালু করছে সরকার। আগামী ২৭ আগস্ট থেকে আরও ১৮ জোড়া ট্রেন চালু করতে যাচ্ছে বাংলাদেশ রেলওয়ে।

বাংলাদেশ রেলওয়ের উপপরিচালক মো. খায়রুল কবিরের সই করা এক চিঠিতে এ তথ্য জানানো হয়।

চিঠিতে বলা হয়, নতুন করে চালু হতে যাওয়া ট্রেনগুলো হচ্ছে: পাহাড়িকা/উদয়ন (চট্টগ্রাম-সিলেট), এগার সিন্দুর প্রভাতী ও গোধুলী (ঢাকা-কিশোরগঞ্জ), যমুনা এক্সপ্রেস (ঢাকা- তারাকান্দি), সোনার বাংলা এক্সপ্রেস (চট্টগ্রাম-ঢাকা), চট্টলা এক্সপ্রেস (চট্টগ্রাম-ঢাকা) ও করোতোয়া এক্সপ্রেস (সান্তাহার-বুড়িমারী)।

এই তালিকায় আরও রয়েছে— বরেন্দ্র এক্সপ্রেস (রাজশাহী-চিলাহাটি), সিল্কসিটি এক্সপ্রেস (রাজশাহী-ঢাকা), সাগড়দাঁড়ী এক্সপ্রেস (খুলনা-রাজশাহী), দোলনচাঁপা এক্সপ্রেস (সান্তাহার-দিনাজপুর), ঢালারচর এক্সপ্রেস (ঢালারচর- রাজশাহী), ঢাকা/চট্টগ্রাম মেইল (ঢাকা-চট্টগ্রাম), দেওয়ানগঞ্জ কমিউটার (ঢাকা-দেওয়ানগঞ্জ বাজার), বলাকা কমিউটার (ঢাকা-ঝারিয়া ঝাঞ্জাইল), বগুড়া কমিউটার (সান্তাহার-লালমনিরহাট), রকেট এক্সপ্রেস (খুলনা- পার্বতীপুর) এবং চিলাহাটী এক্সপ্রেস (পার্বতীপুর-চিলাহাটি-পার্বতীপুর)।

এই ট্রেনগুলোর সব টিকিট অনলাইন ও অ্যাপের মাধ্যমে পাঁচ দিন আগে থেকে কেনা যাবে। তবে, কোনো টিকিট ফেরত দেওয়ার সুযোগ থাকছে না।

স্বাস্থ্যবিধি মেনে চলতে আন্তঃনগর কোনো ট্রেনে স্ট্যান্ডিং টিকিট দেওয়া হচ্ছে না এবং মোট আসনের অর্ধেক টিকিট বিক্রি করা হচ্ছে।

ট্রেনে কোনো খাবার বা বেডিংপত্র সরবরাহ করা হবে না। এজন্য সোনার বাংলা এক্সপ্রেসের ভাড়া থেকে খাবারের মূল্য ও রাতে ট্রেনের উচ্চশ্রেণির ভাড়া থেকে বের্ডিং চার্জ বাদ দেওয়ার কথাও বলা হয়েছে চিঠিতে।

Comments

The Daily Star  | English

PM visits areas devastated by Cyclone Remal

Prime Minister Sheikh Hasina today visited the most affected areas in the country's south by Cyclone Remal

27m ago