বিশ্বকাপ দল বানানোর লক্ষ্যে যুবদলের ক্যাম্প শুরু

২০২২ যুব বিশ্বকাপের দল তৈরি করতে সাভারের বিকেএসপিতে শুরু হয়েছে আবাসিক ক্যাম্প। স্বাস্থ্য সুরক্ষা আর করোনাভাইরাস পরীক্ষা করিয়ে ৪৫ ক্রিকেটারকে নিয়ে শুরু হয়েছে এই ক্যাম্প।

২০২২ যুব বিশ্বকাপের দল তৈরি করতে সাভারের বিকেএসপিতে শুরু হয়েছে আবাসিক ক্যাম্প।  স্বাস্থ্য সুরক্ষা আর করোনাভাইরাস পরীক্ষা করিয়ে ৪৫ ক্রিকেটারকে নিয়ে শুরু হয়েছে এই ক্যাম্প।

ক্যাম্পে ডাকা ৪৫ ক্রিকেটারকে তিন দফায় করানো হয় কোভিড-১৯ পরীক্ষা। দ্বিতীয় দফায় অলরাউন্ডার ইফতেখার হোসেন কোভিড-১৯ পজিটিভ হোন। তার বদলে ক্যাম্পে নেওয়া হয় আরও একজনকে। তবে দ্বিতীয় পরীক্ষায় ইফতেখারের নেগেটিভ ফল আসে। আপাতত বিসিবির তত্ত্বাবধায়নে রেখে সপ্তাহ খানেকের মধ্যে আরও একবার পরীক্ষা করা হবে তার। তৃতীয় পরীক্ষায় নেগেটিভ হলে ক্যাম্প যোগ দেবেন তিনিও।

সোমবার বিকেএসপিতে ক্যাম্প শুরুর দিন তরুণ ক্রিকেটার রিহাদ খান জানান ক্যাম্প থেকে ভুলত্রুটি সংশোধনের আশায় আছেন তারা, ‘অনেকদিন অনুশীলন বন্ধ ছিল, আমরা আবারও শুরু করেছি। একসঙ্গে অনুশীলন করা ভালো একটা ব্যাপার। এতদিন যে ভুলগুলো হয়েছে সেগুলো শুধরে নেওয়া যাবে।’

বিশ্বকাপ জয়ী যুবদলের স্কোয়াডে থাকা ব্যাটসম্যান প্রান্তিক নওরোজ নাবিলও আছেন এবারের ক্যাম্পে। টানা দ্বিতীয় যুব বিশ্বকাপ দলে জায়গা করার চেষ্টায় থাকা নওরোজ এমন পরিস্থিতিতে অনুশীলনের সুযোগ পেয়ে স্বস্তির কথা জানান,  ‘অনেকদিন পর মাঠে ফিরে ভালো লাগছে। প্রথমত, বিসিবিকে ধন্যবাদ এরকম একটা ক্যাম্প আয়োজনের জন্য। আমাদের ইচ্ছে থাকলেও (অনুশীলন করা) সম্ভব হচ্ছিল না এই মহামারীর ভেতরে। এখন আবার সবাই একসঙ্গে হওয়া, কোচ, ট্রেনার; সব মিলিয়ে গুছিয়ে নিতে পারছি।’

‘বাসায় থাকতে থাকতে আমরা পিছিয়ে পড়ছিলাম। এখন আবার শুরু হয়েছে। আশা করি, আস্তে আস্তে আরও ভালো অবস্থায় যাব।’

ক্যাম্পে ব্যাটিং কোচ হিসেবে থাকা সাবেক ক্রিকেটার মেহরাব হোসেন অপি জানিয়েছেন পাঁচদিন ফিটনেস ট্রেনিং করে নেটে স্কিল ট্রেনিং শুরু করবেন তারা। সেখানেই তরুণ ক্রিকেটারদের পরখ করে নেওয়া হবে।

এরপর তি দলে ভাগ হয়ে ক্রিকেটাররা ম্যাচ অনুশীলন করবে।  ১৮ সেপ্টেম্বর পর্যন্ত বিকেএসপিতে চলবে নিবিড় এই ক্যাম্প।

Comments